সেই বজলু মেম্বার গ্রেফতার, ফারদিন হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে র‌্যাব
jugantor
সেই বজলু মেম্বার গ্রেফতার, ফারদিন হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে র‌্যাব

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৮ নভেম্বর ২০২২, ১৮:৪৬:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

সেই বজলু মেম্বার গ্রেফতার, ফারদিন হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে র‌্যাব

বুয়েটছাত্র ফারদিন নূর পরশ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আলোচিত নারায়ণগঞ্জের চনপাড়া এলাকার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ বজলুর রহমান ওরফে বজলু মেম্বারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে চনপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‍্যাব-১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবদুল্লাহ আল মোমেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, গত ২৮ সেপ্টেম্বর অভিযানের সময় র‍্যাবের ওপর হামলার অভিযোগে চনপাড়া এলাকার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ বজলুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ফারদিন হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে কিনা- এ প্রশ্নের জবাবে আবদুল্লাহ আল মোমেন বলেন, আমরা তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করব।

সূত্র জানায়, বজলুর রহমান চনপাড়া বস্তিতে ‘বজলু মেম্বার’ নামে আলোচিত। বজলুসহ তার চার ভাই পুরো বস্তিটি নিয়ন্ত্রণ করেন। তাদের সঙ্গে রয়েছে কিছু অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। তারা মাদক কারবার, মারধর ও হত্যাসহ নানা অপরাধে জড়িত।

বুয়েটছাত্র ফারদিন হত্যাকাণ্ডের পর ব্যাপকভাবে আলোচনায় আসেন এই বজলু মেম্বার।

সম্প্রতি মাদক ও হত্যাসহ ২৩ মামলার আসামি সিটি শাহীন (৩৫) র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। র‍্যাবের দাবি, সিটি শাহীনের নেতৃত্বে ১০-১২ জন অস্ত্রধারী র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের ওপর গুলি চালায়। ওই সময় আত্মরক্ষার্থে র‍্যাব পালটা গুলি ছুড়লে গুলিবিদ্ধ হন সিটি শাহীন।

পরে শাহীনকে রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তার।

ওই গোলাগুলির ঘটনায় র‍্যাবের পাঁচ সদস্য আহত হন। এরপর গত ১১ নভেম্বর র‌্যাব সদস্যদের অ্যাসল্ট ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে অজ্ঞাত ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন বাহিনীটির কর্মকর্তা মো. আশরাফুজ্জামান।

সেই বজলু মেম্বার গ্রেফতার, ফারদিন হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে র‌্যাব

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৮ নভেম্বর ২০২২, ০৬:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সেই বজলু মেম্বার গ্রেফতার, ফারদিন হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবে র‌্যাব
বজলুর রহমান ওরফে বজলু মেম্বার।

বুয়েটছাত্র ফারদিন নূর পরশ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আলোচিত নারায়ণগঞ্জের চনপাড়া এলাকার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ বজলুর রহমান ওরফে বজলু মেম্বারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে চনপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র‍্যাব-১ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবদুল্লাহ আল মোমেন এ তথ্য জানিয়েছেন।

র‌্যাব কর্মকর্তা জানান, গত ২৮ সেপ্টেম্বর অভিযানের সময় র‍্যাবের ওপর হামলার অভিযোগে চনপাড়া এলাকার কায়েতপাড়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান-১ বজলুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ফারদিন হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে কিনা- এ প্রশ্নের জবাবে আবদুল্লাহ আল মোমেন বলেন, আমরা তাকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করব।

সূত্র জানায়, বজলুর রহমান চনপাড়া বস্তিতে ‘বজলু মেম্বার’ নামে আলোচিত। বজলুসহ তার চার ভাই পুরো বস্তিটি নিয়ন্ত্রণ করেন। তাদের সঙ্গে রয়েছে কিছু অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। তারা মাদক কারবার, মারধর ও হত্যাসহ নানা অপরাধে জড়িত।

বুয়েটছাত্র ফারদিন হত্যাকাণ্ডের পর ব্যাপকভাবে আলোচনায় আসেন এই বজলু মেম্বার।

সম্প্রতি মাদক ও হত্যাসহ ২৩ মামলার আসামি সিটি শাহীন (৩৫) র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হন। র‍্যাবের দাবি, সিটি শাহীনের নেতৃত্বে ১০-১২ জন অস্ত্রধারী র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে তাদের ওপর গুলি চালায়। ওই সময় আত্মরক্ষার্থে র‍্যাব পালটা গুলি ছুড়লে গুলিবিদ্ধ হন সিটি শাহীন।

পরে শাহীনকে রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তার। 

ওই গোলাগুলির ঘটনায় র‍্যাবের পাঁচ সদস্য আহত হন। এরপর গত ১১ নভেম্বর র‌্যাব সদস্যদের অ্যাসল্ট ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগ এনে অজ্ঞাত ৩০-৩৫ জনকে আসামি করে রূপগঞ্জ থানায়  একটি মামলা করেন বাহিনীটির কর্মকর্তা মো. আশরাফুজ্জামান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন