শিশুকে ধর্ষণ: প্রতিবেদনে গরমিল পাওয়ায় সিভিল সার্জন-এসপিসহ ১৩ জনকে তলব
jugantor
শিশুকে ধর্ষণ: প্রতিবেদনে গরমিল পাওয়ায় সিভিল সার্জন-এসপিসহ ১৩ জনকে তলব

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৭ জানুয়ারি ২০২১, ২১:২৫:৪৭  |  অনলাইন সংস্করণ

সাত বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় তিন ধরনের প্রতিবেদনে গরমিল পাওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার সিভিল সার্জনসহ স্বাস্থ্য বিভাগের ৯ কর্মকর্তা এবং পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট ২ পুলিশ কর্মকর্তাকে তলব করেছেন হাইকোর্ট।

আসামির জামিনের শুনানি নিয়ে রোববার বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও কেএম জাহিদ সারওয়ারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

একইসঙ্গে ওই ঘটনা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবের নেতৃত্বে গঠিত কমিটি ও পুলিশের মহাপরিদর্শককে (আইজিপি) তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। শিশু ধর্ষণের ঘটনায় প্রতিবেদনের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি তাদেরকে হাইকোর্টে সশরীরে উপস্থিত হওয়ার জন্য বলেছেন আদালত। ওই দিন এ বিষয়ে শুনানির জন্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম জানান, গত ৯ সেপ্টেম্বর ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার নাসিরনগর উপজেলার সাত বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়। এ ঘটনায় মেরাজ মিয়া (১০) নামে এক শিশুর বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণের মামলা হয়। এ মামলায় মেরাজ মিয়া আগাম জামিনের জন্য হাইকোর্টে আসে। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, মামলায় পুলিশ মেরাজের বয়স ১৫ বছর উল্লে­খ করায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের তলব করেন আদালত।

শিশুকে ধর্ষণ: প্রতিবেদনে গরমিল পাওয়ায় সিভিল সার্জন-এসপিসহ ১৩ জনকে তলব

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সাত বছর বয়সী এক শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় তিন ধরনের প্রতিবেদনে গরমিল পাওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার সিভিল সার্জনসহ স্বাস্থ্য বিভাগের ৯ কর্মকর্তা এবং পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট ২ পুলিশ কর্মকর্তাকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। 

আসামির জামিনের শুনানি নিয়ে রোববার বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও কেএম জাহিদ সারওয়ারের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

একইসঙ্গে ওই ঘটনা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবের নেতৃত্বে গঠিত কমিটি ও পুলিশের মহাপরিদর্শককে (আইজিপি) তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। শিশু ধর্ষণের ঘটনায় প্রতিবেদনের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি তাদেরকে হাইকোর্টে সশরীরে উপস্থিত হওয়ার জন্য বলেছেন আদালত। ওই দিন এ বিষয়ে শুনানির জন্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মনিরুল ইসলাম জানান, গত ৯ সেপ্টেম্বর ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার নাসিরনগর উপজেলার সাত বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়। এ ঘটনায় মেরাজ মিয়া (১০) নামে এক শিশুর বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণের মামলা হয়। এ মামলায় মেরাজ মিয়া আগাম জামিনের জন্য হাইকোর্টে আসে। ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, মামলায় পুলিশ মেরাজের বয়স ১৫ বছর উল্লে­খ করায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের তলব করেন আদালত। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন