চিকিৎসা পেশার মর্যাদা সমুন্নত রাখার আহ্বান

  যুগান্তর রিপোর্ট ০১ জুলাই ২০১৮, ১৮:৫৬ | অনলাইন সংস্করণ

উই দ্যা ড্রিমার্স আয়োজিত “ইন্টার্ন ফেয়ারওয়েল, ইন্টার্ন রিসেপশান এবং ঈদ গেট টুগেদার।

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মাধ্যমে শেষ হলো স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন “উই দ্যা ড্রিমার্স” আয়োজিত “ইন্টার্ন ফেয়ারওয়েল, ইন্টার্ন রিসেপশান এবং ঈদ গেট টুগেদার।

২০১৮ সালে এমবিবিএস পাশ করে ইন্টার্নশিপে জয়েন করতে যাওয়া এবং সদ্য ইন্টার্নশিপ শেষ করে স্থায়ী রেজিস্ট্রেশনপ্রাপ্ত ২০০ ডাক্তার নিয়ে এ প্রোগ্রাম আয়োজন করা হয়।

দুইটি সেশনে ভাগ করে দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠান পরিচালিত হয়। প্রথম সেশনটি ছিল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড একাডেমিক সেশন। এই সেশনে একজন আদর্শ ইন্টার্ন চিকিৎসক কেমন হওয়া উচিৎ, এফসিপিএস, এমডি, এমএস প্রভৃতি পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন পরীক্ষার ক্যারিয়ার গাইডলাইন এবং বিসিএস গাইডলাইন নিয়ে বিশেষায়িত লেকচার আয়োজিত হয়।

ইন্টারেক্টিভ এই সেশনে নবীন চিকিৎসকদের সাথে টপিকগুলোতে মতবিনিময় করেন দেশের দুই শীর্ষ মেডিকেল ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ থেকে পাশ করা উদীয়মান কৃতী চিকিৎসকবৃন্দ। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ৩৭ তম বিসিএস পরীক্ষায় স্বাস্থ্য ক্যাডারে দ্বিতীয় স্থান অধিকারী অ্যাপোলো হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার ডা. রাকিব আল ইমরান, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের রেডিওলোজি এবং শিশু নিউরোলোজি বিভাগের রেসিডেন্ট যথাক্রমে ডা. সালাহ উদ্দিন এবং ডা. ইসরাত জাহান নিগার এবং ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনের মেডিকেল অফিসার ডা. আদৃতা আফজাল।

দ্বিতীয় সেশন ছিল ঈদ পরবর্তী গেট টুগেদার এবং পুরস্কার বিতরণ। এই সেশনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উই দ্যা ড্রিমার্সের সাবেক নির্বাহী পরিচালক ক্যাপ্টেন ডা. মাহমুদুল হাসান ইমরান, বিশিষ্ট লেখক, চলচ্চিত্র এবং নাট্য নির্মাতা সাদাত হোসাইন, গ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক চিফ ইঞ্জিনিয়ার ও রিহ্যাবের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার সর্দার আমিন, বিআইডব্লিউটিসি চীফ ইঞ্জিনিয়ার আবদুর রহিম তালুকদার প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বেপজার সাবেক মেম্বার ও জিএম, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ইনভেস্টমেন্ট প্রমোশন অফিসার এ জেড এম আজিজুর রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ইন্টারন্যাশানাল ইউনিভার্সিটি অফ স্কলার্সের ট্রাস্টি বোর্ডের জেনারেল সেক্রেটারী অধ্যাপক ড. সালেহ হোসাইন।

বক্তারা বলেন, ‘পেশা যাই হোক, সব পেশা থেকেই জাতিকে সার্ভিস দেবার সুযোগ আছে। কিন্তু চিকিৎসা একটি স্পর্শকাতর পেশা। এখানে ডাক্তারদের একাডেমিক যোগ্যতার পাশাপাশি রোগীর মনস্তত্ব অনুধাবন, রোগীর কাউন্সেলিং এবং রোগীকে পর্যাপ্ত সময় দান – এই বিষয়গুলো ও গুরুত্বপূর্ণ।’

বক্তারা এই প্রজন্মের চিকিৎসকদেরকে চিকিৎসা পেশার মর্যাদা সমুন্নত করা এবং চিকিৎসাক্ষেত্রে বাংলাদেশকে একটি রোল মডেল দেশে পরিণত করার জন্য কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান। তাঁরা এই ধরণের একটি ইভেন্ট আয়োজনের জন্য ড্রিমার্স পরিবারকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

পরে নবীন এবং বিদায়ী ইন্টার্নদের মধ্যে ক্রেস্ট এবং পুরস্কার বিতরণ করা হয়। ইভেন্ট সম্পর্কে অনুভূতি প্রকাশ করেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ এবং স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজের সদ্য পাশ করা তিন চিকিৎসক।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সদ্য পাশ কৃত তিন জন চিকিৎসক – ডা. তোফায়েল আহমেদ, ডা. নাজিয়া শরীফ, ডা. গোলাম মোক্তাদীর প্রিন্স এবং বিদায়ী ইন্টার্ন চিকিৎসক ডা. ফাতেমা তুজ জান্নাত। কনভেনার ডা. গোলাম সাকলাইন ও ড্রিমার্সের অন্যতম নির্বাহী পরিচালক ডা. খালিদ ইসমাইলের ধন্যবাদ জ্ঞাপন এবং সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে আনন্দঘন এ আয়োজন শেষ হয়।

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×