বাজেট পাসের আগে মোবাইলে বাড়তি চার্জ, যা বলল অপারেটররা
jugantor
বাজেট পাসের আগে মোবাইলে বাড়তি চার্জ, যা বলল অপারেটররা

  যুগান্তর রিপোর্ট  

১৬ জুন ২০২০, ২২:০৩:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

বাজেট পাসের আগে মোবাইলে বাড়তি চার্জ, যা বলল অপারেটররা

বাজেট পাসের আগে মোবাইলে বাড়তি কল চার্জ কাটা হচ্ছে কেন- এ বিষয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) থেকে জানতে চাওয়া হলে উল্টো সংস্থাটিকে আইন দেখিয়েছে মোবাইল অপারেটররা।

গত ১১ জুন জাতীয় সংসদে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট পেশ করা হয়। প্রস্তাবিত বাজেটে বাজেটে মোবাইল সেবার ওপর কর আরেক দফা বাড়িয়েছে সরকার। এই দফায় সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়েছে, যা গত বছরও একই হারে বাড়ানো হয়েছিল। ফলে মোবাইল ফোনে কথা বলা, এসএমএস পাঠানো এবং ডেটা ব্যবহারের খরচও বেড়ে যাবে।

নতুন করহারে মোবাইল সেবার ওপর মূল্য সংযোজন কর (মূসক বা ভ্যাট) ১৫ শতাংশ, সম্পূরক শুল্ক ১৫ শতাংশ ও সারচার্জ ১ শতাংশ। ফলে মোট করভার দাঁড়িয়েছে ৩৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ। এটি কার্যকর হলে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে কেউ যদি ১০০ টাকার সেবা নিতে চান, তাহলে ৭৫ দশমিক শূন্য ৩ টাকার সেবা নিতে পারবেন। ২৪ দশমিক ৯৭ টাকা যাবে সরকারের পকেটে।

বাজেটে ঘোষণা আসার পর এনবিআর এসআরও জারি করায় বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকেই মোবাইল সেবায় বাড়তি হারে সম্পূরক শুল্ক কাটা শুরু করে মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো।

এ অবস্থায় গত শনিবার বাজেট পাসের আগে মোবাইলের কথা বলা ও ইন্টারনেটে বাড়তি শুল্ক কেন আরোপ করা হয়েছে- তা জানতে চেয়ে অপারেটরদের চিঠি দেয় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। চার অপারেটরকে ই-মেইলে ওই চিঠি পাঠানো হয়। এতে বলা হয়, বাজেটে সম্পূরক শুল্ক বাড়ানোর ঘোষণার পর তা ইতিমধ্যে আরোপ করা শুরু হয়েছে, এটি প্রমাণিত হলে আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কঠোর ব্যবস্থা হিসেবে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) বন্ধ করে দেয়া এবং সব সেবা ও ট্যারিফ অনুমোদন বন্ধ করে দেয়ার কথা বলা হয় চিঠিতে।

বিটিআরসির ওই চিঠির জবাব দেয় মোবাইল অপারেটররা। তারা জবাবের পাল্টা চিঠিতে বিটিআরসিকে আইনের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছে বলে মোবাইল টেলিকম অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটব সাংবাদিকদের জানিয়েছে।

বাজেট প্রতিক্রিয়া নিয়ে মঙ্গলবার এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে অ্যামটব মহাসচিব এসএম ফরহাদ বলেন, আইন মেনেই বাজেট পাশের আগে সম্পূরক শুল্ক কাটা হচ্ছে বলে চার অপারেটরের পক্ষ থেকে বিটিআরসিকে জবাব দেয়া হয়েছে।

আইনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, জাতীয় সংসদে বাজেট ঘোষণার দিনই এসআরও জারি করে অবিলম্বে শুল্ক কার্যকর করতে বলা হয়। এটাতো নতুন নয়। অর্থবিলের ৮৮ পাতায় কোন কোন দফা অবিলম্বে কার্যকর হবে- তা উল্লেখ করে দেয়া হয়েছে। এর আওতায় ৮০ নম্বর দফাও আছে। এই দফার অন্তর্ভুক্ত মোবাইল সেবা।

বাজেট পাসের আগে মোবাইলে বাড়তি চার্জ, যা বলল অপারেটররা

 যুগান্তর রিপোর্ট 
১৬ জুন ২০২০, ১০:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বাজেট পাসের আগে মোবাইলে বাড়তি চার্জ, যা বলল অপারেটররা
ফাইল ছবি

বাজেট পাসের আগে মোবাইলে বাড়তি কল চার্জ কাটা হচ্ছে কেন- এ বিষয়ে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) থেকে জানতে চাওয়া হলে উল্টো সংস্থাটিকে আইন দেখিয়েছে মোবাইল অপারেটররা।

গত ১১ জুন জাতীয় সংসদে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট পেশ করা হয়। প্রস্তাবিত বাজেটে বাজেটে মোবাইল সেবার ওপর কর আরেক দফা বাড়িয়েছে সরকার। এই দফায় সম্পূরক শুল্ক ৫ শতাংশ বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করা হয়েছে, যা গত বছরও একই হারে বাড়ানো হয়েছিল। ফলে মোবাইল ফোনে কথা বলা, এসএমএস পাঠানো এবং ডেটা ব্যবহারের খরচও বেড়ে যাবে।

নতুন করহারে মোবাইল সেবার ওপর মূল্য সংযোজন কর (মূসক বা ভ্যাট) ১৫ শতাংশ, সম্পূরক শুল্ক ১৫ শতাংশ ও সারচার্জ ১ শতাংশ। ফলে মোট করভার দাঁড়িয়েছে ৩৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ। এটি কার্যকর হলে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে কেউ যদি ১০০ টাকার সেবা নিতে চান, তাহলে ৭৫ দশমিক শূন্য ৩ টাকার সেবা নিতে পারবেন। ২৪ দশমিক ৯৭ টাকা যাবে সরকারের পকেটে। 

বাজেটে ঘোষণা আসার পর এনবিআর এসআরও জারি করায় বৃহস্পতিবার মধ্যরাত থেকেই মোবাইল সেবায় বাড়তি হারে সম্পূরক শুল্ক কাটা শুরু করে মোবাইল ফোন অপারেটরগুলো।

এ অবস্থায় গত শনিবার বাজেট পাসের আগে মোবাইলের কথা বলা ও ইন্টারনেটে বাড়তি শুল্ক কেন আরোপ করা হয়েছে- তা জানতে চেয়ে অপারেটরদের চিঠি দেয় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। চার অপারেটরকে ই-মেইলে ওই চিঠি পাঠানো হয়। এতে বলা হয়, বাজেটে সম্পূরক শুল্ক বাড়ানোর ঘোষণার পর তা ইতিমধ্যে আরোপ করা শুরু হয়েছে, এটি প্রমাণিত হলে আইন অনুযায়ী কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। কঠোর ব্যবস্থা হিসেবে অনাপত্তিপত্র (এনওসি) বন্ধ করে দেয়া এবং সব সেবা ও ট্যারিফ অনুমোদন বন্ধ করে দেয়ার কথা বলা হয় চিঠিতে।

বিটিআরসির ওই চিঠির জবাব দেয় মোবাইল অপারেটররা। তারা জবাবের পাল্টা চিঠিতে বিটিআরসিকে আইনের কথা স্মরণ করিয়ে দিয়েছে বলে মোবাইল টেলিকম অপারেটরদের সংগঠন অ্যামটব সাংবাদিকদের জানিয়েছে।

বাজেট প্রতিক্রিয়া নিয়ে মঙ্গলবার এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে অ্যামটব মহাসচিব এসএম ফরহাদ বলেন, আইন মেনেই বাজেট পাশের আগে সম্পূরক শুল্ক কাটা হচ্ছে বলে চার অপারেটরের পক্ষ থেকে বিটিআরসিকে জবাব দেয়া হয়েছে।

আইনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, জাতীয় সংসদে বাজেট ঘোষণার দিনই এসআরও জারি করে অবিলম্বে শুল্ক কার্যকর করতে বলা হয়। এটাতো নতুন নয়। অর্থবিলের ৮৮ পাতায় কোন কোন দফা অবিলম্বে কার্যকর হবে- তা উল্লেখ করে দেয়া হয়েছে। এর আওতায় ৮০ নম্বর দফাও আছে। এই দফার অন্তর্ভুক্ত মোবাইল সেবা।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : বাজেট ২০২০-২১

০২ জুলাই, ২০২০