রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় সিআইডির এএসআই নিহত
jugantor
রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় সিআইডির এএসআই নিহত

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০৬ আগস্ট ২০২০, ১৯:৪৭:৫৭  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় সিআইডির এএসআই নিহত

রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় জিয়াউর রহমান (৩০) নামে এক এএসআই নিহত হয়েছেন। তিনি ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্টে (সিআইডি) কর্মরত ছিলেন।

অপরদিকে রাজধানীতে পৃথক আরেকটি সড়ক দুর্ঘটনায় আবদুর রাজ্জাক রাজু (৩০) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বিকালে বিমানবন্দরের কাউলা এলাকায় বাসের ধাক্কায় নিহত হন জিয়াউর রহমান। এ সময় তার সঙ্গে থাকা কনস্টেবল আতিয়ার রহমান আহত হন।

এর আগে দুপুর দেড়টার দিকে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের যাত্রাবাড়ী অংশে বাসের ধাক্কায় নিহত হন আবদুর রাজ্জাক রাজু। এ সময় আরিফ (৩৫) নামের আরেকজন আহত হন।

বিমানবন্দর থানার ওসি কায়কোবাদ কাজী জানান, বৃহস্পতিবার বিকাল পৌনে ৩টায় কাউলা ফুটওভার ব্রিজের নিচ দিয়ে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন সিআইডির এএসআই জিয়াউর রহমান। তার পেছনে বসা ছিলেন কনস্টেবল আতিয়ার রহমান। এ সময় বলাকা পরিবহনের বেপরোয়া একটি বাস তাদের মোটরসাইকেলে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই জিয়াউর রহমানের মৃত্যু হয়। কনস্টেবল আতিয়ার রহমান সামান্য আহত হন।

ওসি জানান, ঘটনার পরপরই ঘাতক বাসটি জব্দ করা হয়েছে। তবে এর চালক পালিয়ে গেছে। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে রাজধানীর হানিফ ফ্লাইওভারে বাসের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন মোটরসাইকেল আরোহী আবদুর রাজ্জাক রাজু ও তার বন্ধু আরিফ (৩৫)। তারা চিটাগাং রোড থেকে মোটরসাইকেলে আগারগাঁওয়ে যাচ্ছিলেন। যাত্রাবাড়ী থেকে হানিফ ফ্লাইওভারে উঠলে পেছন থেকে একটি বেপরোয়া বাস তাদের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তারা রাস্তায় পড়ে যান। পরে পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক রাজুকে মৃত ঘোষণা করেন। আর আরিফ ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

আরিফ জানান, আগারগাঁওয়ের তালতলা এলাকায় তার জুতার ব্যবসা রয়েছে। আরিফ নিজেই মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন। যাত্রাবাড়ী থেকে হানিফ ফ্লাইওভারে উঠলে পেছন থেকে বেপরোয়া একটি বাস তাদের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। তারা ছিটকে পড়লে বাসটি তাদের ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে আরিফ গুরুতর আহত হন। আর রাজুর মৃত্যু হয়।

যাত্রাবাড়ী থানার এসআই আক্তার হোসেন জানান, আল বারাকা পরিবহনের বাসটিকে আটক করা হয়েছে। তবে এর চালক পালিয়ে গেছে। নিহত রাজু পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার গুলসিখালি গ্রামের বজুল তালুকদারের ছেলে। আহত আরিফ লক্ষ্মীপুরের ভাগলপুর গ্রামের বাসিন্দা।

রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় সিআইডির এএসআই নিহত

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০৬ আগস্ট ২০২০, ০৭:৪৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় সিআইডির এএসআই নিহত
প্রতীকী ছবি

রাজধানীতে বাসের ধাক্কায় জিয়াউর রহমান (৩০) নামে এক এএসআই নিহত হয়েছেন। তিনি ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্টে (সিআইডি) কর্মরত ছিলেন।

অপরদিকে রাজধানীতে পৃথক আরেকটি সড়ক দুর্ঘটনায় আবদুর রাজ্জাক রাজু (৩০) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। 

বৃহস্পতিবার বিকালে বিমানবন্দরের কাউলা এলাকায় বাসের ধাক্কায় নিহত হন জিয়াউর রহমান। এ সময় তার সঙ্গে থাকা কনস্টেবল আতিয়ার রহমান আহত হন।

এর আগে দুপুর দেড়টার দিকে মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের যাত্রাবাড়ী অংশে বাসের ধাক্কায় নিহত হন আবদুর রাজ্জাক রাজু। এ সময় আরিফ (৩৫) নামের আরেকজন আহত হন। 

বিমানবন্দর থানার ওসি কায়কোবাদ কাজী জানান, বৃহস্পতিবার বিকাল পৌনে ৩টায় কাউলা ফুটওভার ব্রিজের নিচ দিয়ে মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন সিআইডির এএসআই জিয়াউর রহমান। তার পেছনে বসা ছিলেন কনস্টেবল আতিয়ার রহমান। এ সময় বলাকা পরিবহনের বেপরোয়া একটি বাস তাদের মোটরসাইকেলে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়। এতে ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই জিয়াউর রহমানের মৃত্যু হয়। কনস্টেবল আতিয়ার রহমান সামান্য আহত হন। 

ওসি জানান, ঘটনার পরপরই ঘাতক বাসটি জব্দ করা হয়েছে। তবে এর চালক পালিয়ে গেছে। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে রাজধানীর হানিফ ফ্লাইওভারে বাসের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন মোটরসাইকেল আরোহী আবদুর রাজ্জাক রাজু ও তার বন্ধু আরিফ (৩৫)। তারা চিটাগাং রোড থেকে মোটরসাইকেলে আগারগাঁওয়ে যাচ্ছিলেন। যাত্রাবাড়ী থেকে হানিফ ফ্লাইওভারে উঠলে পেছন থেকে একটি বেপরোয়া বাস তাদের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তারা রাস্তায় পড়ে যান। পরে পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক রাজুকে মৃত ঘোষণা করেন। আর আরিফ ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। 

আরিফ জানান, আগারগাঁওয়ের তালতলা এলাকায় তার জুতার ব্যবসা রয়েছে। আরিফ নিজেই মোটরসাইকেল চালাচ্ছিলেন। যাত্রাবাড়ী থেকে হানিফ ফ্লাইওভারে উঠলে পেছন থেকে বেপরোয়া একটি বাস তাদের মোটরসাইকেলে ধাক্কা দেয়। তারা ছিটকে পড়লে বাসটি তাদের ওপর দিয়ে চলে যায়। এতে আরিফ গুরুতর আহত হন। আর রাজুর মৃত্যু হয়। 

যাত্রাবাড়ী থানার এসআই আক্তার হোসেন জানান, আল বারাকা পরিবহনের বাসটিকে আটক করা হয়েছে। তবে এর চালক পালিয়ে গেছে। নিহত রাজু পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার গুলসিখালি গ্রামের বজুল তালুকদারের ছেলে। আহত আরিফ লক্ষ্মীপুরের ভাগলপুর গ্রামের বাসিন্দা।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন