হজ-ওমরাহ মেলা শুরু বৃহস্পতিবার
jugantor
হজ-ওমরাহ মেলা শুরু বৃহস্পতিবার

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৫ নভেম্বর ২০২২, ১৮:৫৩:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় পর্যায়ে হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মেলা শুরু হবে আগামী বৃহস্পতিবার। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিন দিনব্যাপী এ মেলা অনুষ্ঠিত হবে।

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম এ তথ্য জানান।

হাব সভাপতি জানান, এর আগে হজ ও ওমরাহ নিয়ে বাংলাদেশে জাতীয় পর্যায়ে কোনো সম্মেলন হয়নি।

ভার্চুয়ালি মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান, বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূতসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

হাব সভাপতি শাহাদাত হোসাইন বলেন, অতীতে হজ ব্যবস্থাপনায় নানারকম ত্রুটি-বিচ্যুতি, অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা ছিল। কিন্তু বর্তমান সরকার ও হাবের প্রচেষ্টায় হজ ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন ও শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে। বাংলাদেশে হজযাত্রীদের অধিকাংশই গ্রামগঞ্জে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছেন; কিন্তু বেশিরভাগ হজ ও ওমরাহ এজেন্সির প্রাতিষ্ঠানিক কাজকর্ম ঢাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ।

তাই এ মেলার মাধ্যমে সব হজ এজেন্সি সম্পর্কে সবাইকে পরিচয়ের ক্ষেত্র তৈরি করে দেওয়া সম্মেলনের অন্যতম উদ্দেশ্য। এছাড়া প্রযুক্তি নির্ভর হজ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে ধারণা দেওয়া, হজযাত্রীদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করা, হজকে কেন্দ্র করে অসাধু ব্যক্তিদের দৌরাত্ম্য ও মধ্যস্বত্বভোগী রোধ করা এবং হজ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য আদান-প্রদানসহ হজ ও ওমরাহ সম্পর্কে অবহিত করাই এ মেলার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

সংবাদ সম্মেলনে আরও ছিলেন হাবের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মাওলানা ইয়াকুব শরাফতী, মহাসচিব ফারুক আহমদ সরদার প্রমুখ।

হজ-ওমরাহ মেলা শুরু বৃহস্পতিবার

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৫ নভেম্বর ২০২২, ০৬:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় পর্যায়ে হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক মেলা শুরু হবে আগামী বৃহস্পতিবার। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিন দিনব্যাপী এ মেলা অনুষ্ঠিত হবে। 

মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসাইন তসলিম এ তথ্য জানান। 

হাব সভাপতি জানান, এর আগে হজ ও ওমরাহ নিয়ে বাংলাদেশে জাতীয় পর্যায়ে কোনো সম্মেলন হয়নি।

ভার্চুয়ালি মেলার উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান, বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূতসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা।

হাব সভাপতি শাহাদাত হোসাইন বলেন, অতীতে হজ ব্যবস্থাপনায় নানারকম ত্রুটি-বিচ্যুতি, অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা ছিল। কিন্তু বর্তমান সরকার ও হাবের প্রচেষ্টায় হজ ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন ও শৃঙ্খলা ফিরে এসেছে। বাংলাদেশে হজযাত্রীদের অধিকাংশই গ্রামগঞ্জে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছেন; কিন্তু বেশিরভাগ হজ ও ওমরাহ এজেন্সির প্রাতিষ্ঠানিক কাজকর্ম ঢাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ। 

তাই এ মেলার মাধ্যমে সব হজ এজেন্সি সম্পর্কে সবাইকে পরিচয়ের ক্ষেত্র তৈরি করে দেওয়া সম্মেলনের অন্যতম উদ্দেশ্য। এছাড়া প্রযুক্তি নির্ভর হজ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে ধারণা দেওয়া, হজযাত্রীদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি করা, হজকে কেন্দ্র করে অসাধু ব্যক্তিদের দৌরাত্ম্য ও মধ্যস্বত্বভোগী রোধ করা এবং হজ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য আদান-প্রদানসহ হজ ও ওমরাহ সম্পর্কে অবহিত করাই এ মেলার লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।

সংবাদ সম্মেলনে আরও ছিলেন হাবের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মাওলানা ইয়াকুব শরাফতী, মহাসচিব ফারুক আহমদ সরদার প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন