গণপরিবহন বন্ধ, ছবিতে জনদুর্ভোগ

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৩ আগস্ট ২০১৮, ১৫:১৮ | অনলাইন সংস্করণ

বাস না থাকায় ভোগান্তি
রাজধানীতে ঘুমন্ত শিশুকে কোলে নিয়ে বাসের অপেক্ষায় এক নারী- সংগৃহীত

বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় ছাত্র বিক্ষোভের ষষ্ঠ দিনে ঢাকাসহ বেশিরভাগ জেলায় অঘোষিত ধর্মঘট চলছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রীরা।

শুক্রবার সকাল থেকে বিভিন্ন জেলার বাস টার্মিনালে যাত্রীরা দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করেও বাসের দেখা পাননি।

জরুরি প্রয়োজনে বেরিয়েও বিফল হয়ে বাড়ির পথ ধরতে হয়েছে অনেককে। কেউ কেউ অনিশ্চয়তা নিয়েই বাসের অপেক্ষায় বসে আছেন।

পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা বলছেন, আন্দোলনরত ছাত্ররা ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করায় নিরাপত্তাহীনতার কারণে তারা বাস নামাচ্ছেন না।

অঘোষিত ধর্মঘটে গাবতলী টার্মিনালে ঠায় দাঁড়িয়ে রয়েছে শত শত বাস- যুগান্তর

সায়েদাবাদ বাস টার্মিনাল থেকে হেঁটেই রওনা দিয়েছেন অনেকে, কেউ করছেন অপেক্ষা- সংগৃহীত

গাবতলী বাস টার্মিনালে টিকিট কাউন্টারে যাত্রীরা, অনিশ্চয়তা নিয়ে অপেক্ষা করছেন- যুগান্তর

 গাবতলীতে যাত্রীদের চোখেমুখে উদ্বেগ, কখন বাস আসবে- যুগান্তর

গাবতলীতে গাড়িগুলো অলস দাঁড়িয়ে আছে, মানুষেরা হেঁটে যাচ্ছেন- যুগান্তর

রাজধানীর গুলিস্তানে গাড়ি নেই, দুয়েকটি রিকশা থাকলেও তা আগে থেকে যাত্রীদের দখলে-যুগান্তর

মহাখালীতে শিশুসন্তানকে নিয়ে গাড়ির অপেক্ষায় এক যাত্রী- যুগান্তর

গাড়ি না পেয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে হেঁটে যাচ্ছেন সাধারণ মানুষ। কেউ কেউ ভ্যানে চড়েও যাচ্ছেন- যুগান্তর

টেম্পোগুলো অলস দাঁড়িয়ে আছে। কেউ কেউ হেঁটেই গন্তব্যে রওনা দিয়েছেন- যুগান্তর

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে হাজার মানুষকে হেঁটে হেঁটে গন্তব্যে যেতে দেখা গেছে- যুগান্তর

সাইন্সল্যাবে বাস না পেয়ে শিশুদের কোলে নিয়ে হাঁটছেন বাবা-মায়েরা-যুগান্তর

ঘটনাপ্রবাহ : বিমানবন্দর সড়কে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter