রাজধানীতে আজও শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা

প্রকাশ : ০৪ আগস্ট ২০১৮, ১১:৩৯ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর রিপোর্ট

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শনিবার উত্তরায় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ। ছবি: আশিক

বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে সপ্তম দিনেও রাজধানীতে বিক্ষোভে নেমেছেন শিক্ষার্থীরা।

শনিবার সকাল থেকে দনিয়া, জুরাইন, মালিবাগ, ঝিগাতলা, মিরপুর, লালবাগ, শাহবাগ, সাইন্সল্যাব, বাড্ডা ও উত্তরায় হাজার হাজার শিক্ষার্থী নিরাপদ সড়কের দাবিতে জড়ো হয়েছেন।

বিক্ষোভের পাশাপাশি তারা গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা ও ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহারে পথচারীদের উৎসাহিত করছেন শিক্ষার্থীরা।

এদিকে ঢাকাসহ বেশিরভাগ জেলায় অঘোষিত পরিবহন ধর্মঘট চলছে। সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের নির্দেশে এ ধর্মঘট শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে। এতে অসহনীয় দুর্ভোগে পড়েছেন সাধারণ মানুষ।

বেলা ১১টার দিকে মিরপুর-২ থেকে শত শত শিক্ষার্থী মিছিল নিয়ে এসে মিরপুর-১০ এর গোলচত্বরে জড়ো হন। সেখানে নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করেন তারা।

পাশাপাশি ফুটওভার ব্রিজ ও ফুটপাথ ব্যবহারে লোকজনকে উৎসাহিত করছেন। গাড়ির লাইসেন্সও পরীক্ষা করছেন। এতে পুলিশও তাদের সহায়তা করছেন।

পল্লবী পুলিশের সহকারী কমিশনার (ট্রাফিক) সাইকা পাশা যুগান্তরকে বলেন, ওরা প্রতিদিন যা করছেন, আজও তাই করছেন। আগের কয়েক দিনের মতো তারা আজও গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা করছেন।

সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের শিক্ষার্থীরা শান্তিনগর মোড়ে জড়ো হন। সেখানে কুড়ি জনের মতো শিক্ষার্থীকে জড়ো হতে দেখা যায়।

একই সময়ে বীরশ্রেষ্ঠ নূল মোহাম্মদ রাইফেলস পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থীরা ঝিগাতলা মোড়ে বিক্ষোভ করেন। মালিবাগে আবুল হোটেলের সামনেও জড়ো হন শিক্ষার্থীরা।

শনিবার সকাল ১০ থেকে উত্তরা হাউজ বিল্ডিংয়ের সামনে অর্ধ শতাধিক স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। পরে সড়কে দাঁড়িয়ে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করেন তারা।

সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শিক্ষার্থীরা নর্থ টাওয়ারের সামনে এসে পুলিশের বেরিকেড ভেঙে সড়ক অবরোধ করেন। তারা নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন।

উত্তরা জোনের এডিসি (ট্রাফিক) রহিমা আক্তার লাকী যুগান্তরকে বলেন, শিক্ষার্থীরা প্রতিদিনের মতো আজও গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা করছেন।