স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা: মিজানের বাবা-মা রিমান্ডে
jugantor
স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা: মিজানের বাবা-মা রিমান্ডে

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:১০:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

সাভারে স্কুলছাত্রী নীলা রায়কে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় প্রধান আসামি মিজানুর রহমান চৌধুরীর (২০) বাবা ও মাকে দুই দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন দিয়েছেন ঢাকার একটি আদালত।

শুক্রবার ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাইরুজ তাসনীম এই রিমান্ড আদেশ দেন।

গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) আনোয়ারুল কবির বাবুল।

রিমান্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- আবদুর রহমান (৬০) ও তার স্ত্রী নাজমুন নাহার সিদ্দিকী (৫০)।

এর আগে বিকালে আসামিদের আদালতে হাজির করে তাদের সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সাভার থানার এসআই নির্মল চন্দ্র ঘোষ।

অপরদিকে আসামিদের পক্ষে তাদের আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক জামিন আবেদন খারিজ করে প্রত্যেকের দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আবদুর রহমান ও তার স্ত্রী সাভারের ব্যাংক কলোনি এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। নীলা হত্যাকাণ্ডের পরই প্রধান আসামি তাদের ছেলে মিজানুর রহমানসহ আত্মগোপনে চলে যান তারা। পরে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় গেল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার চারিগ্রাম থেকে আবদুর রহমান ও তার স্ত্রী নাজমুন নাহার সিদ্দিকীকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান র‌্যাব-৪ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জমির উদ্দিন আহমেদ। তিনি আরও জানান, পলাতক প্রধান আসামি ও কিশোর গ্যাং লিডার মিজানুর রহমানকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এর আগে গত বুধবার মানিকগঞ্জের আরিচা থেকে মিজানুর রহমানের সহযোগী সাভার পৌরসভার পালপাড়া এলাকার বাসিন্দা সেলিম পালোয়ান নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে হাসপাতালে যাওয়ার সময় ভাইয়ের সামনে থেকে নীলা রায়কে (১৪) তুলে নিয়ে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে মিজানুর রহমান। নীলা স্থানীয় অ্যাসেড স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

স্কুলছাত্রী নীলা হত্যা: মিজানের বাবা-মা রিমান্ডে

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সাভারে স্কুলছাত্রী নীলা রায়কে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় প্রধান আসামি মিজানুর রহমান চৌধুরীর (২০) বাবা ও মাকে দুই দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন দিয়েছেন ঢাকার একটি আদালত।

শুক্রবার ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফাইরুজ তাসনীম এই রিমান্ড আদেশ দেন।

গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) আনোয়ারুল কবির বাবুল।

রিমান্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- আবদুর রহমান (৬০) ও তার স্ত্রী নাজমুন নাহার সিদ্দিকী (৫০)।

এর আগে বিকালে আসামিদের আদালতে হাজির করে তাদের সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সাভার থানার এসআই নির্মল চন্দ্র ঘোষ।

অপরদিকে আসামিদের পক্ষে তাদের আইনজীবী রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিন আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক জামিন আবেদন খারিজ করে প্রত্যেকের দুই দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আবদুর রহমান ও তার স্ত্রী সাভারের ব্যাংক কলোনি এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন। নীলা হত্যাকাণ্ডের পরই প্রধান আসামি তাদের ছেলে মিজানুর রহমানসহ আত্মগোপনে চলে যান তারা। পরে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় গেল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার চারিগ্রাম থেকে আবদুর রহমান ও তার স্ত্রী নাজমুন নাহার সিদ্দিকীকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানান র‌্যাব-৪ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জমির উদ্দিন আহমেদ। তিনি আরও জানান, পলাতক প্রধান আসামি ও কিশোর গ্যাং লিডার মিজানুর রহমানকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এর আগে গত বুধবার মানিকগঞ্জের আরিচা থেকে মিজানুর রহমানের সহযোগী সাভার পৌরসভার পালপাড়া এলাকার বাসিন্দা সেলিম পালোয়ান নামের একজনকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে হাসপাতালে যাওয়ার সময় ভাইয়ের সামনে থেকে নীলা রায়কে (১৪) তুলে নিয়ে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে মিজানুর রহমান। নীলা স্থানীয় অ্যাসেড স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।