সরকার দেশের অনেক উন্নতি করেছে: প্রধান বিচারপতি

প্রকাশ : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:৫০ | অনলাইন সংস্করণ

  কুমিল্লা ব্যুরো

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন এবং অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদারকে সম্মাননা ক্রেস্ট উপহার দেন কুমিল্লা বারের আইনজীবী নাছির উদ্দিন বাহার ও মুহাম্মাদ মুনিরুজ্জামান। ছবি: যুগান্তর

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, সরকার দেশের অনেক উন্নতি সাধন করেছে।  সরকারের একার পক্ষে সব উন্নয়ন করা সম্ভব না। কারণ সরকারের সম্পদেরও একটা সীমাবদ্ধতা আছে।

প্রধান বিচারপতি বলেন, আমাদের দেশে যারা ধনী তাদের কিন্তু সমাজসেবা করার প্রবণতা কম। সব সময় ছেলেমেয়েদের ‘প্রপার্টি’ দিয়ে যাওয়ার ইচ্ছা। সমাজের ধনাঢ্য ব্যক্তিরা সমাজসেবায় এগিয়ে এলে দেশের আরও উন্নতি হবে। 

শনিবার জেলার লালমাই উপজেলার শানিচোঁ এলাকায় আবদুল বাসেত মজুমদার ট্রাস্ট হাসপাতালের উদ্বোধন শেষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় সভাপতিত্ব করেন ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য এবং বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার। 

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রেলপথমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহা প্রশাসন ও বিচার বিভাগের সঙ্গে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি করেছিলেন।  তিনি কথা বেশি বলতেন।  বেশি বেশি কথা বলে তিনি জল্লায় গেছেন।  বর্তমান প্রধান বিচারপতি কথা কম বলেন, কাজ বেশি করেন।  তিনি অত্যন্ত বিনয়ী, ভদ্র ও মার্জিত। এখন বিচার বিভাগ ও প্রশাসনের মধ্যে কোনো দ্বন্দ্ব নেই।

সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন কুমিল্লা সদর আসনের এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার, লাকসাম-মনোহরগঞ্জ আসনের এমপি তাজুল ইসলাম ও সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি আসফাকুল কামাল। 

এর আগে প্রধান বিচারপতি ও অন্য অতিথিরা ফিতা কেটে আবদুল বাসেত মজুমদার ট্রাস্ট হাসপাতালের উদ্বোধন করেন। 

সভায় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন এবং অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদারকে সম্মাননা ক্রেস্ট উপহার দেন কুমিল্লা বারের আইনজীবী নাছির উদ্দিন বাহার ও মুহাম্মাদ মুনিরুজ্জামান। 

এ সময় কুমিল্লা আইনজীবী সমিতি, বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্ট ল-স্টাডিজ সোসাইটি, ফেনী জেলা আইনজীবী সমিতি, লালমাই উপজেলা পরিষদ এবং আবদুল বাসেত মজুমদার প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসা, এতিমখানা, স্কুল ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে প্রধান বিচারপতিকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।