‘সমাবেশ করতে হলে বিএনপিকে বাঙলা কলেজ মাঠেই করতে হবে’
jugantor
‘সমাবেশ করতে হলে বিএনপিকে বাঙলা কলেজ মাঠেই করতে হবে’

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১৪:৪৮:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

১০ ডিসেম্বর ঢাকায় সমাবেশ করতে হলে বিএনপিকে মিরপুর বাঙলা কলেজ মাঠেই করতে হবে বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশীদ।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ডিবি কার্যালয়ের সামনে হারুন অর রশীদ সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। ডিবি কার্যালয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

ডিবিপ্রধান বলেন, সমাবেশস্থল নিয়ে বিএনপিকে বাঙলা কলেজ মাঠের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম সমাবেশের জন্য উপযুক্ত নয় বলে জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে ডিএমপি পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে বিএনপির প্রতিনিধিদলের দীর্ঘ আলোচনার পর রাজধানীর নয়াপল্টন ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বাইরে বিএনপির গণসমাবেশের জন্য আলোচনায় আসে কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম ও মিরপুর বাঙলা কলেজ মাঠ। দুপক্ষ এই জায়গায় পৌঁছায় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বিএনপির সূত্র জানায়, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে গতকালের আলোচনায়ও বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে বলা হয়। বিকল্প হিসেবে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা মাঠ, মিরপুরের কালশীর কথাও আসে। কিন্তু বিএনপির নেতারা আরামবাগ, সেন্ট্রাল মডেল স্কুল মাঠ, জাতীয় ঈদগাহ মাঠ ও কমলাপুর স্টেডিয়ামে সমাবেশের অনুমতি চায়। দুপক্ষের আলোচনার একপর্যায়ে মিরপুর বাঙলা কলেজ মাঠের কথাও আসে। এ পর্যায়ে উভয়পক্ষ কমলাপুর স্টেডিয়াম ও মিরপুর বাঙলা কলেজ মাঠে সমাবেশের বিষয়ে একমত হয়।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লা বলেন, কমলাপুর স্টেডিয়াম তাদের প্রথম পছন্দ। তবে আজ ডিবিপ্রধান কমলাপুর স্টেডিয়াম সমাবেশের জন্য উপযুক্ত নয় বলে জানালেন।

‘সমাবেশ করতে হলে বিএনপিকে বাঙলা কলেজ মাঠেই করতে হবে’

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

১০ ডিসেম্বর ঢাকায় সমাবেশ করতে হলে বিএনপিকে মিরপুর বাঙলা কলেজ মাঠেই করতে হবে বলে জানিয়েছেন গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশীদ।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ডিবি কার্যালয়ের সামনে হারুন অর রশীদ সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। ডিবি কার্যালয়ে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

ডিবিপ্রধান বলেন, সমাবেশস্থল নিয়ে বিএনপিকে বাঙলা কলেজ মাঠের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম সমাবেশের জন্য উপযুক্ত নয় বলে জানানো হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার রাতে ডিএমপি পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে বিএনপির প্রতিনিধিদলের দীর্ঘ আলোচনার পর রাজধানীর নয়াপল্টন ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের বাইরে বিএনপির গণসমাবেশের জন্য আলোচনায় আসে কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম ও মিরপুর বাঙলা কলেজ মাঠ।  দুপক্ষ এই জায়গায় পৌঁছায় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বিএনপির সূত্র জানায়, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে গতকালের আলোচনায়ও বিএনপিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করতে বলা হয়। বিকল্প হিসেবে টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা মাঠ, মিরপুরের কালশীর কথাও আসে। কিন্তু বিএনপির নেতারা আরামবাগ, সেন্ট্রাল মডেল স্কুল মাঠ, জাতীয় ঈদগাহ মাঠ ও কমলাপুর স্টেডিয়ামে সমাবেশের অনুমতি চায়। দুপক্ষের আলোচনার একপর্যায়ে মিরপুর বাঙলা কলেজ মাঠের কথাও আসে। এ পর্যায়ে উভয়পক্ষ কমলাপুর স্টেডিয়াম ও মিরপুর বাঙলা কলেজ মাঠে সমাবেশের বিষয়ে একমত হয়।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকতউল্লা বলেন, কমলাপুর স্টেডিয়াম তাদের প্রথম পছন্দ। তবে আজ ডিবিপ্রধান কমলাপুর স্টেডিয়াম সমাবেশের জন্য উপযুক্ত নয় বলে জানালেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন