ইউপি নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেওয়ার ঘোষণায় যা বলল ইসি
jugantor
ইউপি নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেওয়ার ঘোষণায় যা বলল ইসি

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২০:৫৩:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউপি নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেওয়ার ঘোষণা নিয়ে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার বলেছেন, নির্বাচন কমিশন সব সময় চায় প্রতিটি ব্যক্তি, প্রতিটি দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। আমাদের কাছে যে সহযোগিতা চাইবেন, নির্বাচন কমিশন সে বিষয়ে সহযোগিতা প্রদান করবে।

রোববার পঞ্চম ধাপের পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পর নির্বাচন ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির এই ঘোষণায় ইসি কোনো প্রশ্নের মুখে পড়ল কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সেটি দেখা যাক। এখনো তো তফসিল ঘোষণা করিনি। তফসিল ঘোষণার সময় আমরা বিষয়টি দেখব।

ভোটার দিবস উদযাপন নিয়ে ইসি সচিব বলেন, আমাদের ভোটার দিবসের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হলো ১৮ বছর হলে ভোটার হতে আর দেরী নয়, এটি নিঃসন্দেহে তাদের জন্য একটা আনন্দের ব্যাপার। যারা ভোটার হবেন, এই নাগরিকরাই কিন্তু ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমেই গণতন্ত্রকে সুপ্রতিষ্ঠিত করবেন। আমি মনে করি, আমাদের এই ভোটর দিবস উদযাপনের মধ্য দিয়ে নাগরিকরা তাদের অধিকারের নিয়ে সচেতন হবেন।

ইউপি নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেওয়ার ঘোষণায় যা বলল ইসি

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০৮:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইউপি নির্বাচনে বিএনপির অংশ না নেওয়ার ঘোষণা নিয়ে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সচিব মো. হুমায়ুন কবীর খোন্দকার বলেছেন, নির্বাচন কমিশন সব সময় চায় প্রতিটি ব্যক্তি, প্রতিটি দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। আমাদের কাছে যে সহযোগিতা চাইবেন, নির্বাচন কমিশন সে বিষয়ে সহযোগিতা প্রদান করবে।

রোববার পঞ্চম ধাপের পৌরসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পর নির্বাচন ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপির এই ঘোষণায় ইসি কোনো প্রশ্নের মুখে পড়ল কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সেটি দেখা যাক। এখনো তো তফসিল ঘোষণা করিনি। তফসিল ঘোষণার সময় আমরা বিষয়টি দেখব।

ভোটার দিবস উদযাপন নিয়ে ইসি সচিব বলেন, আমাদের ভোটার দিবসের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হলো ১৮ বছর হলে ভোটার হতে আর দেরী নয়, এটি নিঃসন্দেহে তাদের জন্য একটা আনন্দের ব্যাপার। যারা ভোটার হবেন, এই নাগরিকরাই কিন্তু ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমেই গণতন্ত্রকে সুপ্রতিষ্ঠিত করবেন। আমি মনে করি, আমাদের এই ভোটর দিবস উদযাপনের মধ্য দিয়ে নাগরিকরা তাদের অধিকারের নিয়ে সচেতন হবেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন