বাংলাদেশ সফর শেষে বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট

রোহিঙ্গা সমস্যায় বিশ্বনেতাদের জোরালো হস্তক্ষেপ দরকার

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ জুলাই ২০১৮, ২০:৫৫ | অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম
বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। ছবি-যুগান্তর

রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে বিশ্বনেতাদের আরও জোরালো হস্তক্ষেপ চেয়েছেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। তিনি বলেছেন, সংঘাতে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গার কল্যাণে বাংলাদেশের বড় অঙ্কের আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন।

জাতিসংঘের মহাসচিব মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গে বাংলাদেশ সফর শেষে তিনি এমন আহ্বান জানান।

দুই দিনের বাংলাদেশ সফরে জাতিসংঘ প্রধানের সঙ্গে কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্প সরেজমিন পরিদর্শন করেন বিশ্বব্যাংক প্রধান।

মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সব তথ্য জানিয়েছে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা অফিস।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট বলেছেন, আমি রোহিঙ্গা ক্যাম্পের চরম সংকট স্বচক্ষে প্রত্যক্ষ করেছি। ভয়াবহ অভিজ্ঞতার শিকার নারী ও পুরুষদের সঙ্গে আমি কথা বলেছি। তারা এখনো পরিস্থিতির উন্নতির অপেক্ষা করছে। রোহিঙ্গারা নিজেদের দেশে ফিরতে চায় বলেও জানান বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ সরকার রোহিঙ্গাদের জন্য সীমান্ত খুলে দিয়ে বিশ্বের বড় সেবা করেছে। তবে রোহিঙ্গাদের জরুরি প্রয়োজন মেটাতে আরও অনেক কিছু করণীয় রয়েছে। চলমান ভারি বর্ষা, সম্ভাব্য সাইক্লোনসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও রোগব্যাধির ঝুঁকি বাড়ছে। এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সহায়তা কামনা করেন কিম।

বিশ্বব্যাংক জানায়, বাংলাদেশে দুই দিনের সফরে সংস্থাটির প্রেসিডেন্ট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করেছেন, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ হাসান আলীসহ সরকারের বেশ কয়েকজন মন্ত্রী ও শীর্ষকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। এসব বৈঠকে বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট রোহিঙ্গাদের কল্যাণে বাংলাদেশ সরকারের নেয়া পদক্ষেপের প্রশংসা করেন। এ বিষয়ে বিশ্বব্যাংকের সহায়তা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতিও দেন।

সফরকালে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতির সাম্প্রতিক উন্নতির প্রশংসা করেন কিম। টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করতে বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক সহায়তা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। রোহিঙ্গা ইস্যুতে বিশ্বব্যাংকের প্রতিশ্রুতি ৪৮ কোটি মার্কিন ডলারের সহায়তা দেশের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়ক হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

সফরের সমাপনীতে তিনি বলেন, বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নতির গল্প প্রেরণাদায়ক। দারিদ্র্যবিমোচন ও সবার জন্য সুযোগ সৃষ্টির বিচারে দেশটি উদীয়মান নেতায় পরিণত হয়েছে। বৈশ্বিক দারিদ্র্যবিমোচনে বাংলাদেশকে গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার মনে করে। উচ্চ-মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হতে বাংলাদেশকে পর্যাপ্ত সহায়তা দেয়ার আশ্বাস দেন তিনি।

ঘটনাপ্রবাহ : রোহিঙ্গা বর্বরতা

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×