৮০ কোটি টাকা পাচার: পিকে হালদারসহ ১৪ জনের বিচার শুরু
jugantor
৮০ কোটি টাকা পাচার: পিকে হালদারসহ ১৪ জনের বিচার শুরু

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫:৩৮:০৪  |  অনলাইন সংস্করণ

এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পিকে হালদার এবং আরও ১৩ জনের বিরুদ্ধে কানাডায় ৮০ কোটি টাকা পাচার এবং অবৈধভাবে প্রায় ৪২৬ কোটি টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দায়ের করা মামলার বিচার শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ঢাকার বিশেষ জজ ১০-এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলামের আদালত মামলার বাদী দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী জবানবন্দি দেবেন। আগামী ১৩ অক্টোবর তাকে জেরার তারিখ ধার্য করেছেন আদালত।

গত ৮ সেপ্টেম্বর আদালত এ মামলায় চার্জগঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন— পিকে হালদারের মা লিলাবতী হালদার, পূর্ণিমা রানী হালদার, উত্তম কুমার মিস্ত্রি, অমিতাভ অধিকারী, প্রিতিশ কুমার হালদার, রাজিব সোম, সুব্রত দাস, অনঙ্গ মোহন রায় ও স্বপন কুমার মিস্ত্রি, অবন্তিকা বড়াল, শংখ বেপারি, সুকুমার মৃধা ও অনিন্দিতা মৃধা। শেষের চার আসামি গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন।

গত ১৪ মে ভারতের অশোকনগরে অর্থপাচারের অভিযোগে পিকে হালদারকে গ্রেফতার করা হয়।

২০১৯ সালের ২২ অক্টোবর পিকে হালদারের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করে দুদক। তবে কর্মকর্তাদের সন্দেহ হয়, তিনি বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন।

৮০ কোটি টাকা পাচার: পিকে হালদারসহ ১৪ জনের বিচার শুরু

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৩:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পিকে হালদার এবং আরও ১৩ জনের বিরুদ্ধে কানাডায় ৮০ কোটি টাকা পাচার এবং অবৈধভাবে প্রায় ৪২৬ কোটি টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগে দায়ের করা মামলার বিচার শুরু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ঢাকার বিশেষ জজ ১০-এর বিচারক মোহাম্মদ নজরুল ইসলামের আদালত মামলার বাদী দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক মামুনুর রশীদ চৌধুরী জবানবন্দি দেবেন। আগামী ১৩ অক্টোবর তাকে জেরার তারিখ ধার্য করেছেন আদালত।

গত ৮ সেপ্টেম্বর আদালত এ মামলায় চার্জগঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন— পিকে হালদারের মা লিলাবতী হালদার, পূর্ণিমা রানী হালদার, উত্তম কুমার মিস্ত্রি, অমিতাভ অধিকারী, প্রিতিশ কুমার হালদার, রাজিব সোম, সুব্রত দাস, অনঙ্গ মোহন রায় ও স্বপন কুমার মিস্ত্রি, অবন্তিকা বড়াল, শংখ বেপারি, সুকুমার মৃধা ও অনিন্দিতা মৃধা। শেষের চার আসামি গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন।

গত ১৪ মে ভারতের অশোকনগরে অর্থপাচারের অভিযোগে পিকে হালদারকে গ্রেফতার করা হয়।

২০১৯ সালের ২২ অক্টোবর পিকে হালদারের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করে দুদক। তবে কর্মকর্তাদের সন্দেহ হয়, তিনি বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন