বিমানবন্দরে বসছে থ্যালাসের রাডার, নজরদারিতে আসবে পুরো দেশের আকাশ
jugantor
বিমানবন্দরে বসছে থ্যালাসের রাডার, নজরদারিতে আসবে পুরো দেশের আকাশ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২১ অক্টোবর ২০২১, ২০:০০:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বসানো হচ্ছে সিএনএস-এটিএম সিস্টেমসহ অত্যাধুনিক রাডার।এতে নজরদারির আওতায় আসবে দেশের সমগ্র আকাশসীমা।ফলে দেশের আকাশ ব্যবহার করে আন্তর্জাতিক রুটে কোনো বিদেশি বিমান যাতায়াত করলেই ধরা পড়বে এবং তাদের থেকে ফ্লাইংওভার চার্জ আদায় করা যাবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই রাডার বসানোর জন্য বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) ও ফ্রান্সের রাডার প্রস্তুতকারী কোম্পানি থ্যালাস এলএএস’র মধ্যে আনুষ্ঠানিক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।

বেবিচকের পক্ষে চুক্তি সই করেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান, আর থ্যালাসের পক্ষে সই করেন প্রতিষ্ঠানটির ভাইস চেয়ারম্যান মি. নিকোলাস।

স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত জ্যাঁ ম্যাঁরি উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিমান প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, নতুন এই অত্যাধুনিক রাডার স্থাপনের ফলে দেশের সমগ্র আকাশসীমা নজরদারির আওতায় আসবে। ফলে বাংলাদেশের আকাশ ব্যবহার করে আন্তর্জাতিক রুটে যাতায়াত করা সব বিদেশি উড়োজাহাজ শনাক্ত করা সম্ভব হবে এবং তাদের থেকে ফ্লাইংওভার চার্জ আদায় করা যাবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, নতুন ও অত্যাধুনিক এই রাডার ও এটিসি টাওয়ার স্থাপনের ফলে দেশের আকাশসীমা হবে আরও সুরক্ষিত।বিমান চলাচল হবে আরও নিরাপদ এবং রাজস্ব আয়ের পরিমাণ বাড়বে এভিয়েশন খাত থেকে।

বিমানবন্দরে বসছে থ্যালাসের রাডার, নজরদারিতে আসবে পুরো দেশের আকাশ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২১ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বসানো হচ্ছে সিএনএস-এটিএম সিস্টেমসহ অত্যাধুনিক রাডার।এতে নজরদারির আওতায় আসবে দেশের সমগ্র আকাশসীমা।ফলে দেশের আকাশ ব্যবহার করে আন্তর্জাতিক রুটে কোনো বিদেশি বিমান যাতায়াত করলেই ধরা পড়বে এবং তাদের থেকে ফ্লাইংওভার চার্জ আদায় করা যাবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই রাডার বসানোর জন্য বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) ও ফ্রান্সের রাডার প্রস্তুতকারী কোম্পানি থ্যালাস এলএএস’র মধ্যে আনুষ্ঠানিক চুক্তি স্বাক্ষর হয়েছে।

বেবিচকের পক্ষে চুক্তি সই করেন প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান, আর থ্যালাসের পক্ষে সই করেন প্রতিষ্ঠানটির ভাইস চেয়ারম্যান মি. নিকোলাস। 

স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত জ্যাঁ ম্যাঁরি উপস্থিত ছিলেন। 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিমান প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, নতুন এই অত্যাধুনিক রাডার স্থাপনের ফলে দেশের সমগ্র আকাশসীমা নজরদারির আওতায় আসবে। ফলে বাংলাদেশের আকাশ ব্যবহার করে আন্তর্জাতিক রুটে যাতায়াত করা সব বিদেশি উড়োজাহাজ শনাক্ত করা সম্ভব হবে এবং তাদের থেকে ফ্লাইংওভার চার্জ আদায় করা যাবে। 

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, নতুন ও অত্যাধুনিক এই রাডার ও এটিসি টাওয়ার স্থাপনের ফলে দেশের আকাশসীমা হবে আরও সুরক্ষিত।বিমান চলাচল হবে আরও নিরাপদ এবং রাজস্ব আয়ের পরিমাণ বাড়বে এভিয়েশন খাত থেকে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন