যাত্রাবাড়ীতে শিক্ষার্থীদের ধাওয়ায় পিছু হটলেন পরিবহন শ্রমিকরা

  দনিয়া প্রতিনিধি ০৪ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৩৪ | অনলাইন সংস্করণ

ধনিয়া
ছবি: যুগান্তর

যাত্রাবাড়ীর রায়েরবাগ এলাকায় পরিবহন শ্রমিকরা যাত্রীবাহী গাড়ি আটকানোর চেষ্টা করলে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা তাদের ধাওয়া করেন।

এসময় তাদের ধাওয়া খেয়ে পিছু হটেন পরিবহন শ্রমিকরা।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

বিমানবন্দর সড়কে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে সপ্তম দিনের মতো যাত্রাবাড়ীতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থী।

সকাল ১০টা থেকে দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ, বর্ণমালা আদর্শ স্কুল অ্যান্ড কলেজ, একে স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ড. মাহবুবুর রহমান মোল্লা কলেজের শতশত শিক্ষার্থী সড়কে জড়ো হতে থাকেন।

এসময় তারা নৌমন্ত্রীর পদত্যাগ ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দেন।

তার গাড়ির লাইসেন্স পরীক্ষা ও ফুটওভার ব্রিজ ব্যবহারে পথচারীদের উৎসাহিত করেন।

সড়কে নিয়ম মেনে যানবাহন চলাচলে পুলিশকে সাহায্য করতে দেখা যায় দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের একদল শিক্ষার্থীকে।

আকাশ নামের এক শিক্ষার্থী যুগান্তরকে বলেন, আজ ট্রাফিক পুলিশের কাজ আমাদের করতে হচ্ছে। এটা লজ্জাকর। সড়কে বার বার হত্যাকাণ্ড ঘটলেও কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নেয়নি।

তিনি বলেন, সড়কে যানবাহন যাতে নিয়ম মেনে চলে সেই কাজটিই করে দেখাচ্ছি আমরা।

শিক্ষার্থীরা বলেন, সরকার আমাদের দাবি মেনে নেয়ার কথা বলছে। কিন্তু তা এখনও বস্তাবায়ন হয়নি। সরকারের মৌখিক কথা আমরা এখন বিশ্বাস করি না।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সময়েও দাবি মেনে নেয়ার কথা বলে পরবর্তীতে তা অস্বীকার করা হয়েছে বলে জানান তারা।

নাম প্রকাশে এক শিক্ষার্থী বলেন, সরকার এখন আমাদের দাবি মেনে নেয়ার কথা বলেছে, কিন্তু কয়েকদিন পর আন্দোলন থেমে গেলে তা অস্বীকার করবে। তাদের বক্তব্য আমরা বিশ্বাস করি না, দাবি বাস্তবায়ন চাই।

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি (অপারেশন) যুগান্তরকে বলেন, কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যাতে কোনো দুর্ঘটনায় কবলিত না হয়, তা আমরা দেখছি।

ঘটনাপ্রবাহ : বিমানবন্দর সড়কে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যু

 

 

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter