মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান হলেন ড. কামাল উদ্দিন
jugantor
মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান হলেন ড. কামাল উদ্দিন

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ১৬:৫১:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ। মানবাধিকার কমিশনের শীর্ষ পদে নাসিমা বেগমের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন সাবেক এই স্বরাষ্ট্র সচিব।

আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ বৃহস্পতিবার কামাল উদ্দিনকে এই দায়িত্ব দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

এই পদে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের একজন বিচারকের সমান বেতন, ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা পাবেন কামাল উদ্দিন। এছাড়া জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে একজন সার্বক্ষণিক সদস্য এবং আরও পাঁচজন অবৈতনিক সদস্যও নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সার্বক্ষণিক সদস্য হিসেবে আসছেন সাবেক সচিব মো. সেলিম রেজা। আর অবৈতনিক পাঁচ সদস্যা হলেন- সাবেক সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মো. আমিনুল ইসলাম, খাগড়াছড়ির চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি কংজরী চৌধুরী, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য ড. বিশ্বজিৎ চন্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উইম্যান অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক তানিয়া হক এবং বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট কাওসার আহমেদ।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশন আইন ২০০৯ অনুযায়ী তাদের নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান হলেন ড. কামাল উদ্দিন

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ। মানবাধিকার কমিশনের শীর্ষ পদে নাসিমা বেগমের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন সাবেক এই স্বরাষ্ট্র সচিব।

আইন মন্ত্রণালয়ের লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ বৃহস্পতিবার কামাল উদ্দিনকে এই দায়িত্ব দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

এই পদে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের একজন বিচারকের সমান বেতন, ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা পাবেন কামাল উদ্দিন।  এছাড়া জাতীয় মানবাধিকার কমিশনে একজন সার্বক্ষণিক সদস্য এবং আরও পাঁচজন অবৈতনিক সদস্যও নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সার্বক্ষণিক সদস্য হিসেবে আসছেন সাবেক সচিব মো. সেলিম রেজা। আর অবৈতনিক পাঁচ সদস্যা হলেন- সাবেক সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মো. আমিনুল ইসলাম, খাগড়াছড়ির চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি কংজরী চৌধুরী, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য ড. বিশ্বজিৎ চন্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উইম্যান অ্যান্ড জেন্ডার স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক তানিয়া হক এবং বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট কাওসার আহমেদ।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশন আইন ২০০৯ অনুযায়ী তাদের নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন