সুপ্রিম কোর্টে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ছুরিসহ আটক ৫
jugantor
সুপ্রিম কোর্টে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ছুরিসহ আটক ৫

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২১:৩৮:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

সুপ্রিম কোর্টে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ছুরিসহ আটক ৫

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিনের অনুষ্ঠান থেকে পাঁচজনকে সাদা কাপড়, ছুরিসহ আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন নারীও রয়েছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় শাহবাগ থানা পুলিশের কাছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মমতাজ উদ্দিন ফকিরসহ আইনজীবীরা তাদের সোপর্দ করেন। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ। এ অনুষ্ঠান থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকের বিষয়টি যুগান্তরকে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।

আটকরা হলেন- ভোলা জেলার শশীভূষণ থানার লংলাপাতা গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে আসিফ ইকবাল (৩৫), একই থানার চরপাড়া এলাকার ফিরোজের ছেলে ফয়সল (১৮), মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার পূর্ববুড়লিয়া গ্রামের মৃত আলাবক্স শেখের ছেলে রমজান হোসেন (৩০), মানিকগঞ্জ জেলার ঘিওর উপজেলার ইমাম হোসেনের ছেলে শহীদুজ্জামান (৩৩) ও নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলার মহাজনপুর গ্রামের আবুল কাসেমের মেয়ে তানিয়া (৩০)।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক বলেন, ‘তারা ১০-১২ জন ছিল। এরমধ্যে এক মেয়েসহ পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। কথা বলতে বলতে বাকিরা সরে পড়েছে। আটকদের মধ্যে লিখন নামে একজন আমাদের কাছে দাবি করেছে, তারা সবাই স্টুডেন্ট। সুপ্রিম কোর্টে এসেছিল। এখানে অনুষ্ঠান দেখে ঢুকে পড়েছে।’

তিনি বলেন, ‘তবে তারা একেক সময় একেক রকম কথা বলছে। তারা তো দাওয়াত পেয়ে আসেনি। এজন্য তাদেরকে ধরে পুলিশে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ খতিয়ে দেখবে তারা কারা। একটা অনুষ্ঠানে তো যে কেউ ছুরি নিয়ে ঢুকে পড়তে পারে না। তাদের কাছে থাকা ব্যাগে সাদা থান কাপড় পাওয়া গেছে। তারা যদি স্টুডেন্টও হয়ে থাকেন, তবুও তদন্ত হওয়া উচিত।’

এর আগে শেখ হাসিনার জন্মদিনে কেক কাটার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধুকন্যার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে মোনাজাত করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মমতাজ উদ্দিন ফকির, সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুন নুর দুলাল, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক ও সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এসএম মনিরুজ্জামান মনির, সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার বশির আহিমেদ, সাবেক সম্পাদক মো. মোমতাজ উদ্দীন আহমেদ মেহেদী, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নেতা ও প্রসিকিউটর মো. মোখলেসুর রহমান বাদল প্রমুখ।

সুপ্রিম কোর্টে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ছুরিসহ আটক ৫

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সুপ্রিম কোর্টে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে ছুরিসহ আটক ৫
ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিনের অনুষ্ঠান থেকে পাঁচজনকে সাদা কাপড়, ছুরিসহ আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন নারীও রয়েছেন। 

বুধবার সন্ধ্যায় শাহবাগ থানা পুলিশের কাছে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট মমতাজ উদ্দিন ফকিরসহ আইনজীবীরা তাদের সোপর্দ করেন। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে কেক কাটা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ। এ অনুষ্ঠান থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকের বিষয়টি যুগান্তরকে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক। 

আটকরা হলেন- ভোলা জেলার শশীভূষণ থানার লংলাপাতা গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে আসিফ ইকবাল (৩৫), একই থানার চরপাড়া এলাকার ফিরোজের ছেলে ফয়সল (১৮), মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার পূর্ববুড়লিয়া গ্রামের মৃত আলাবক্স শেখের ছেলে রমজান হোসেন (৩০), মানিকগঞ্জ জেলার ঘিওর উপজেলার ইমাম হোসেনের ছেলে শহীদুজ্জামান (৩৩) ও নারায়ণগঞ্জ জেলার সোনারগাঁও উপজেলার মহাজনপুর গ্রামের আবুল কাসেমের মেয়ে তানিয়া (৩০)। 

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক বলেন, ‘তারা ১০-১২ জন ছিল। এরমধ্যে এক মেয়েসহ পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে। কথা বলতে বলতে বাকিরা সরে পড়েছে। আটকদের মধ্যে লিখন নামে একজন আমাদের কাছে দাবি করেছে, তারা সবাই স্টুডেন্ট। সুপ্রিম কোর্টে এসেছিল। এখানে অনুষ্ঠান দেখে ঢুকে পড়েছে।’

তিনি বলেন, ‘তবে তারা একেক সময় একেক রকম কথা বলছে। তারা তো দাওয়াত পেয়ে আসেনি। এজন্য তাদেরকে ধরে পুলিশে দেওয়া হয়েছে। পুলিশ খতিয়ে দেখবে তারা কারা। একটা অনুষ্ঠানে তো যে কেউ ছুরি নিয়ে ঢুকে পড়তে পারে না। তাদের কাছে থাকা ব্যাগে সাদা থান কাপড় পাওয়া গেছে। তারা যদি স্টুডেন্টও হয়ে থাকেন, তবুও তদন্ত হওয়া উচিত।’

এর আগে শেখ হাসিনার জন্মদিনে কেক কাটার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পরে বঙ্গবন্ধুকন্যার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে মোনাজাত করা হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মমতাজ উদ্দিন ফকির, সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুন নুর দুলাল, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক ও সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এসএম মনিরুজ্জামান মনির, সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার বশির আহিমেদ, সাবেক সম্পাদক মো. মোমতাজ উদ্দীন আহমেদ মেহেদী, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের নেতা ও প্রসিকিউটর মো. মোখলেসুর রহমান বাদল প্রমুখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর