বাংলাদেশের বিশেষ কোনো দলকে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থন করে না: মার্কিন রাষ্ট্রদূত
jugantor
বাংলাদেশের বিশেষ কোনো দলকে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থন করে না: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

১০ আগস্ট ২০২২, ২০:১৯:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস বলেছেন, বাংলাদেশের বিশেষ কোনো দলকে যুক্তরাষ্ট্র আগেও সমর্থন করেনি, এখনো করে না।

বুধবার সকালে রাজধানীতে এক উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

রাজনৈতিক নেতৃত্বের জ্ঞান ও দক্ষতা উন্নয়নের জন্য ‘পলিটিক্স ম্যাটারস’ নামে ই-লার্নিং প্লাটফর্মের উদ্বোধন করা হয়েছে। ইউএসএআইডি ও ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের যৌথ উদ্যোগে এই প্লাটফর্মের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ-বিএনপি, জাতীয় পার্টির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে নির্বাচন প্রসঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, সংকট মোকাবিলায় সুষ্ঠু, অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের চেয়ে ভালো কোনো সমাধান নেই। কিন্তু সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য জরুরি নির্বাচন কমিশন, সরকারসহ সবার সক্রিয় অংশগ্রহণ।তাই জাতীয় নির্বাচনে সব দলকে অংশগ্রহণের তাগিদ দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সব দলকে নির্বাচন বর্জন ও না বলার সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে আসতে হবে। সব দলের অংশগ্রহণে আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু হবে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেন তিনি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি না করলে বর্তমান সংকটের সমাধান সম্ভব নয়। গণতন্ত্র, মানবাধিকার, নির্বাচন ও সুশাসন প্রশ্নে সব দল একমত না হতে পারলে পরিণতি ভয়াবহ হতে পারে।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি বলেন, সব রাজনৈতিক দল সুষ্ঠু নিবাচনের প্রক্রিয়া তৈরিতে ব্যর্থ হয়েছে। সব দলকেই এর দায়ভার নিতে হবে।

বাংলাদেশের বিশেষ কোনো দলকে যুক্তরাষ্ট্র সমর্থন করে না: মার্কিন রাষ্ট্রদূত

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
১০ আগস্ট ২০২২, ০৮:১৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস বলেছেন, বাংলাদেশের বিশেষ কোনো দলকে যুক্তরাষ্ট্র আগেও সমর্থন করেনি, এখনো করে না।

বুধবার সকালে রাজধানীতে এক উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

রাজনৈতিক নেতৃত্বের জ্ঞান ও দক্ষতা উন্নয়নের জন্য ‘পলিটিক্স ম্যাটারস’ নামে ই-লার্নিং প্লাটফর্মের উদ্বোধন করা হয়েছে। ইউএসএআইডি ও ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনালের যৌথ উদ্যোগে এই প্লাটফর্মের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ-বিএনপি, জাতীয় পার্টির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে নির্বাচন প্রসঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, সংকট মোকাবিলায় সুষ্ঠু, অবাধ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের চেয়ে ভালো কোনো সমাধান নেই। কিন্তু সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য জরুরি নির্বাচন কমিশন, সরকারসহ সবার সক্রিয় অংশগ্রহণ।তাই জাতীয় নির্বাচনে সব দলকে অংশগ্রহণের তাগিদ দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, সব দলকে নির্বাচন বর্জন ও না বলার সংস্কৃতি থেকে বের হয়ে আসতে হবে। সব দলের অংশগ্রহণে আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু হবে বলে আশাবাদ প্রকাশ করেন তিনি।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, রাজনৈতিক দলগুলোর জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি না করলে বর্তমান সংকটের সমাধান সম্ভব নয়। গণতন্ত্র, মানবাধিকার, নির্বাচন ও সুশাসন প্রশ্নে সব দল একমত না হতে পারলে পরিণতি ভয়াবহ হতে পারে।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি বলেন, সব রাজনৈতিক দল সুষ্ঠু নিবাচনের প্রক্রিয়া তৈরিতে ব্যর্থ হয়েছে। সব দলকেই এর দায়ভার নিতে হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর