উজবেকিস্তানের সঙ্গে সরাসরি বিমান চলাচল চায় ঢাকা
jugantor
উজবেকিস্তানের সঙ্গে সরাসরি বিমান চলাচল চায় ঢাকা

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১৭ জুলাই ২০২১, ২০:৪৬:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

উজবেকিস্তানের প্রেসিডেন্ট শাহভকত মিরজাইয়েভের সঙ্গে বৈঠক করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। তাসখন্দে 'মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়া : আঞ্চলিক সংযোগ, চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা' শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনের সময় শুক্রবার তিনি এ বৈঠক করেন। সেখানে ড. মোমেন উজবেক প্রেসিডেন্টকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে শুভকামনা ও শুভেচ্ছা জানান।

বৈঠকে আন্তর্জাতিক, আঞ্চলিক বিষয়, বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তানের মধ্যে বহুমুখী সহযোগিতার ক্ষেত্র আরও সম্প্রসারণ এবং সম্ভাবনার বিষয়ে আলোচনা হয়। এ ছাড়া দু'দেশের মধ্যে সহযোগিতার নতুন নতুন ক্ষেত্র, মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে অর্থনৈতিক সহযোগিতা আরও গভীরতর করার বিষয়ে আলোচনা হয়।

ড. মোমেন এ বছরের ডিসেম্বরে সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফর করতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আমন্ত্রণপত্র উজবেক প্রেসিডেন্টকে হস্তান্তর করেন। উজবেক প্রেসিডেন্ট আনন্দের সঙ্গে এ পত্র গ্রহণ এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, এ বছরের ডিসেম্বরে তার কর্মসূচি দেখে যত শিগগির সম্ভব বাংলাদেশ সফরের চেষ্টা করবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী উজবেক প্রেসিডেন্টকে বাংলাদেশের যুব সমাজের কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করেন। তিনি জানান, বর্তমান বাংলাদেশের অর্থনেতিক ও রাজনৈতিক উন্নয়নে যুবসমাজ বড় ভূমিকা পালন করছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ এবং উজবেকিস্তানের মধ্যে সরাসরি যাত্রীবাহী বিমান চলাচল ঢাকা-তাসখন্দের মধ্যে সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারে বলে উল্লে­খ করেন। উজবেক প্রেসিডেন্ট সরাসরি যাত্রীবাহী বিমান চলাচলের বিষয়টি তারা পরীক্ষা করে দেখবেন বলে আশ্বস্ত করেন। ড. মোমেন ঢাকায় সে দেশের দূতাবাস চালুর বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বৈঠকে উপস্থিত উজবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আঞ্চলিক সংযোগ শক্তিশালী করার উদ্যোগ নেওয়ায় উজবেক প্রেসিডেন্টের প্রশংসা করেন। উজবেক প্রেসিডেন্ট সম্মেলনে অংশ নেওয়ায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এবং বলেন, তার (ড. মোমেন) এ প্রশংসা আরও সামনের দিকে এগিয়ে যেতে তাকে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

উজবেকিস্তানের সঙ্গে সরাসরি বিমান চলাচল চায় ঢাকা

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১৭ জুলাই ২০২১, ০৮:৪৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

উজবেকিস্তানের প্রেসিডেন্ট শাহভকত মিরজাইয়েভের সঙ্গে বৈঠক করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। তাসখন্দে 'মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়া : আঞ্চলিক সংযোগ, চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা' শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনের সময় শুক্রবার তিনি এ বৈঠক করেন। সেখানে ড. মোমেন উজবেক প্রেসিডেন্টকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে শুভকামনা ও শুভেচ্ছা জানান।

বৈঠকে আন্তর্জাতিক, আঞ্চলিক বিষয়, বাংলাদেশ ও উজবেকিস্তানের মধ্যে বহুমুখী সহযোগিতার ক্ষেত্র আরও সম্প্রসারণ এবং সম্ভাবনার বিষয়ে আলোচনা হয়। এ ছাড়া দু'দেশের মধ্যে সহযোগিতার নতুন নতুন ক্ষেত্র, মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে অর্থনৈতিক সহযোগিতা আরও গভীরতর করার বিষয়ে আলোচনা হয়।

ড. মোমেন এ বছরের ডিসেম্বরে সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফর করতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আমন্ত্রণপত্র উজবেক প্রেসিডেন্টকে হস্তান্তর করেন। উজবেক প্রেসিডেন্ট আনন্দের সঙ্গে এ পত্র গ্রহণ এবং বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, এ বছরের ডিসেম্বরে তার কর্মসূচি দেখে যত শিগগির সম্ভব বাংলাদেশ সফরের চেষ্টা করবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী উজবেক প্রেসিডেন্টকে বাংলাদেশের যুব সমাজের কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করেন। তিনি জানান, বর্তমান বাংলাদেশের অর্থনেতিক ও রাজনৈতিক উন্নয়নে যুবসমাজ বড় ভূমিকা পালন করছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বাংলাদেশ এবং উজবেকিস্তানের মধ্যে সরাসরি যাত্রীবাহী বিমান চলাচল ঢাকা-তাসখন্দের মধ্যে সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে পারে বলে উল্লে­খ করেন। উজবেক প্রেসিডেন্ট সরাসরি যাত্রীবাহী বিমান চলাচলের বিষয়টি তারা পরীক্ষা করে দেখবেন বলে আশ্বস্ত করেন। ড. মোমেন ঢাকায় সে দেশের দূতাবাস চালুর বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বৈঠকে উপস্থিত উজবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আঞ্চলিক সংযোগ শক্তিশালী করার উদ্যোগ নেওয়ায় উজবেক প্রেসিডেন্টের প্রশংসা করেন। উজবেক প্রেসিডেন্ট সম্মেলনে অংশ নেওয়ায় পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান এবং বলেন, তার (ড. মোমেন) এ প্রশংসা আরও সামনের দিকে এগিয়ে যেতে তাকে অনুপ্রেরণা যোগাবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন