আমরা বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড চাই না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
jugantor
আমরা বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড চাই না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২০ আগস্ট ২০২০, ১৮:৪৫:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।

দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হোক তা চান না বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। তিনি বলেছেন, ‘দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হোক সেটা আমরা চাই না। আমরা চাই বিচারের মাধ্যমে অপরাধীর শাস্তি হোক। তবে মাঝেমধ্যে এক-দুইটি দুর্ঘটনা ঘটে যায়। সরকার এ বিষয়ে সজাগ রয়েছে।’

বৃহস্পতিবার সিলেট সদরের বাইশটিলাস্থ জলাশয়ে পোনামাছ অবমুক্তকরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নর জবাবেপররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে যখনই অন্যায়-দুর্নীতি হয় তখনই সরকার শক্ত হাতে দমন করে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও দুর্নীতি হয়।

একই দিন পৃথক এক অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে পানি ও মানুষ দুটো সম্পদ। এই দুটি সম্পদকে যথাযথভাবে কাজে লাগাতে হবে। আমাদের বিপুল প্রবাসী দেশে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই দেশের মানুষের যাতে কর্মসংস্থানের অভাব না হয় সেভাবে দেশকে গড়ে তুলতে হবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘রাতারগুল অর্গানিক অ্যাগ্রো টেকনোলজি পার্ক অ্যান্ড রিসোর্ট’ এমন একটি কর্মসংস্থানের ক্ষেত্র। এখানে এলাকার বহু লোক কাজ করতে পারবে। এটি অত্যন্ত খুশির বিষয়।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সহধর্মিণী সেলিনা মোমেন, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) শেখ আজবাহার আলী, সিলেট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কাজী মহুয়া মমতাজ, সিলেট চেম্বারের সভাপতি এ টি এম শোয়েব প্রমুখ।

আমরা বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড চাই না: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২০ আগস্ট ২০২০, ০৬:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। ফাইল ছবি

দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হোক তা চান না বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন। তিনি বলেছেন, ‘দেশে বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হোক সেটা আমরা চাই না। আমরা চাই বিচারের মাধ্যমে অপরাধীর শাস্তি হোক। তবে মাঝেমধ্যে এক-দুইটি দুর্ঘটনা ঘটে যায়। সরকার এ বিষয়ে সজাগ রয়েছে।’

বৃহস্পতিবার সিলেট সদরের বাইশটিলাস্থ জলাশয়ে পোনামাছ অবমুক্তকরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন শেষে তিনি এসব কথা বলেন। 

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নর জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে যখনই অন্যায়-দুর্নীতি হয় তখনই সরকার শক্ত হাতে দমন করে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশেও দুর্নীতি হয়।

একই দিন পৃথক এক অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে পানি ও মানুষ দুটো সম্পদ। এই দুটি সম্পদকে যথাযথভাবে কাজে লাগাতে হবে। আমাদের বিপুল প্রবাসী দেশে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে। তাই দেশের মানুষের যাতে কর্মসংস্থানের অভাব না হয় সেভাবে দেশকে গড়ে তুলতে হবে।

মন্ত্রী আরো বলেন, ‘রাতারগুল অর্গানিক অ্যাগ্রো টেকনোলজি পার্ক অ্যান্ড রিসোর্ট’ এমন একটি কর্মসংস্থানের ক্ষেত্র। এখানে এলাকার বহু লোক কাজ করতে পারবে। এটি অত্যন্ত খুশির বিষয়।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সহধর্মিণী সেলিনা মোমেন, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের উপকমিশনার (উত্তর) শেখ আজবাহার আলী, সিলেট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কাজী মহুয়া মমতাজ, সিলেট চেম্বারের সভাপতি এ টি এম শোয়েব প্রমুখ।