শেখ হাসিনার প্রশংসায় পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রদূত
jugantor
শেখ হাসিনার প্রশংসায় পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রদূত

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ২২:৫৩:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রদূত এবং বর্তমানে হাডসন ইনস্টিটিউটের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়ার পরিচালক হোসেন হাক্কানি।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহান পিতার অসাধারণ কন্যা।ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে যাদের পরিবারকে কেড়ে নেওয়া হয়, তাদের মধ্যে সবাই সেই কষ্টকে শক্তিতে পরিণত করে মা-বাবার স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিজেকে নিয়োজিত করতে পারেন না।’

রোববার ঢাকায় ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন-২০২১’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে শনিবার দুই দিনব্যাপী শান্তি সম্মেলন শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে পাকিস্তানের সাবেক এই রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর পথ অনুসরণের জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাই। বঙ্গবন্ধুর চিন্তা এবং শেখ হাসিনার কর্মের কারণে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশ একমাত্র দেশ, যার ভেতরে ও সীমান্তে কোনো সহিংসতা নেই।’

বিশ্ব শান্তি সম্মেলন-২০২১ এর আয়োজক কমিটির সভাপতি ও জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম মূল অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জেমস গর্ডন ব্রাউনের একটি ভিডিও বার্তা অনুষ্ঠানে পরিবেশিত হয়।

সিঙ্গাপুরের সাবেক প্রধানমন্ত্রী গোহ চোক টং, ইউনেস্কোর সাবেক মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা সমাপনী অধিবেশনে বক্তব্য দেন। এর আগে বিশ্ব শান্তি সম্মেলন-২০২১ এর থিম সং পরিবেশিত হয় এবং একটি অডিও-ভিডিও প্রেজেন্টেশন প্রদর্শন করা হয়।

শেখ হাসিনার প্রশংসায় পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রদূত

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:৫৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রদূত এবং বর্তমানে হাডসন ইনস্টিটিউটের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়ার পরিচালক হোসেন হাক্কানি। 

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহান পিতার অসাধারণ কন্যা।ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে যাদের পরিবারকে কেড়ে নেওয়া হয়, তাদের মধ্যে সবাই সেই কষ্টকে শক্তিতে পরিণত করে মা-বাবার স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিজেকে নিয়োজিত করতে পারেন না।’

রোববার ঢাকায় ‘বিশ্ব শান্তি সম্মেলন-২০২১’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে শনিবার দুই দিনব্যাপী শান্তি সম্মেলন শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে পাকিস্তানের সাবেক এই রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর পথ অনুসরণের জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানাই। বঙ্গবন্ধুর চিন্তা এবং শেখ হাসিনার কর্মের কারণে দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশ একমাত্র দেশ, যার ভেতরে ও সীমান্তে কোনো সহিংসতা নেই।’

বিশ্ব শান্তি সম্মেলন-২০২১ এর আয়োজক কমিটির সভাপতি ও জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম মূল অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন। সাবেক ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জেমস গর্ডন ব্রাউনের একটি ভিডিও বার্তা অনুষ্ঠানে পরিবেশিত হয়। 

সিঙ্গাপুরের সাবেক প্রধানমন্ত্রী গোহ চোক টং, ইউনেস্কোর সাবেক মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা সমাপনী অধিবেশনে বক্তব্য দেন। এর আগে বিশ্ব শান্তি সম্মেলন-২০২১ এর থিম সং পরিবেশিত হয় এবং একটি অডিও-ভিডিও প্রেজেন্টেশন প্রদর্শন করা হয়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন