ট্রেনটাকে কি আপনারা গ্রাস করতে চাচ্ছেন?
jugantor
ট্রেনটাকে কি আপনারা গ্রাস করতে চাচ্ছেন?

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২১ জুলাই ২০২২, ২২:৫৭:১৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনির আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে রেলওয়ের অব্যবস্থাপনা নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। এ নিয়ে শুনানিতে ট্রেনের ছাদে যাত্রী বহন বন্ধ করতে বলেছেন আদালত। একইসঙ্গে রেলের টিকিট কালোবাজারি বন্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তা ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে রেলওয়েকে জানাতে হবে।

আদালত রেলের কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, ট্রেন জাতীয় সম্পদ, এটাকে আপনারা গ্রাস করতে চাচ্ছেন? বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে শুনানি করে এই মৌখিক আদেশ দেন।

শুনানির সময়, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক, দুদকের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান, রেলওয়ের যুগ্ম মহাপরিচালক (অপারেশন্স) এএম সালাউদ্দিন, পরিচালক (ট্রাফিক) নাহিদ হাসান খান এবং সহজ ডটকমের ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. জুবায়ের হোসেন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় রেলের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ করে হাইকোর্ট বলেন, কেন ট্রেনের ছাদে লোক ওঠে? এটা কি পয়সা ইনকামের পথ? ট্রেন জাতীয় সম্পদ। ট্রেন কি আপনারা গ্রাস করতে চাচ্ছেন? রেল কর্মকর্তা সালাউদ্দিন এ সময় বলেন, মাই লর্ড, ছাদে যাত্রী ওঠা বন্ধ করা সম্ভব হচ্ছে না। কিছু সীমাবদ্ধতা আছে, তবু এটা আমাদের ব্যর্থতা।

এ সময় আদালত বলেন, ছাদে বা দাঁড়িয়ে যারা যাচ্ছে, তারা কি টাকা দিচ্ছে না? এটা তো দুর্নীতি। আর ছাদে যাত্রী ওঠানো বন্ধ করতে পারছেন না- এই অসহায়ত্ব প্রকাশ করলে কি দেশ চলবে? এটা কোনো কথাই না। আপনাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। অসম্ভব বলে কিছু নেই। এগুলো ঠিক হতে আর কতদিন সময় লাগবে? দেশ স্বাধীনের তো ৫০ বছর হয়ে গেছে।

হাইকোর্ট বলেন, সব ক্ষেত্রে কিছু সিন্ডিকেটের কারণেই দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনির আন্দোলনের প্রসঙ্গে আদালতে সহজ ডটকমের ভাইস প্রেসিডেন্ট জুবায়ের হোসেন বলেন, অনলাইনে টিকিট পেতে পেমেন্ট করতে ১৫ মিনিট সময় থাকে। কিন্তু তিনি (রনি) এক ঘণ্টা পর পেমেন্ট করেছিলেন, তাই তিনি টিকিট পাননি। তবে ৩ দিন পর সেই পেমেন্ট করা টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে।
এ সময় দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান আদালতকে বলেন, মাই লর্ড, সহজ ডটকম এটা বলে পার পেতে পারে না। গতকাল (বুধবার) ভোক্তা অধিকার তাদের অনিয়ম পেয়ে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছে, যেখান থেকে ৫০ হাজার টাকা রনি পাবেন।

তখন সহজ ডটকমের ভাইস প্রেসিডেন্ট আদালতকে বলেন, আমরা ভোক্তা অধিকারের ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করব। এরপর আদালত বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) থেকেই ট্রেনের ছাদে যাত্রী চড়া বন্ধ ঘোষণা করা হলো। একইসঙ্গে ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি ও ছাদে যাত্রী বহন বন্ধের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তা রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেন আদালত।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক পরে সাংবাদিকদের বলেন, মহিউদ্দিন রনির আন্দোলনের যুক্তি এবং তার ছয় দফার বিষয়ে বুধবার জানতে চেয়েছিলেন আদালত। আমি রেলের ডিজির সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগ করেছি, তিনি বলেছেন, এ বিষয়ে কমিটি গঠনের জন্য পদক্ষেপ নিয়েছেন, তাদের জিএমকে চিঠি দিয়ে মহিউদ্দিন রনির দাবিদাওয়া সম্পর্কে সাতদিনের মধ্যে কমিটি গঠন করে প্রতিবেদন দিতে বলেছেন।

রেলওয়ের অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদ জানিয়ে ছয় দফা দাবিতে ৭ জুলাই কমলাপুর টিকিট কাউন্টারের সামনে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার অ্যান্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি। এরপর মঙ্গলবার পদযাত্রা করে রেলের মহাপরিচালককে তিনি স্মারকলিপি দেন।

রনির ভাষ্য, ১৩ জুন বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইট থেকে ঢাকা-রাজশাহী রুটের ট্রেনের টিকিট কেনার চেষ্টা করেন তিনি। তার বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়া হলেও ট্রেনের কোনো আসন তিনি পাননি।

ট্রেনটাকে কি আপনারা গ্রাস করতে চাচ্ছেন?

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২১ জুলাই ২০২২, ১০:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনির আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে রেলওয়ের অব্যবস্থাপনা নিয়ে উষ্মা প্রকাশ করেছেন হাইকোর্ট। এ নিয়ে শুনানিতে ট্রেনের ছাদে যাত্রী বহন বন্ধ করতে বলেছেন আদালত। একইসঙ্গে রেলের টিকিট কালোবাজারি বন্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তা ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে রেলওয়েকে জানাতে হবে। 

আদালত রেলের কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, ট্রেন জাতীয় সম্পদ, এটাকে আপনারা গ্রাস করতে চাচ্ছেন? বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে শুনানি করে এই মৌখিক আদেশ দেন।

শুনানির সময়, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক, দুদকের আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান, রেলওয়ের যুগ্ম মহাপরিচালক (অপারেশন্স) এএম সালাউদ্দিন, পরিচালক (ট্রাফিক) নাহিদ হাসান খান এবং সহজ ডটকমের ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. জুবায়ের হোসেন আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় রেলের কর্মকর্তাদের উদ্দেশ করে হাইকোর্ট বলেন, কেন ট্রেনের ছাদে লোক ওঠে? এটা কি পয়সা ইনকামের পথ? ট্রেন জাতীয় সম্পদ। ট্রেন কি আপনারা গ্রাস করতে চাচ্ছেন? রেল কর্মকর্তা সালাউদ্দিন এ সময় বলেন, মাই লর্ড, ছাদে যাত্রী ওঠা বন্ধ করা সম্ভব হচ্ছে না। কিছু সীমাবদ্ধতা আছে, তবু এটা আমাদের ব্যর্থতা।

এ সময় আদালত বলেন, ছাদে বা দাঁড়িয়ে যারা যাচ্ছে, তারা কি টাকা দিচ্ছে না? এটা তো দুর্নীতি। আর ছাদে যাত্রী ওঠানো বন্ধ করতে পারছেন না- এই অসহায়ত্ব প্রকাশ করলে কি দেশ চলবে? এটা কোনো কথাই না। আপনাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে। অসম্ভব বলে কিছু নেই। এগুলো ঠিক হতে আর কতদিন সময় লাগবে? দেশ স্বাধীনের তো ৫০ বছর হয়ে গেছে।

হাইকোর্ট বলেন, সব ক্ষেত্রে কিছু সিন্ডিকেটের কারণেই দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনির আন্দোলনের প্রসঙ্গে আদালতে সহজ ডটকমের ভাইস প্রেসিডেন্ট জুবায়ের হোসেন বলেন, অনলাইনে টিকিট পেতে পেমেন্ট করতে ১৫ মিনিট সময় থাকে। কিন্তু তিনি (রনি) এক ঘণ্টা পর পেমেন্ট করেছিলেন, তাই তিনি টিকিট পাননি। তবে ৩ দিন পর সেই পেমেন্ট করা টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে।
এ সময় দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান আদালতকে বলেন, মাই লর্ড, সহজ ডটকম এটা বলে পার পেতে পারে না। গতকাল (বুধবার) ভোক্তা অধিকার তাদের অনিয়ম পেয়ে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছে, যেখান থেকে ৫০ হাজার টাকা রনি পাবেন।

তখন সহজ ডটকমের ভাইস প্রেসিডেন্ট আদালতকে বলেন, আমরা ভোক্তা অধিকারের ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করব। এরপর আদালত বলেন, আজ (বৃহস্পতিবার) থেকেই ট্রেনের ছাদে যাত্রী চড়া বন্ধ ঘোষণা করা হলো। একইসঙ্গে ট্রেনের টিকিট কালোবাজারি ও ছাদে যাত্রী বহন বন্ধের বিষয়ে কী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, তা রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে ব্যাখ্যা দিতে নির্দেশ দেন আদালত।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক পরে সাংবাদিকদের বলেন, মহিউদ্দিন রনির আন্দোলনের যুক্তি এবং তার ছয় দফার বিষয়ে বুধবার জানতে চেয়েছিলেন আদালত। আমি রেলের ডিজির সঙ্গে টেলিফোনে যোগাযোগ করেছি, তিনি বলেছেন, এ বিষয়ে কমিটি গঠনের জন্য পদক্ষেপ নিয়েছেন, তাদের জিএমকে চিঠি দিয়ে মহিউদ্দিন রনির দাবিদাওয়া সম্পর্কে সাতদিনের মধ্যে কমিটি গঠন করে প্রতিবেদন দিতে বলেছেন।

রেলওয়ের অব্যবস্থাপনার প্রতিবাদ জানিয়ে ছয় দফা দাবিতে ৭ জুলাই কমলাপুর টিকিট কাউন্টারের সামনে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার অ্যান্ড পারফরম্যান্স স্টাডিজ বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি। এরপর মঙ্গলবার পদযাত্রা করে রেলের মহাপরিচালককে তিনি স্মারকলিপি দেন।

রনির ভাষ্য, ১৩ জুন বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইট থেকে ঢাকা-রাজশাহী রুটের ট্রেনের টিকিট কেনার চেষ্টা করেন তিনি। তার বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়া হলেও ট্রেনের কোনো আসন তিনি পাননি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর