রাজধানীতে বাসে নারীকে যৌন নিপীড়ন, যুবক কারাগারে
jugantor
রাজধানীতে বাসে নারীকে যৌন নিপীড়ন, যুবক কারাগারে

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৬ জানুয়ারি ২০২২, ২৩:০৬:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীতে বাসে নারীকে যৌন নিপীড়ন, যুবক কারাগারে

রাজধানীতে বাসে এক নারী যাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় রমজান আলী (২৯) নামে এক যুবককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শাহবাগ থানায় দায়ের হওয়া মামলায় গত ৪ জানুয়ারি ওই যুবককে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত।

বৃহস্পতিবার রমজান আলীর আইনজীবী জামিন আবেদন করলে আদালত- তা নামঞ্জুর করেন।

মামলার এজাহারের তথ্য থেকে জানা গেছে, গত ৩ জানুয়ারি সকালে রাজধানীর সদরঘাট থেকে ফার্মগেটের উদ্দেশ্যে ওই নারী একটি বাসে ওঠেন। ওই নারীর সঙ্গে তার কলেজপড়ুয়া মেয়ে ছিল। মেয়েকে কোচিং করানোর উদ্দেশ্যে ফার্মগেটে আসছিলেন তিনি। বাসটি জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পৌঁছলে আসামি রমজান আলী ওই নারীর গা ঘেঁষে দাঁড়ান এবং যৌন নিপীড়ন করেন। তখন ওই নারী নিষেধ করলেও রমজান আলী তাতে কর্ণপাত করেননি। বাসটি যখন মৎস্য ভবন মোড়ে পৌঁছায়, তখনও যৌন নিপীড়ন করে যাচ্ছিলেন রমজান। উপায় না পেয়ে ভুক্তভোগী নারী চিৎকার করেন। তখন রমজানকে বাসের যাত্রীরা মারধর করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন।

পরে ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় রমজানের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলা করেন। যৌন নিপীড়নের ওই ঘটনায় প্রমাণ হিসেবে কিছু আলামত জব্দ করেছে পুলিশ।

বাসে নারীকে যৌন নিপীড়ন করার ঘটনাটি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করা হচ্ছে জানিয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও শাহবাগ থানার এসআই মো. জব্বার গণমাধ্যমকে বলেন, আসামি রমজান আলী বিদেশে ছিলেন। সম্প্রতি দেশে ফিরে তিনি একটি দোকানে বিক্রয়কর্মী হিসেবে কাজ করছিলেন।

রাজধানীতে বাসে নারীকে যৌন নিপীড়ন, যুবক কারাগারে

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৬ জানুয়ারি ২০২২, ১১:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
রাজধানীতে বাসে নারীকে যৌন নিপীড়ন, যুবক কারাগারে
প্রতীকী ছবি

রাজধানীতে বাসে এক নারী যাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় রমজান আলী (২৯) নামে এক যুবককে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

শাহবাগ থানায় দায়ের হওয়া মামলায় গত ৪ জানুয়ারি ওই যুবককে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত। 

বৃহস্পতিবার রমজান আলীর আইনজীবী জামিন আবেদন করলে আদালত- তা নামঞ্জুর করেন।

মামলার এজাহারের তথ্য থেকে জানা গেছে, গত ৩ জানুয়ারি সকালে রাজধানীর সদরঘাট থেকে ফার্মগেটের উদ্দেশ্যে ওই নারী একটি বাসে ওঠেন। ওই নারীর সঙ্গে তার কলেজপড়ুয়া মেয়ে ছিল। মেয়েকে কোচিং করানোর উদ্দেশ্যে ফার্মগেটে আসছিলেন তিনি। বাসটি জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পৌঁছলে আসামি রমজান আলী ওই নারীর গা ঘেঁষে দাঁড়ান এবং যৌন নিপীড়ন করেন। তখন ওই নারী নিষেধ করলেও রমজান আলী তাতে কর্ণপাত করেননি। বাসটি যখন মৎস্য ভবন মোড়ে পৌঁছায়, তখনও যৌন নিপীড়ন করে যাচ্ছিলেন রমজান। উপায় না পেয়ে ভুক্তভোগী নারী চিৎকার করেন। তখন রমজানকে বাসের যাত্রীরা মারধর করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেন। 

পরে ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় রমজানের বিরুদ্ধে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মামলা করেন। যৌন নিপীড়নের ওই ঘটনায় প্রমাণ হিসেবে কিছু আলামত জব্দ করেছে পুলিশ।

বাসে নারীকে যৌন নিপীড়ন করার ঘটনাটি গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করা হচ্ছে জানিয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও শাহবাগ থানার এসআই মো. জব্বার গণমাধ্যমকে বলেন, আসামি রমজান আলী বিদেশে ছিলেন। সম্প্রতি দেশে ফিরে তিনি একটি দোকানে বিক্রয়কর্মী হিসেবে কাজ করছিলেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর