জিকে শামীমের মা আয়েশা কারাগারে
jugantor
জিকে শামীমের মা আয়েশা কারাগারে

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:৪৮:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

জিকে শামীমের মা আয়েশা কারাগারে

বিতর্কিত ঠিকাদার এসএম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জিকে শামীমের মা আয়েশা আক্তারকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কেএম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন।

এদিন আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন আয়েশা আক্তার। আদালতে আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান শুনানি করেন।

অপরদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে আসামির জামিনের বিরোধিতা করেন আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামির জামিন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর ওই আদেশ দেন। দুদকের কোর্ট পরিদর্শক মো. আমিনুল ইসলাম যুগান্তরকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

আদালত সূত্র জানায়, ২০২১ সালের ১৬ নভেম্বর জিকে শামীমের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের মামলায় জিকে শামীম ও তার মায়ের বিরুদ্ধে দুদকের দেওয়া চার্জশিট (অভিযোগপত্র) আমলে নেন আদালত। ওই দিন আয়েশা আক্তার অনুপস্থিত থাকায় আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।

২০১৯ সালের ২১ অক্টোবর জিকে শামীম ও তার মায়ের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের মামলাটি করা হয়। দুদকের উপ-পরিচালক মো. সালাহউদ্দিন বাদী হয়ে কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে (ঢাকা-১) মামলাটি করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, জিকে শামীম অবৈধ উপায়ে মোট ২৯৭ কোটি ৮ লাখ ৯৯ হাজার ৫৫১ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভুত সম্পদ অর্জন করেছেন। এরমধ্যে ১৬৫ কোটি ২৭ লাখ ৬৫ হাজার টাকা তার মায়ের নামে অর্জন করেছেন এবং তার মা ওই অর্থ নিজ নামে দখলে রেখে অপরাধ সংঘটনে প্রত্যক্ষভাবে সহায়তা করেছেন। তদন্ত শেষে ২০২১ সালের শুরুতে দিকে জিকে শামীম ও তার মায়ের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেয় দুদক।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ২০ সেপ্টেম্বর গুলশানের নিজ কার্যালয়ে সাত বডিগার্ডসহ গ্রেফতার হন জিকে শামীম। পরে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও অর্থপাচার আইনে তিনটি মামলা করা হয়। মামলাগুলোর মধ্যে অস্ত্র ও মাদক আইনের মামলায় আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করা হয়েছে। মামলাগুলো বিচারাধীন রয়েছে।

জিকে শামীমের মা আয়েশা কারাগারে

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৫ জানুয়ারি ২০২২, ০৫:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জিকে শামীমের মা আয়েশা কারাগারে
পুলিশ বেষ্টনীতে জিকে শামীম। ফাইল ছবি

বিতর্কিত ঠিকাদার এসএম গোলাম কিবরিয়া শামীম ওরফে জিকে শামীমের মা আয়েশা আক্তারকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। 

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কেএম ইমরুল কায়েশ এ আদেশ দেন।

এদিন আইনজীবীর মাধ্যমে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন আয়েশা আক্তার। আদালতে আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান শুনানি করেন। 

অপরদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে আসামির জামিনের বিরোধিতা করেন আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামির জামিন নাকচ করে কারাগারে পাঠানোর ওই আদেশ দেন। দুদকের কোর্ট পরিদর্শক মো. আমিনুল ইসলাম যুগান্তরকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।

আদালত সূত্র জানায়, ২০২১ সালের ১৬ নভেম্বর জিকে শামীমের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের মামলায় জিকে শামীম ও তার মায়ের বিরুদ্ধে দুদকের দেওয়া চার্জশিট (অভিযোগপত্র) আমলে নেন আদালত। ওই দিন আয়েশা আক্তার অনুপস্থিত থাকায় আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন। 

২০১৯ সালের ২১ অক্টোবর জিকে শামীম ও তার মায়ের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদের মামলাটি করা হয়। দুদকের উপ-পরিচালক মো. সালাহউদ্দিন বাদী হয়ে কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে (ঢাকা-১) মামলাটি করেন। 

মামলার অভিযোগে বলা হয়, জিকে শামীম অবৈধ উপায়ে মোট ২৯৭ কোটি ৮ লাখ ৯৯ হাজার ৫৫১ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভুত সম্পদ অর্জন করেছেন। এরমধ্যে ১৬৫ কোটি ২৭ লাখ ৬৫ হাজার টাকা তার মায়ের নামে অর্জন করেছেন এবং তার মা ওই অর্থ নিজ নামে দখলে রেখে অপরাধ সংঘটনে প্রত্যক্ষভাবে সহায়তা করেছেন। তদন্ত শেষে ২০২১ সালের শুরুতে দিকে জিকে শামীম ও তার মায়ের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দেয় দুদক।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ২০ সেপ্টেম্বর গুলশানের নিজ কার্যালয়ে সাত বডিগার্ডসহ গ্রেফতার হন জিকে শামীম। পরে তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক ও অর্থপাচার আইনে তিনটি মামলা করা হয়। মামলাগুলোর মধ্যে অস্ত্র ও মাদক আইনের মামলায় আদালতে চার্জশিট (অভিযোগপত্র) দাখিল করা হয়েছে। মামলাগুলো বিচারাধীন রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ক্যাসিনোয় অভিযান