যুক্তরাজ্যের প্রতিবেদনে খালেদা জিয়াকে নিয়ে বানোয়াট তথ্য আপত্তিকর: পররাষ্ট্রমন্ত্রী
jugantor
যুক্তরাজ্যের প্রতিবেদনে খালেদা জিয়াকে নিয়ে বানোয়াট তথ্য আপত্তিকর: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১২ জুলাই ২০২১, ১৯:৩৭:৩১  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাজ্যের মানবাধিকার প্রতিবেদনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নিয়ে দেওয়া বানোয়াট তথ্য আপত্তিকর বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।

সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের তিনি এ মন্তব্য করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্যের মানবাধিকার প্রতিবেদনে যে তথ্য দেওয়া হয়েছে, সেটা যাচাই-বাছাই না করে দেওয়া হয়েছে। এই বানোয়াট তথ্য আপত্তিকর।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র, কমনওয়েলথ উন্নয়ন দপ্তর প্রকাশিত ‘মানবাধিকার ও গণতন্ত্র প্রতিবেদন ২০২০’ এর বাংলাদেশ অধ্যায়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বর্তমান পরিস্থিতির প্রসঙ্গে ‘গৃহবন্দি’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে। এ নিয়ে আপত্তি তুলেছে বাংলাদেশ। রোববার ভারপ্রাপ্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার জাভেদ প্যাটেলকে তলবও করে সরকার। ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনারকে তলব করে বলা হয়, প্রতিবেদনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বর্তমান পরিস্থিতির প্রসঙ্গে ‘গৃহবন্দি’ শব্দটি ব্যবহার করা চরম বিভ্রান্তিকর।

যুক্তরাজ্যের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনারকে রোববার তলব করা হয়েছিল। তিনি কী বলেছেন জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি স্বীকার করেছেন তাদের রিপোর্ট আরও তথ্যনির্ভর হওয়া উচিত ছিল। তিনি আমাদের উদ্বেগ তার সদর দপ্তরে জানাবেন বলে জানিয়েছেন।

যুক্তরাজ্যের প্রতিবেদনে খালেদা জিয়াকে নিয়ে বানোয়াট তথ্য আপত্তিকর: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১২ জুলাই ২০২১, ০৭:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাজ্যের মানবাধিকার প্রতিবেদনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে নিয়ে দেওয়া বানোয়াট তথ্য আপত্তিকর বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।

সোমবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের তিনি এ মন্তব্য করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাজ্যের মানবাধিকার প্রতিবেদনে যে তথ্য দেওয়া হয়েছে, সেটা যাচাই-বাছাই না করে দেওয়া হয়েছে। এই বানোয়াট তথ্য আপত্তিকর।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র, কমনওয়েলথ উন্নয়ন দপ্তর প্রকাশিত ‘মানবাধিকার ও গণতন্ত্র প্রতিবেদন ২০২০’ এর বাংলাদেশ অধ্যায়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বর্তমান পরিস্থিতির প্রসঙ্গে ‘গৃহবন্দি’ শব্দটি ব্যবহার করা হয়েছে। এ নিয়ে আপত্তি তুলেছে বাংলাদেশ। রোববার ভারপ্রাপ্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার জাভেদ প্যাটেলকে তলবও করে সরকার। ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনারকে তলব করে বলা হয়, প্রতিবেদনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বর্তমান পরিস্থিতির প্রসঙ্গে ‘গৃহবন্দি’ শব্দটি ব্যবহার করা চরম বিভ্রান্তিকর।

যুক্তরাজ্যের ভারপ্রাপ্ত হাইকমিশনারকে রোববার তলব করা হয়েছিল। তিনি কী বলেছেন জানতে চাইলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি স্বীকার করেছেন তাদের রিপোর্ট আরও তথ্যনির্ভর হওয়া উচিত ছিল। তিনি আমাদের উদ্বেগ তার সদর দপ্তরে জানাবেন বলে জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন