দূরপাল্লার বাস বন্ধ করে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

প্রকাশ : ০২ আগস্ট ২০১৮, ১৭:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

গাবতলী বাস টার্মিনাল (ফাইল ছবি)

ঢাকা থেকে বিভিন্ন জেলায় যাতায়াতকারী দূরপাল্লার বাস বন্ধ করে বাস ভাঙচুরের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ করছেন শ্রমিকরা। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আন্তজেলা বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এদিন সকাল থেকে গাবতলী টার্মিনাল থেকে বাস বন্ধ করে বিক্ষোভ করছেন শ্রমিকরা। নিরাপত্তাহীনতার কারণে কোনো বাস ছাড়া হচ্ছে না বলে তারা জানিয়েছেন। এতে ঢাকা থেকে প্রায় সব সড়কপথে বাস চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

জানা গেছে, ঢাকার গাবতলী, সায়েদাবাদ ও মহাখালী টার্মিনাল থেকে কোনো বাস ছেড়ে যায়নি। আবার কোনো বাস এসব টার্মিনালে আসেনি।

পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়, নিরাপত্তাহীনতার কারণে কোনো বাস ছাড়া হয়নি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত বাস চলাচল বন্ধ থাকবে।

গাবতলীর ট্রাফিক সার্জেন্ট সোহেল রানা সাংবাদিকদের জানান, বাস চলছে না। শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছেন।

ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে দূরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ

ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় হঠাৎ দূরপাল্লার পরিবহন না থাকায় যাত্রীদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।
 
ঢাকায় বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুতে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের রাজবাড়ী ও গোয়ালন্দ অংশে বৃহস্পতিবার পরিবহনশূন্য রয়েছে বলে অভিযোগ যাত্রীদের।

বিআইডব্লিটিসির টিকিট কাউন্টার সূত্রে জানা যায়, ভোর থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত ১৩০টি দূরপাল্লার গাড়ি চলাচল করলেও পরিবহনের সংখ্যা ছিল ২৪টি।

ঢাকা থেকে যাওয়া যাত্রী রেহেনা বেগম জানান, সকালে গাবতলী থেকে লেগুনায় অনেক কষ্টে পাটুরিয়া পৌঁছাই। তবে এখানে কোনো পরিবহনের বাস নেই বলে তিনি অভিযোগ করেন। পরে পাটুরিয়া থেকে নদী পার হয়ে দৌলতদিয়া প্রান্তে এসে পরিবহনশূন্য দেখতে পাই।

পরিবহনশূন্যের কারণ জানতে চাইলে দৌলতদিয়া ট্রাফিক পুলিশের এক কর্মকর্তা কথা বলতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

ময়মনসিংহ থেকে ঢাকায় বাস চলাচল বন্ধ

নৌমন্ত্রী শাজাহান খানের পদত্যাগ এবং ঘাতক বাসচালকের ফাঁসিসহ ৯ দফা দাবিতে ময়মনসিংহ থেকে ঢাকাগামী সব ধরনের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীসাধারণ।

বৃহস্পতিবার সকালে নিরাপত্তার স্বার্থে ওই রুটে বাস চলাচল বন্ধ করা হয়।

জেলা মোটর মালিক সমিতির বাস বিভাগের সাধারণ সম্পাদক বিকাশ সরকার জানান, ময়মনসিংহ থেকে ঢাকাগামী সব ধরনের যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। পরিবেশ স্বাভাবিক থাকলে পরে বাস চলাচলের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এদিকে নেত্রকোনা, শেরপুর থেকেও বাস চলছে না। তবে ময়মনসিংহ জেলার অভ্যন্তরীণ রুটে যথারীতি বাস চলাচল করছে। সকালে নগরীর আন্তঃজেলা মাসকান্দা বাস টার্মিনালে এসে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ দেখা যায়। কিন্তু সেখানে প্রচুর যাত্রী রয়েছে বলে জানান স্থানীয়রা।

ঢাকাগামী কয়েকজন শিক্ষার্থী বলেন, আজ ঢাকা যাওয়ার জন্য সকালে বাস টার্নিনালে এসেছি। কিন্তু দেখি, ঢাকা যাওয়ার সব যাত্রীবাহী বাস বন্ধ। শুক্রবার বিসিএস পরীক্ষা। কী করব জানি না।

প্রসঙ্গত, গত রোববার জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর থেকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামেন। বুধবার চতুর্থ দিনের মাথায় শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ঢাকার পর চট্টগ্রাম, বরিশালসহ দেশের বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে পড়ে।

এদিকে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার সারা দেশের সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বুধবার বিকালে এ তথ্য সাংবাদিকদের জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এদিন যাত্রাবাড়ী শনির আখড়া এলাকায় উল্টোপথে আসা দ্রুতগতির একটি পিকআপ (মাঝারি ট্রাক) ফয়সাল নামে আন্দোলনরত এক শিক্ষার্থীকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। আহতাবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীরা আরও বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন।