শাহবাগে মারধরের শিকার মুফতি হুজাইফা হাসপাতাল থেকে ফিরছিলেন

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ জুলাই ২০১৮, ১৩:০৮ | অনলাইন সংস্করণ

মুফতি মুহাম্মদ হুজাইফা
ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর শাহবাগে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের মারধরের শিকার তরুণ মুফতি মুহাম্মদ হুজাইফা কোটা আন্দোলনে জড়িত নন। তিনি কামরাঙ্গীরচরের জামিয়া মাহমুদিয়া মাদ্রাসার হাসিস ও ফতোয়াবিষয়ক শিক্ষক।

কয়েক দিন ধরে অসুস্থ থাকার পর রোববার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসা নিতে গিয়েছিলেন মুফতি হুজাইফা।

রোববার বিকাল ৪টার দিকে হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে রিকশাযোগে কর্মস্থল কামরাঙ্গীরচরে ফেরার পথে শাহবাগে আক্রান্ত হন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে মুফতি হুজাইফাকে মারধরের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। এতে দেখা যায়, তিনি চিৎকার করে মারধরকারীদের বলছেন- আমি কিছুই করিনি, আমি কিছুই করিনি, আপনারা তো আমার কথা শুনবেন। তবে হামলাকারীরা তার কোনো কথাই শোনেনি।

জানা গেছে, শাহবাগে মুফতি হুজাইফাসহ ছয়জনকে ধরে মারধর করে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। এতে নেতৃত্ব দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি মো. আল জুবায়ের ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের স্কুলছাত্রবিষয়ক উপসম্পাদক সৈয়দ আরাফাত।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতা আল জুবায়ের বলেন, তারা আশপাশে দাঁড়িয়ে থেকে ফেসবুকে গুজব ছড়াচ্ছিল। তাদের হাতেনাতে ধরে আমরা পুলিশে সোপর্দ করেছি। পুলিশ জাস্টিফাই করে ব্যবস্থা নেবে।

তবে শাহবাগ থানায় নেয়ার পর জিজ্ঞাসাবাদ শেষে কোটা আন্দোলনে সম্পৃক্ততা না পেয়ে ওই দিনই পুলিশ তাদের ছেড়ে দেয়।

ইসলামী ঐক্যজোটের সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতি সাখাওয়াত হোসেন রাজি সোমবার ফেসবুকে হামলার শিকার মুফতি হুজাইফার পরিচয় তুলে ধরেন।

তিনি জানান, হুজাইফা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার এক মাদ্রাসা থেকে আলেম হওয়ার পর রাজধানীর বসুন্ধরা মাদ্রাসায় ফতোয়াবিষয়ক (ইফতা) পড়াশোনা সম্পন্ন করেন। এরপর চলতি বছর কামরাঙ্গীরচরের জামিয়া মাহমুদিয়া মাদ্রাসায় মুফতি ও মুহাদ্দিস হিসাবে যোগ দিয়েছেন।

মাওলানা সাখাওয়াত জানান, রোববার বঙ্গবন্ধু হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে কামরাঙ্গীরচরের মাদ্রাসায় ফেরার পথে মুফতি হুজাইফা শাহবাগে মারধরের শিকার হন। জানা গেছে, বর্তমানে ওই আলেম তার মাদ্রাসাতেই অবস্থান করছেন।

ঘটনাপ্রবাহ : কোটাবিরোধী আন্দোলন ২০১৮

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter