পাঁচ জেলায় সড়কে প্রাণ গেল ৯ জনের

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৮ আগস্ট ২০১৮, ২২:১৫ | অনলাইন সংস্করণ

সড়ক দুর্ঘটনা

দেশের পাঁচ জেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৯ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আহত হয়েছেন ৩ জন। মঙ্গলবার বরগুনায় ৩ জন, কুমিল্লায় ৩ জন এবং গাজীপুর, সুনামগঞ্জ ও সিলেটে একজন করে নিহত হয়েছেন।

যুগান্তর প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর:

বেতাগী (বরগুনা): বরগুনার বেতাগী উপজেলায় বাস-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে তিনজন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বেতাগী-বরগুনা মহাসড়কের বঙ্গবন্ধু খানের হাট নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন বেতাগী উপজেলার কাজিরাবাদ ইউনিয়নের পশ্চিম বকুলতলা গ্রামের হোছেন উদ্দিন শিকদারের ছেলে আজিজ শিকদার (৭২) ও একই এলাকার মো. হানিফ আকন (৬৫) ও তার ছেলে মোটরসাইকেলচালক মো. লিটন (৩৫)।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বরগুনা থেকে বেতাগীর উদ্দেশে ছেড়ে আসা সত্তার পরিবহনের একটি বাস বিপরীত দিক থেকে আসা তিন আরোহীসহ মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে আবদুল আজিজ নিহত হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় দুজনকে বেতাগী হাসপাতালে নিয়ে গেলে মো. হানিফ আকন নামে অপর একজনের মৃত্যু হয়।

গুরুতর আহত অবস্থায় মোটরসাইকেলচালক মো. লিটন আকনকে বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

বেতাগী থানার ওসি মো. মামুন-অর-রশিদ ও আনসার ভিডিপির সদস্য সুকদেব ঘটনাস্থল থেকে ১৫ কিলোমিটার উত্তরে ঝোপখালীতে ফিটনেসবিহীন বাস ও ড্রাইভিং লাইসেন্সবিহীন বাসচালক মিন্টুকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

বেতাগী থানার ওসি মো. মামুন-অর-রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

গাজীপুর: গাজীপুরের টঙ্গীতে মঙ্গলবার দুপুরে ট্রাকের ধাক্কায় ইজিবাইকের এক নারী যাত্রী নিহত হয়েছেন। নিহত নাসরিন আক্তার (৪৫), স্থানীয় ব্যাংকের মাঠ এলাকার বাসিন্দা শের আলীর স্ত্রী।

টঙ্গী থানার এসআই মো. শাহিন জানান, দুপুর দেড়টার দিকে টঙ্গী স্টেশন রোড এলাকা থেকে নাসরিনকে নিয়ে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে টঙ্গী বাজার এলাকার দিকে যাচ্ছিলেন। পথে বনমালা রোড এলাকায় পৌঁছলে একটি ট্রাক ইউটার্ন নেয়ার সময় ইজিবাইককে ধাক্কা দেয়। এতে নাসরিন গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বুড়িচং (কুমিল্লা): কুমিল্লা -বুড়িচং -ব্রাহ্মণপাড়া সড়কে সিএনজি দুর্ঘটনায় আমিনুল ইসলাম ও তার ছেলে ওয়াফি ইসলাম নাবিল নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় ওই ব্যবসায়ীর স্ত্রী ও মেয়ে সিএনজিচালক এবং অজ্ঞাত আরও ২ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকালে জেলার সদর উপজেলার মহেষপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

কোতোয়ালি মডেল থানার এসআই তপন বাগচী জানান, জেলার ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার সিদলাই গ্রামে শ্বশুরবাড়ি থেকে ঢাকার আশকোনা এলাকার গার্মেন্টস ব্যবসায়ী আমিনুল ইসলাম তার স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে অটোরিকশা সিএনজিযোগে কুমিল্লা ফিরছিলেন।

সকাল সোয়া ৭টার দিকে সদর উপজেলার কুমিল্লা-বুড়িচং -ব্রাহ্মণপাড়া সড়কের মহেষপুর এলাকায় তাদের বহনকারী সিএনজি অটোরিকশাটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে আমিনুল ইসলাম (৪৫), তার স্ত্রী ইয়াসমিন (৩২), মেয়ে আফসানা (১২), ছেলে ওয়াফি ইসলাম নাবিল (৪), সিএনজিচালক ও অজ্ঞাত আরও ২ জন আহত হয়। তাদের উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর আমিনুল ইসলাম ও তার ছেলে ওয়াফির মৃত্যু হয়।

এ ব্যাপারে বুড়িচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনোজ কুমার দে সড়ক দুর্ঘটনায় পিতাপুত্র নিহতের ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

দেবিদ্বার (কুমিল্লা): দেবিদ্বারে ট্রাকের ধাক্কায় গাফ্ফার হোসেন রাজু (১৪) নামের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে কুমিল্লা-সিলেট আঞ্চলিক মহাসড়কের দেবিদ্বার পৌরসভার বারেরা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরে দেবিদ্বার রেয়াজ উদ্দিন সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র গাফ্ফার হোসেন রাজু তার ছোট ভাইকে স্কুলে ভাত দিয়ে বাসায় ফিরছিল। পৌর এলাকার বারেরা নামক স্থানে কেএসআরএম রড কোম্পানির একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ওই স্কুলছাত্রকে ধাক্কা দিয়ে পাশের একটি দোকানে উঠে যায়।

স্থানীয়রা গুরুতর আহত গাফ্ফারকে উদ্ধার করে প্রথমে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। তার অবস্থার অবনতি হলে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে বিকালে তার মৃত্যু হয়। পুলিশ বিকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উদ্ধার করে।

নিহত স্কুলছাত্র দেবিদ্বার পৌর এলাকা বারেরা গ্রামের বাসিন্দা ও প্রবাসী মো. গিয়াস উদ্দিনের ছেলে। তার স্থায়ী বাড়ি উপজেলার ফতেহাবাদ ইউনিয়নের বরকান্দা ভূইয়া বাড়ি। বেশ কয়েক বছর পূর্ব থেকে দেবিদ্বার পৌর এলাকার বারেরা গ্রামে এসে বসবাস শুরু করে।

এ ব্যাপারে দেবিদ্বার থানার এসআই মো. রবিউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, কেএসআরএম রড কোম্পানির ট্রাক ও ট্রাকের হেলপারকে আরিফুল হককে আটক করা হয়েছে।

দিরাই (সুনামগঞ্জ): সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে বেপরোয়া বাস কেড়ে নিল সরুপা বেগম (৫০) নামের এক নারীর প্রাণ। তিনি উপজেলার মাতারগাও গ্রামের মুসলিম মিয়ার স্ত্রী।

মঙ্গলবার দুপুর ১টায় সুজানগর গ্রামের পাশে দিরাই-মদনপুর সড়কে রাস্তা পারাপার করতে গেলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দিরাই থানার ওসি মোস্তফা কামাল জানান, দিরাই থেকে সিলেট গামী যাত্রীবাহী বাস সুজানগর গ্রামে পাশে গেলে এমন সময় রাস্তা পারাপার করতে গেলে ওই নারী বাসের ধাক্কায় মাথায় আঘাত পেয়ে ঘটনা স্থলেই প্রাণ হারান। বাসটি আটক করা হয়েছে তবে চালক পালিয়ে গেছে।

বিশ্বনাথ (সিলেট): মঙ্গলবার বেলা ১১টায় দক্ষিণ সুরমা উপজেলার লালাবাজারে ঢাকাগামী বাসচাপায় ফার্মেসি ব্যবসায়ী কামরুল ইসলাম (৪৩) নামের একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ জনতা গাড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি প্রায় আড়াই ঘণ্টা মহাসড়ক অবরুদ্ধ করে রাখেন।

পরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ ও দক্ষিণ সুরমা থানা পুলিশের আশ্বাসে সড়ক অবরোধ তুলে নেয় জনতা।

এ ব্যাপারে দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি আবুল ফজল বলেন, ঘটনার পর থেকেই লালা বাজারে ট্রাফিক পুলিশ নিয়োজিত করা হয়েছে। বাসটি আটক করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক যেন মৃত্যু মিছিলে পরিণত হয়েছে। গত ১৫ জুলাই থেকে ২৮ আগস্ট পর্যন্ত মাত্র দেড় মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় মহাসড়কের দক্ষিণ সুরমা ও ওসমানীনগর এলাকা পর্যন্ত ব্যবসায়ীসহ প্রায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন প্রায় শতাধিক লোকজন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter