বাসচাপায় নিহত পিন্টুর পরিবারকে দিতে হবে ১ কোটি টাকা
jugantor
বাসচাপায় নিহত পিন্টুর পরিবারকে দিতে হবে ১ কোটি টাকা

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৭ আগস্ট ২০২২, ২০:৩৩:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

বাসচাপায় নিহত পিন্টুর পরিবারকে দিতে হবে ১ কোটি টাকা

ঢাকার সড়কে বাসচাপায় নিহত এক দোকানকর্মীর পরিবারকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার রায় দিয়েছে আদালত।

ক্লেইম ট্রাইবুনাল বা দাবি আদায় ট্রাইবুনালের বিচারক হিসাবে ঢাকার জ্যেষ্ঠ জেলা ও দায়রা জজ এ এইচ এম হাবিবুর রহমান ভূঁইয়া মঙ্গলবার এ রায় দেন। বুধবার আদেশের খবরটি প্রকাশ পায়।

২০১৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর বাইসাইকেল চালিয়ে কাজে যাওয়ার সময় রামপুরার মালিবাগ চৌধুরীপাড়ার পেট্রল পাম্পের কাছে সুপ্রভাত পরিবহনের বাসের চাপায় নিহত হন পিন্টু শেখ। ২০১৭ সালে ২ কোটি ৭৭ লাখ টাকার বেশি ক্ষতিপূরণের দাবি জানিয়ে পিন্টুর পরিবার এই মামলা করে।

সুপ্রভাত পরিবহনের ওই বাসটির চালক মো. সোহাগ মিয়া এবং বাসটির মালিক মো. নুরুল ইসলামকে এই জরিমানা দিতে হবে।

বাদীপক্ষে আইনজীবী এ কে এম ফয়জুল্লাহ টিটু মামলাটি পরিচালনা করেন। মামলায় বলা হয়েছিল, পিন্টু শেখ তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন। তিনি স্ত্রী, এক মেয়ে ও বোন রেখে যান।

পিন্টু শেখের পরিবারকে যে ক্ষতিপূরণ দিতে আদেশে দেওয়া হয়েছে রায়ে, পর্যবেক্ষণে তার যুক্তি তুলে ধরেন বিচারক।

এতে বলা হয়, মৃত পিন্টু শেখ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। সেক্ষেত্রে তার ৬৫ বছর পর্যন্ত চাকরি করার সম্ভাবনাকে যথাযথ ও স্বাভাবিক ছিল বলে বিবেচিত হয়। ফলে তার আরও ৩৭ বছর পর্যন্ত চাকরি করার সুযোগ ছিল। কিন্তু মামলার আসামি ড্রাইভার সোহাগ দ্রুত ও বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালিয়ে চাপা দিয়ে তার অকাল মৃত্যু ঘটান। এক্ষেত্রে মোটরযান অধ্যাদেশ ১৯৮৩ এর ১২৮, ১২৯ এবং ১৩০ ধারার বিধানমতে পিন্টু শেখের ওয়ারিশরা ক্ষতিপূরণ পাবেন।

আদালতের বিবেচনায়, নিহত পিন্টু আরও ৩৭ বছর তথা ৪৪৪ মাস চাকরি করলে মাসিক গড়ে ২০ হাজার টাকা বেতন প্রাপ্তির মাধ্যমে সর্বমোট ৮৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা প্রাপ্ত হতেন। তাছাড়া তিনি এবং তার আত্মীয়-স্বজন পরস্পর তাদের ভালবাসা ও আদর-সোহাগ হতে বঞ্চিত হওয়ায় সেই ক্ষতিপূরণও পাবেন।

এই বিষয়টি বিবেচনায় তারা ১১ লাখ ২০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ পাবেন। এভাবে মৃত পিন্টু শেখের ওয়ারিশরা ৮৮ লাখ ৮০ হাজার ও ১১ লাখ ২০ হাজার মিলে মোট ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ পাবেন।


বাসচাপায় নিহত পিন্টুর পরিবারকে দিতে হবে ১ কোটি টাকা

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৭ আগস্ট ২০২২, ০৮:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বাসচাপায় নিহত পিন্টুর পরিবারকে দিতে হবে ১ কোটি টাকা
ফাইল ছবি

ঢাকার সড়কে বাসচাপায় নিহত এক দোকানকর্মীর পরিবারকে এক কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার রায় দিয়েছে আদালত।  

ক্লেইম ট্রাইবুনাল বা দাবি আদায় ট্রাইবুনালের বিচারক হিসাবে ঢাকার জ্যেষ্ঠ জেলা ও দায়রা জজ এ এইচ এম হাবিবুর রহমান ভূঁইয়া মঙ্গলবার এ রায় দেন। বুধবার আদেশের খবরটি প্রকাশ পায়।

২০১৬ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর বাইসাইকেল চালিয়ে কাজে যাওয়ার সময় রামপুরার মালিবাগ চৌধুরীপাড়ার পেট্রল পাম্পের কাছে সুপ্রভাত পরিবহনের বাসের চাপায় নিহত হন পিন্টু শেখ। ২০১৭ সালে ২ কোটি ৭৭ লাখ টাকার বেশি ক্ষতিপূরণের দাবি জানিয়ে পিন্টুর পরিবার এই মামলা করে।

সুপ্রভাত পরিবহনের ওই বাসটির চালক মো. সোহাগ মিয়া এবং বাসটির মালিক মো. নুরুল ইসলামকে এই জরিমানা দিতে হবে।  

বাদীপক্ষে আইনজীবী এ কে এম ফয়জুল্লাহ টিটু মামলাটি পরিচালনা করেন। মামলায় বলা হয়েছিল, পিন্টু শেখ তার পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন। তিনি স্ত্রী, এক মেয়ে ও বোন রেখে যান।

পিন্টু শেখের পরিবারকে যে ক্ষতিপূরণ দিতে আদেশে দেওয়া হয়েছে রায়ে, পর্যবেক্ষণে তার যুক্তি তুলে ধরেন বিচারক।

এতে বলা হয়, মৃত পিন্টু শেখ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। সেক্ষেত্রে তার ৬৫ বছর পর্যন্ত চাকরি করার সম্ভাবনাকে যথাযথ ও স্বাভাবিক ছিল বলে বিবেচিত হয়। ফলে তার আরও ৩৭ বছর পর্যন্ত চাকরি করার সুযোগ ছিল। কিন্তু মামলার আসামি ড্রাইভার সোহাগ দ্রুত ও বেপরোয়া গতিতে গাড়ি চালিয়ে চাপা দিয়ে তার অকাল মৃত্যু ঘটান। এক্ষেত্রে মোটরযান অধ্যাদেশ ১৯৮৩ এর ১২৮, ১২৯ এবং ১৩০ ধারার বিধানমতে পিন্টু শেখের ওয়ারিশরা ক্ষতিপূরণ পাবেন।

আদালতের বিবেচনায়, নিহত পিন্টু আরও ৩৭ বছর তথা ৪৪৪ মাস চাকরি করলে মাসিক গড়ে ২০ হাজার টাকা বেতন প্রাপ্তির মাধ্যমে সর্বমোট ৮৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা প্রাপ্ত হতেন। তাছাড়া তিনি এবং তার আত্মীয়-স্বজন পরস্পর তাদের ভালবাসা ও আদর-সোহাগ হতে বঞ্চিত হওয়ায় সেই ক্ষতিপূরণও পাবেন।

এই বিষয়টি বিবেচনায় তারা ১১ লাখ ২০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ পাবেন। এভাবে মৃত পিন্টু শেখের ওয়ারিশরা ৮৮ লাখ ৮০ হাজার ও ১১ লাখ ২০ হাজার মিলে মোট ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ পাবেন।


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন