দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের আসতে দেবে বাংলাদেশ
jugantor
দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের আসতে দেবে বাংলাদেশ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৯ জানুয়ারি ২০২২, ২৩:০৬:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের আসতে দেবে বাংলাদেশ- বিদায়ী মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারকে এ কথা জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।

বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে জানানো হয়, রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন ও চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের অবাধ ও মুক্ত প্রকৃতির কথা তুলে ধরেন। নির্বাচনগুলোতে প্রচুর উপস্থিতির কথা মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় তিনি মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে বলেন, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য বাংলাদেশের দরজা খোলা থাকবে।’

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৈঠকে বাংলাদেশের সঙ্গে মার্কিন সম্পর্ক বাড়ানো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ ছাড়া প্রশিক্ষণ ব্যবস্থাসহ দুই দেশের মানবাধিকার ক্ষেত্রে সম্পর্ক বাড়ানো নিয়েও আলোচনা হয়।

এতে আরও জানানো হয়, বৈঠকে বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে বাঁধ সংস্কার ও নির্মাণে মার্কিন সহযোগিতার জন্য রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বাংলাদেশের অগ্রাধিকার খাতগুলোর বড় অবকাঠামোর প্রকল্পগুলোতে মার্কিন অংশগ্রহণের জন্য আহ্বান জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই সঙ্গে রোহিঙ্গা নিয়ে মার্কিন সহায়তা অব্যাহত রাখারও আহ্বান জানান তিনি। এ সময় রাষ্ট্রদূত জানান- রোহিঙ্গা ইস্যুতে মার্কিন সহায়তা শুধু মানবিক ক্ষেত্রেই নয়, রাজনৈতিক দিক থেকেও মার্কিন সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। এ ছাড়া মানবাধিকার ইস্যুতে আলোচনার মাধ্যমে বাংলাদেশের সঙ্গে যোগাযোগ বজায় রাখবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের আগে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন রাষ্ট্রদূত।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের আসতে দেবে বাংলাদেশ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৯ জানুয়ারি ২০২২, ১১:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের আসতে দেবে বাংলাদেশ- বিদায়ী মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারকে এ কথা জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।

বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে জানানো হয়, রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচন ও চলমান ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের অবাধ ও মুক্ত প্রকৃতির কথা তুলে ধরেন। নির্বাচনগুলোতে প্রচুর উপস্থিতির কথা মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ সময় তিনি মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে বলেন, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য বাংলাদেশের দরজা খোলা থাকবে।’

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বৈঠকে বাংলাদেশের সঙ্গে মার্কিন সম্পর্ক বাড়ানো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ ছাড়া প্রশিক্ষণ ব্যবস্থাসহ দুই দেশের মানবাধিকার ক্ষেত্রে সম্পর্ক বাড়ানো নিয়েও আলোচনা হয়। 

এতে আরও জানানো হয়, বৈঠকে বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে বাঁধ সংস্কার ও নির্মাণে মার্কিন সহযোগিতার জন্য রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বাংলাদেশের অগ্রাধিকার খাতগুলোর বড় অবকাঠামোর প্রকল্পগুলোতে মার্কিন অংশগ্রহণের জন্য আহ্বান জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সেই সঙ্গে রোহিঙ্গা নিয়ে মার্কিন সহায়তা অব্যাহত রাখারও আহ্বান জানান তিনি। এ সময় রাষ্ট্রদূত জানান- রোহিঙ্গা ইস্যুতে মার্কিন সহায়তা শুধু মানবিক ক্ষেত্রেই নয়, রাজনৈতিক দিক থেকেও মার্কিন সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। এ ছাড়া মানবাধিকার ইস্যুতে আলোচনার মাধ্যমে বাংলাদেশের সঙ্গে যোগাযোগ বজায় রাখবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের আগে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করেন রাষ্ট্রদূত।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর