আগামী মাস থেকে আমরা উন্নয়নের পথে যাব: মন্ত্রী
jugantor
আগামী মাস থেকে আমরা উন্নয়নের পথে যাব: মন্ত্রী

  সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি  

১৯ আগস্ট ২০২২, ১৮:২৭:০৮  |  অনলাইন সংস্করণ

অন্যান্য দেশের কারণে আমাদের তেল আমদানিতে অসুবিধা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। এ সময় বিদ্যুতের ঘাটতির কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য বেড়েছে। বিদ্যুতের ঘাটতি আছে। তেল আমদানিতে অসুবিধা হচ্ছে। তবে এই মাসটিই দুর্দশার শেষ মাস, আগামী মাস থেকে আমরা উন্নয়নের পথে যাব।

শুক্রবার দুপুরে সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় কালীবাড়ি মন্দিরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব জন্মাষ্টমীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘সংখ্যালঘু শব্দ আমরা ব্যবহার করি না। তবে বাস্তবিক কারণে এটা ব্যবহার করতে হয়। সংখ্যালঘু, সংখ্যাগুরু বলতে কিছু নাই। আমরা সবাই বাঙালি এবং বাংলাদেশের নাগরিক।’

তিনি বলেন, ‘ধর্ম যেমন প্রতিষ্ঠা পাবে, তেমনি সততা ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা পাবে। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় অসাম্প্রদায়িকতা একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। জাতির পিতার নেতৃত্বে আমরা যেমন ঐক্যবদ্ধ ছিলাম। সেইভাবে বাংলাদেশ বিনির্মাণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাব।’

জেলা জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সভাপতি গৌরাঙ্গ পদ দাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক চন্দন প্রসাদ রায়ের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন- সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা পরিষদের প্রশাসক নুরুল হুদা মুকুট, পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন প্রমুখ।

আলোচনা সভার পরে কালীবাড়ি মন্দির প্রাঙ্গণ থেকে একটি মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে।

আগামী মাস থেকে আমরা উন্নয়নের পথে যাব: মন্ত্রী

 সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৯ আগস্ট ২০২২, ০৬:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অন্যান্য দেশের কারণে আমাদের তেল আমদানিতে অসুবিধা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। এ সময় বিদ্যুতের ঘাটতির কথা স্বীকার করে তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্য বেড়েছে। বিদ্যুতের ঘাটতি আছে। তেল আমদানিতে অসুবিধা হচ্ছে। তবে এই মাসটিই দুর্দশার শেষ মাস, আগামী মাস থেকে আমরা উন্নয়নের পথে যাব।

শুক্রবার দুপুরে সুনামগঞ্জ কেন্দ্রীয় কালীবাড়ি মন্দিরে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব জন্মাষ্টমীর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘সংখ্যালঘু শব্দ আমরা ব্যবহার করি না। তবে বাস্তবিক কারণে এটা ব্যবহার করতে হয়। সংখ্যালঘু, সংখ্যাগুরু বলতে কিছু নাই। আমরা সবাই বাঙালি এবং বাংলাদেশের নাগরিক।’

তিনি বলেন, ‘ধর্ম যেমন প্রতিষ্ঠা পাবে, তেমনি সততা ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা পাবে। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় অসাম্প্রদায়িকতা একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। জাতির পিতার নেতৃত্বে আমরা যেমন ঐক্যবদ্ধ ছিলাম। সেইভাবে বাংলাদেশ বিনির্মাণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যাব।’

জেলা জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সভাপতি গৌরাঙ্গ পদ দাসের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক চন্দন প্রসাদ রায়ের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন- সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, জেলা পরিষদের প্রশাসক নুরুল হুদা মুকুট, পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন প্রমুখ।

আলোচনা সভার পরে কালীবাড়ি মন্দির প্রাঙ্গণ থেকে একটি মঙ্গল শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন