‘রাজনৈতিক বেড়াজালে হেফাজত নানা কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ে’
jugantor
‘রাজনৈতিক বেড়াজালে হেফাজত নানা কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ে’

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৮ এপ্রিল ২০২১, ১৬:২০:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজনৈতিক বেড়াজালে পড়ে তারা রাজনৈতিক অভিলাষ থেকে নানা কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ে বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।মন্ত্রী বলেন, গঠনতন্ত্র অনুযায়ী হেফাজতে ইসলাম একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। কিন্তু হেফাজতের নেতাদের রাজনৈতিক অভিলাষ ছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেটা নস্যাৎ করে দিয়েছে।

বুধবার মন্ত্রী তার ধানমন্ডির বাসভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে উদ্বৃত করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২০১৩ সালে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে যে ঘটনার জন্ম দিয়েছিল ওই ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটানো যায় কি না, সেই উদ্দেশ্যে তারা সম্প্রতি (হেফাজত) সহিংসতা চালিয়েছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় হেফাজতের সেই উদ্দেশ্য নস্যাৎ হয়ে যায়।

সরকারি বিভিন্ন স্থাপনায় হেফাজতের হামলা, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এগুলোর উদ্দেশ্য ছিল দেশে অশান্তি সৃষ্টি করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করা।

হেফাজত নেতাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার অগ্রগতি সম্পর্কে তিনি বলেন, হেফাজতের ফিন্যান্স (অর্থায়ন) যারা করেছে তাদের বিষয়ে গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করছে। কিছু কিছু উপাদান পাচ্ছি, তবে এখনই অ্যানাউন্স (ঘোষণা) করতে চাই না। তদন্ত শেষে এ বিষয়ে সঠিক তথ্য দেওয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, মাওলানা বাবুনগরীর বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে মামলা হয়েছিল। সে সময় তিনি আটকও হয়েছিলেন। পরে তিনি জামিনে মুক্ত হন।তার বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত যেগুলো মামলা হয়েছে, সবগুলো আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইনের ঊর্ধ্বে কেউ নয়। আইন সবার জন্য সমান বলেও উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

‘রাজনৈতিক বেড়াজালে হেফাজত নানা কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ে’

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৮ এপ্রিল ২০২১, ০৪:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজনৈতিক বেড়াজালে পড়ে তারা রাজনৈতিক অভিলাষ থেকে নানা কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়ে বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। মন্ত্রী বলেন, গঠনতন্ত্র অনুযায়ী হেফাজতে ইসলাম একটি অরাজনৈতিক সংগঠন। কিন্তু হেফাজতের নেতাদের রাজনৈতিক অভিলাষ ছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সেটা নস্যাৎ করে দিয়েছে।

বুধবার মন্ত্রী তার ধানমন্ডির বাসভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে উদ্বৃত করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২০১৩ সালে মতিঝিলের শাপলা চত্বরে যে ঘটনার জন্ম দিয়েছিল ওই ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটানো যায় কি না, সেই উদ্দেশ্যে তারা সম্প্রতি (হেফাজত) সহিংসতা চালিয়েছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় হেফাজতের সেই উদ্দেশ্য নস্যাৎ হয়ে যায়।

সরকারি বিভিন্ন স্থাপনায় হেফাজতের হামলা, ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, এগুলোর উদ্দেশ্য ছিল দেশে অশান্তি সৃষ্টি করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করা।

হেফাজত নেতাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার অগ্রগতি সম্পর্কে তিনি বলেন, হেফাজতের ফিন্যান্স (অর্থায়ন) যারা করেছে তাদের বিষয়ে গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করছে। কিছু কিছু উপাদান পাচ্ছি, তবে এখনই অ্যানাউন্স (ঘোষণা) করতে চাই না। তদন্ত শেষে এ বিষয়ে সঠিক তথ্য দেওয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, মাওলানা বাবুনগরীর বিরুদ্ধে ২০১৩ সালে মামলা হয়েছিল। সে সময় তিনি আটকও হয়েছিলেন। পরে তিনি জামিনে মুক্ত হন।তার বিরুদ্ধে এখন পর্যন্ত যেগুলো মামলা হয়েছে, সবগুলো আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আইনের ঊর্ধ্বে কেউ নয়। আইন সবার জন্য সমান বলেও উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : হেফাজতে অস্থিরতা

আরও খবর