তল্লার মসজিদে বিস্ফোরণে ২৯ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট
jugantor
তল্লার মসজিদে বিস্ফোরণে ২৯ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

  নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি  

৩১ ডিসেম্বর ২০২০, ২০:১৭:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

তল্লার মসজিদে বিস্ফোরণে ২৯ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

প্রায় চার মাস তদন্ত শেষেনারায়ণগঞ্জে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা মামলায় ২৯ জনকে আসামি করে আদালতেচার্জশিট(অভিযোগপত্র) দিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি পুলিশ।

চার্জশিটে প্রধান আসামি করা হয়েছে মসজিদটির পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুল গফুর মিয়াকে (৬০)। তবে চার্জশিট থেকে সাময়িক বাদ দেয়া হয়েছে তিতাস গ্যাস বিভাগ থেকে গ্রেফতার হওয়া অভিযুক্ত ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে।

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের আদালতে এই চার্জশিট দাখিল করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডির নারায়ণগঞ্জ শাখার তদন্ত দল।

মামলায় প্রধান আসামি মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুল গফুর মিয়া ছাড়াও অন্যান্য আসামিরা হলেন- সামসুদ্দিন সরদার (৬০), শামসু সরদার (৫৭), শওকত আলী (৫০), অসিম উদ্দিন (৫০), জাহাঙ্গীর আলম (৪০), শফিকুল ইসলাম উজ্জ্বল (৪৫), নাঈম সরদার (২৭), তানভীর আহমেদ (৪৫), আল আমিন (৩৫), আলমগীর সিকদার (৩৫), মাওলানা আল আমিন (৪৫), সিরাজ হাওলাদার (৫৫), নেওয়াজ মিয়া (৫৫), নাজির হােসেন (৫৬), আবুল কাশেম (৪৫), আবদুল মালেক (৫৫), মনিরুল (৫৫), স্বপন মিয়া (৩৮), আসলাম আলী (৪২), আলী তাজম (মিল্কী) (৫৫), কাইয়ুম (৩৮), মামুন মিয়া (৩৮), দেলোয়ার হোসেন, বশির আহমেদ (হৃদয়) (২৮), রিমেল (৩২), আরিফুর রহমান (৩০), মোবারক হোসেন (৪০) ও রায়হানুল ইসলাম (৩৬)। তবে তাদের বিস্তারিত পরিচয় এখন পর্যন্ত প্রকাশ করা হয়নি।

সিআইডি পুলিশের নারায়ণগঞ্জ জেলার বিশেষ পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সরকারি বিধিনিষেধ থাকায় তিতাসের গ্রেফতারকৃত অভিযুক্ত আট কর্মকর্তা-কর্মচারীকে আপাতত চার্জশিটে লিপিবদ্ধ করা না হলেও তাদেরকে মামলায় রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট দফতরের অনুমোদন পেলেই তাদেরকে আসামি হিসেবে চার্জশিটে সম্পৃক্ত করা হবে।

গত ৪ সেপ্টেম্বর রাতে এশা’র নামাজ চলাকালে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার পশ্চিম তল্লা এলাকার বাইতুস সালাত জামে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। মসজিদের অভ্যন্তরে বিদ্যুতের অবৈধ সংযোগ থেকে স্পার্ক ও অবৈধ গ্যাস পাইপ লাইনের লিকেজ থেকে জমে থাকা গ্যাসের মিশ্রনে এই বিস্ফোরণ হয়েছে বলে জানিয়েছে তদন্ত সংস্থা সিআইডি। এই বিস্ফোরণে ৩৪ জনের মৃত্যুসহ আরও ১৫ জন দগ্ধ হন।

তল্লার মসজিদে বিস্ফোরণে ২৯ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

 নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি 
৩১ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তল্লার মসজিদে বিস্ফোরণে ২৯ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট
ফাইল ছবি

প্রায় চার মাস তদন্ত শেষে নারায়ণগঞ্জে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনায় পুলিশের দায়ের করা মামলায় ২৯ জনকে আসামি করে আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দিয়েছে তদন্তকারী সংস্থা সিআইডি পুলিশ।

চার্জশিটে প্রধান আসামি করা হয়েছে মসজিদটির পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুল গফুর মিয়াকে (৬০)। তবে চার্জশিট থেকে সাময়িক বাদ দেয়া হয়েছে তিতাস গ্যাস বিভাগ থেকে গ্রেফতার হওয়া অভিযুক্ত ৮ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে। 

বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জের আদালতে এই চার্জশিট দাখিল করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ-সিআইডির নারায়ণগঞ্জ শাখার তদন্ত দল।

মামলায় প্রধান আসামি মসজিদ পরিচালনা কমিটির সভাপতি আবদুল গফুর মিয়া ছাড়াও অন্যান্য আসামিরা হলেন- সামসুদ্দিন সরদার (৬০), শামসু সরদার (৫৭), শওকত আলী (৫০), অসিম উদ্দিন (৫০), জাহাঙ্গীর আলম (৪০), শফিকুল ইসলাম উজ্জ্বল (৪৫), নাঈম সরদার (২৭), তানভীর আহমেদ (৪৫), আল আমিন (৩৫), আলমগীর সিকদার (৩৫), মাওলানা আল আমিন (৪৫), সিরাজ হাওলাদার (৫৫), নেওয়াজ মিয়া (৫৫), নাজির হােসেন (৫৬), আবুল কাশেম (৪৫), আবদুল মালেক (৫৫), মনিরুল (৫৫), স্বপন মিয়া (৩৮), আসলাম আলী (৪২), আলী তাজম (মিল্কী) (৫৫), কাইয়ুম (৩৮), মামুন মিয়া (৩৮), দেলোয়ার হোসেন, বশির আহমেদ (হৃদয়) (২৮), রিমেল (৩২), আরিফুর রহমান (৩০), মোবারক হোসেন (৪০) ও রায়হানুল ইসলাম (৩৬)।  তবে তাদের বিস্তারিত পরিচয় এখন পর্যন্ত প্রকাশ করা হয়নি।

সিআইডি পুলিশের নারায়ণগঞ্জ জেলার বিশেষ পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সরকারি বিধিনিষেধ থাকায় তিতাসের গ্রেফতারকৃত অভিযুক্ত আট কর্মকর্তা-কর্মচারীকে আপাতত চার্জশিটে লিপিবদ্ধ করা না হলেও তাদেরকে মামলায় রাখা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট দফতরের অনুমোদন পেলেই তাদেরকে আসামি হিসেবে চার্জশিটে সম্পৃক্ত করা হবে।

গত ৪ সেপ্টেম্বর রাতে এশা’র নামাজ চলাকালে নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার পশ্চিম তল্লা এলাকার বাইতুস সালাত জামে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। মসজিদের অভ্যন্তরে বিদ্যুতের অবৈধ সংযোগ থেকে স্পার্ক ও অবৈধ গ্যাস পাইপ লাইনের লিকেজ থেকে জমে থাকা গ্যাসের মিশ্রনে এই বিস্ফোরণ হয়েছে বলে জানিয়েছে তদন্ত সংস্থা সিআইডি। এই বিস্ফোরণে ৩৪ জনের মৃত্যুসহ আরও ১৫ জন দগ্ধ হন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : নারায়ণগঞ্জে মসজিদে বিস্ফোরণ