বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হবে কখন, যা বলল পিজিসিবি
jugantor
বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হবে কখন, যা বলল পিজিসিবি

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৪ অক্টোবর ২০২২, ১৬:৩৪:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়ের (ট্রিপ) কারণে রাজধানী ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, রাঙামাটি, রাজবাড়ী, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহসহ দেশের অর্ধেকের বেশি স্থানে একযোগে বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার বেলা ২টার দিকে দেশের মধ্য ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায় বলে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি) জানিয়েছে।

কখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে পারে এমন প্রশ্নে পিজিসিবির সূত্র জানিয়েছে, যথাসম্ভব দ্রুত বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে ৷ পুরো পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে রাত পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পিজিসিবির এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কাজ চলছে। তবে কতক্ষণ এমন পরিস্থিতি চলবে বলা যাচ্ছে না।

বিতরণ কোম্পানিগুলো জানিয়েছে, বিকল্প উপায়ে তারা গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা যেমন -হাসপাতাল, সরকারি জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎ সরবরাহের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

ইতোমধ্যে ঘোড়াশাল, টঙ্গীসহ কয়েকটি পাওয়ার প্ল্যান্ট চালু হয়েছে। গুরত্বপূর্ণ স্থাপনায় সরবরাহে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত যেসব জেলায় বিদ্যুৎ নেই সেগুলো হলো- ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, নেত্রকোনা, ঝিনাইদহ, রাঙামাটি, রাজবাড়ী, টাঙ্গাইল, লক্ষ্মীপুর, বান্দরবান, হবিগঞ্জ।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড- পিডিবির চট্টগ্রাম শাখার প্রধান প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদের ইস্টার্ন গ্রিড ফেল করেছে, যমুনার এপারে (পূর্ব) যেটা সেটা। এতে ঢাকা, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, সিলেট, কুমিল্লা সব জায়গায় ফেল। সময়টা ঠিক আমি খেয়াল করিনি, তবে দুইটার দিকে হয়েছে।

বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হবে কখন, যা বলল পিজিসিবি

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৪:৩৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় গ্রিডে বিপর্যয়ের (ট্রিপ) কারণে রাজধানী ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, চট্টগ্রাম, রাঙামাটি, রাজবাড়ী, টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহসহ দেশের অর্ধেকের বেশি স্থানে একযোগে বিদ্যুৎ বিপর্যয়ের ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার বেলা ২টার দিকে দেশের মধ্য ও দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায় বলে পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি) জানিয়েছে।

কখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে পারে এমন প্রশ্নে পিজিসিবির সূত্র জানিয়েছে, যথাসম্ভব দ্রুত বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে ৷ পুরো পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে রাত পর্যন্ত সময় লাগতে পারে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পিজিসিবির এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কাজ চলছে। তবে কতক্ষণ এমন পরিস্থিতি চলবে বলা যাচ্ছে না।

বিতরণ কোম্পানিগুলো জানিয়েছে, বিকল্প উপায়ে তারা গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা যেমন -হাসপাতাল, সরকারি জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎ সরবরাহের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। 

ইতোমধ্যে ঘোড়াশাল, টঙ্গীসহ কয়েকটি পাওয়ার প্ল্যান্ট চালু হয়েছে। গুরত্বপূর্ণ স্থাপনায় সরবরাহে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত যেসব জেলায় বিদ্যুৎ নেই সেগুলো হলো- ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, নেত্রকোনা, ঝিনাইদহ, রাঙামাটি, রাজবাড়ী, টাঙ্গাইল, লক্ষ্মীপুর, বান্দরবান, হবিগঞ্জ।

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড- পিডিবির চট্টগ্রাম শাখার প্রধান প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদের ইস্টার্ন গ্রিড ফেল করেছে, যমুনার এপারে (পূর্ব) যেটা সেটা। এতে ঢাকা, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, সিলেট, কুমিল্লা সব জায়গায় ফেল। সময়টা ঠিক আমি খেয়াল করিনি, তবে দুইটার দিকে হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন