কনক সরওয়ারের বোনকে মুক্তি দিতে ১৫ আন্তর্জাতিক সংস্থার চিঠি
jugantor
কনক সরওয়ারের বোনকে মুক্তি দিতে ১৫ আন্তর্জাতিক সংস্থার চিঠি

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৮ জানুয়ারি ২০২২, ২২:১১:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কনক সরওয়ারের বোনকে মুক্তি দিতে ১৫ আন্তর্জাতিক সংস্থার চিঠি

সাংবাদিক কনক সরওয়ারের বোন নুসরাত শাহরিন রাকাকে মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ১৫টি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা।

বৃহস্পতিবার অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন বরাবর পাঠানো যৌথ চিঠিতে এ আহ্বান জানানো হয়।

কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিজমের (সিপিজে) ওয়েবসাইটে চিঠিটি প্রকাশ করা হয়েছে।

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও মানবাধিকার রক্ষায় কাজ করা সংগঠনগুলোর চিঠিতে বলা হয়- রাকার জামিনের বিরোধিতা না করা, তার আইনজীবীদের সহায়তা দেওয়া এবং সংশ্লিষ্ট আদালত যেন দ্রুত মুক্তির ব্যবস্থা করেন সেজন্য আমরা আহ্বান জানাচ্ছি। একইসঙ্গে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন সংশোধনের আহ্বান জানানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন এবং মুক্ত মতপ্রকাশের নীতি অনুযায়ী সংশোধন না করা হলে বাংলাদেশ ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনটি যেন বাতিল করা হয়।

চিঠিতে স্বাক্ষরকারী সংগঠনগুলো হলো- অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টস, হিউম্যান রাইটস ওয়াচ, রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস, অ্যান্টি ডেথ পেনাল্টি এশিয়া নেটওয়ার্ক, আর্টিকেল নাইনটিন, এশিয়ান হিউম্যান রাইটস কমিশন, ক্যাপিটাল পানিশম্যান্ট জাস্টিস প্রজেক্ট, কোয়ালিশন ফর হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি ইন বাংলাদেশ, একসেস নাউ, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন ফর হিউম্যান রাইটস, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব জার্নালিস্টস, পেন আমেরিকা, পেন বাংলাদেশ এবং রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটস।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৪ অক্টোবর রাতে রাজধানীর উত্তরায় অভিযান চালিয়ে রাকাকে গ্রেফতার করেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যরা। র‌্যাবের দাবি, ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে রাষ্ট্রবিরোধী তৎপরতার কারণে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর তার বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি এবং মাদক আইনে আরেকটি মামলা করে র‌্যাব।

এদিকে ওই বছরের ৮ নভেম্বর ডিজিটাল নিরাপত্তা ও মাদক আইনের দুই মামলায় রাকা হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেন।

রাকাকে কেন জামিন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এক সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। গেল ২৫ জানুয়ারি বিচারপতি মো. হাবিবুল গনি ও বিচারপতি এসএম মজিবুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট জেড আই খান পান্না ও অ্যাডভোকেট জামিউল হক ফয়সাল। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রেজাউল করিম।

পরে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রেজাউল করিম বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় নুসরাত শাহরিন রাকাকে জামিন দিতে এক সপ্তাহের রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। তবে মাদক মামলায় কোনো আদেশ দেননি।

কনক সরওয়ারের বোনকে মুক্তি দিতে ১৫ আন্তর্জাতিক সংস্থার চিঠি

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১০:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কনক সরওয়ারের বোনকে মুক্তি দিতে ১৫ আন্তর্জাতিক সংস্থার চিঠি
ফাইল ছবি

সাংবাদিক কনক সরওয়ারের বোন নুসরাত শাহরিন রাকাকে মুক্তি দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ১৫টি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা। 

বৃহস্পতিবার অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন বরাবর পাঠানো যৌথ চিঠিতে এ আহ্বান জানানো হয়। 

কমিটি টু প্রোটেক্ট জার্নালিজমের (সিপিজে) ওয়েবসাইটে চিঠিটি প্রকাশ করা হয়েছে। 

গণমাধ্যমের স্বাধীনতা ও মানবাধিকার রক্ষায় কাজ করা সংগঠনগুলোর চিঠিতে বলা হয়- রাকার জামিনের বিরোধিতা না করা, তার আইনজীবীদের সহায়তা দেওয়া এবং সংশ্লিষ্ট আদালত যেন দ্রুত মুক্তির ব্যবস্থা করেন সেজন্য আমরা আহ্বান জানাচ্ছি। একইসঙ্গে ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন সংশোধনের আহ্বান জানানো হয়েছে। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন এবং মুক্ত মতপ্রকাশের নীতি অনুযায়ী সংশোধন না করা হলে বাংলাদেশ ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনটি যেন বাতিল করা হয়।

চিঠিতে স্বাক্ষরকারী সংগঠনগুলো হলো- অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, কমিটি টু প্রটেক্ট জার্নালিস্টস, হিউম্যান রাইটস ওয়াচ, রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস, অ্যান্টি ডেথ পেনাল্টি এশিয়া নেটওয়ার্ক, আর্টিকেল নাইনটিন, এশিয়ান হিউম্যান রাইটস কমিশন, ক্যাপিটাল পানিশম্যান্ট জাস্টিস প্রজেক্ট, কোয়ালিশন ফর হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড ডেমোক্রেসি ইন বাংলাদেশ, একসেস নাউ, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন ফর হিউম্যান রাইটস, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব জার্নালিস্টস, পেন আমেরিকা, পেন বাংলাদেশ এবং রবার্ট এফ কেনেডি হিউম্যান রাইটস।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৪ অক্টোবর রাতে রাজধানীর উত্তরায় অভিযান চালিয়ে রাকাকে গ্রেফতার করেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) সদস্যরা। র‌্যাবের দাবি, ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে রাষ্ট্রবিরোধী তৎপরতার কারণে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর তার বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি এবং মাদক আইনে আরেকটি মামলা করে র‌্যাব।

এদিকে ওই বছরের ৮ নভেম্বর ডিজিটাল নিরাপত্তা ও মাদক আইনের দুই মামলায় রাকা হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেন।

রাকাকে কেন জামিন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। এক সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। গেল ২৫ জানুয়ারি বিচারপতি মো. হাবিবুল গনি ও বিচারপতি এসএম মজিবুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট জেড আই খান পান্না ও অ্যাডভোকেট জামিউল হক ফয়সাল। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রেজাউল করিম।

পরে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল রেজাউল করিম বলেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় নুসরাত শাহরিন রাকাকে জামিন দিতে এক সপ্তাহের রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। তবে মাদক মামলায় কোনো আদেশ দেননি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন