বালিশকাণ্ডের আসামি আসিফের জামিন স্থগিত
jugantor
বালিশকাণ্ডের আসামি আসিফের জামিন স্থগিত

  যুগান্তর রিপোর্ট  

০১ জুলাই ২০২০, ১৭:১৭:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

রূপপুর পারমাণবিক বিদুৎ প্রকল্পের একটি ভবনের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাবপত্র ও অন্য সামগ্রী ক্রয় সংক্রান্ত দুর্নীতির মামলায় এক আসামিকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত।

দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল চেম্বার আদালতের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান এ আদেশ দেন।

ওই আসামি হলেন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মজিদ সন্স কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসিফ হোসেন।

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। আসামিপক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ফিদা এম কামাল। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

দুদকের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান বলেন, আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল চেম্বার আদালত আসামি আসিফ হোসেনের জামিন ১৬ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন।
পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদুৎ প্রকল্পের একটি ভবনের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাব ও অন্য সামগ্রী ক্রয় সংক্রান্ত দুর্নীতির এক মামলায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মজিদ সন্স কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসিফ হোসেনকে শর্তসাপেক্ষে ২৯ জুন জামিন দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।দু’টি মামলায় হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেছিলেন আসিফ হোসেন। এর মধ্যে একটিতে বিদেশ না যাওয়া, পাসপোর্ট জমা রাখা ও তদন্তে ব্যাঘাত না ঘটানোর শর্তে নিয়মিত কোর্ট খোলার এক সপ্তাহ পর পর্যন্ত তাকে জামিন দেন ভার্চুয়াল আদালত। অপর মামলাটির শুনানি আগামী রোববার।

গত বছরের ১২ ডিসেম্বর পাবনায় দুদক এ দুই মামলা করে। তারপর থেকে কারাগারেই আছেন আসিফ হোসেন। দু’টি মামলায় ৭ কোটি ৪৯ লাখ ৪২ হাজার ও ৭ কোটি ৪৮ লাখ টাকার দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়। এ ঘটনা ‘বালিশকাণ্ড’ নামে পরিচিতি পেয়েছে।

বালিশকাণ্ডের আসামি আসিফের জামিন স্থগিত

 যুগান্তর রিপোর্ট 
০১ জুলাই ২০২০, ০৫:১৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রূপপুর পারমাণবিক বিদুৎ প্রকল্পের একটি ভবনের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাবপত্র ও অন্য সামগ্রী ক্রয় সংক্রান্ত দুর্নীতির মামলায় এক আসামিকে হাইকোর্টের দেয়া জামিন স্থগিত করেছেন চেম্বার আদালত। 

দুদকের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল চেম্বার আদালতের বিচারপতি মো. নূরুজ্জামান এ আদেশ দেন।

ওই আসামি হলেন ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মজিদ সন্স কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসিফ হোসেন।  

রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ। আসামিপক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী ফিদা এম কামাল। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। 

দুদকের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান বলেন, আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল চেম্বার আদালত আসামি আসিফ হোসেনের জামিন ১৬ সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেছেন।
পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদুৎ প্রকল্পের একটি ভবনের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাব ও অন্য সামগ্রী ক্রয় সংক্রান্ত দুর্নীতির এক মামলায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মজিদ সন্স কনস্ট্রাকশন লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আসিফ হোসেনকে শর্তসাপেক্ষে ২৯ জুন জামিন দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।দু’টি মামলায় হাইকোর্টে জামিন আবেদন করেছিলেন আসিফ হোসেন। এর মধ্যে একটিতে বিদেশ না যাওয়া, পাসপোর্ট জমা রাখা ও তদন্তে ব্যাঘাত না ঘটানোর শর্তে নিয়মিত কোর্ট খোলার এক সপ্তাহ পর পর্যন্ত তাকে জামিন দেন ভার্চুয়াল আদালত। অপর মামলাটির শুনানি আগামী রোববার। 

গত বছরের ১২ ডিসেম্বর পাবনায় দুদক এ দুই মামলা করে। তারপর থেকে কারাগারেই আছেন আসিফ হোসেন। দু’টি মামলায় ৭ কোটি ৪৯ লাখ ৪২ হাজার ও ৭ কোটি ৪৮ লাখ টাকার দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়।  এ ঘটনা ‘বালিশকাণ্ড’ নামে পরিচিতি পেয়েছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন