রোহিঙ্গা মুসলিমদের নির্যাতনের কথা শুনলেন গুতেরেস ও কিম

প্রকাশ : ০২ জুলাই ২০১৮, ১৩:২৫ | অনলাইন সংস্করণ

  উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

কক্সবাজারের উখিয়ার কতুপালংয়ের ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের মুসলিমদের দুদর্শা ও নির্যাতনের কথা শুনলেন জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস ও বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম।

সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পৌঁছান তারা। এরপর কুতুপালংয়ের ট্রানজিট পয়েন্টের রোহিঙ্গাদের সঙ্গে কথা বলেন তারা।  বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় দুটি সংস্থার দুই প্রধানকে পেয়ে রোহিঙ্গা মুসলিমরা তাদের ওপর মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বর্বর নির্যাতনের কথা তুলে ধরেন।

এরআগে ঢাকা থেকে বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে সকাল ৯টার দিকে কক্সবাজার আসেন জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্ব ব্যাংক প্রেসিডেন্ট। তাদের সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা রয়েছেন।

কক্সবাজার বিমানবন্দর থেকে তাদের দুজনকে হোটেল সায়মনে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি তুলে ধরা হয়।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল জানান, কুতুপালংয়ের রোহিঙ্গা ট্রানজিট পয়েন্ট পরির্দশন শেষে কুতুপালংয়ের ডি ৪ ও ডি ৫ রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্প পরিদর্শন ও সরাসরি তাদের দুর্দশার কথা শোনেন জাতিসংঘ মহাসচিব এবং বিশ্ব ব্যাংক প্রেসিডেন্ট।

একইসঙ্গে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অবস্থানরত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক দাতাসংস্থার ত্রাণ কেন্দ্র, চিকিৎসা সেন্টার ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানও ঘুরে দেখবে গুতেরেস ও জিম। এরপর বিকালে তারা ঢাকায় ফিরবেন।

জাতিসংঘ মহাসচিব ও বিশ্ব ব্যাংক প্রেসিডেন্ট এমন এক সময়ে বাংলাদেশ সফর করছেন, যখন রাখাইন রাজ্যে সেনাবাহিনীর ‘জাতিগত নির্মূল অভিযান’ নিয়ে মিয়ানমার সরকারের ওপর আন্তর্জাতিক চাপ ক্রমশ বাড়ছে।

বিগত কয়েক দশকে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দমন-পীড়নেরমুখে পালিয়ে চার লাখের মতো রোহিঙ্গা মুসলিম বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। আর গতবছরের ২৫ আগস্ট এমনই এক অভিযানের মুখে রাখাইন থেকে নতুন করে ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।

জাতিসংঘ মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ওই অভিযানকে ‘জাতিগত নির্মূল অভিযান’ বলে আসছে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে রোহিঙ্গা সংকটকে এশিয়ার এ অঞ্চলে সাম্প্রতিক সময়ের সবচেয়ে বড় শরণার্থী সমস্যা হিসেবে দেখা হচ্ছে।

রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকার গত বছরের ২৩ নভেম্বর বাংলাদেশের সঙ্গে একটি চুক্তি সই করলেও তা বাস্তবায়নে গড়িমসি করছে।

এর আগে ২০০৮ সালের ২৭ মে গুতেরেস কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছিলেন। তখন তিনি জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা ইউএনএইচসিআরের প্রধান ছিলেন। জাতিসংঘ মহাসচিবের দায়িত্ব নেয়ার পর বাংলাদেশে এটাই তার প্রথম সফর। তবে বিশ্ব ব্যাংক প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম দুই বছর আগেই একবার বাংলাদেশ ঘুরে গেছেন।