• মঙ্গলবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০
ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ০৯ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
ত্রিশালে এলজিএসপি প্রকল্পের ৫ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ
ময়মনসিংহের ত্রিশালে কাজ না করেই এলজিএসপি প্রকল্পের ৫ লাখ টাকা উত্তোলন করে আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে দেয়া অভিযোগে জড়িতদের শাস্তি দাবি করেছেন এলাকাবাসী। অভিযোগে জানা যায়, ২০১৫-১৬ অর্থবছরে এলজিএসপি দুই প্রকল্পের আওতায় উপজেলার কাঁঠাল ইউনিয়নের কালীর বাজার ধান মহলের রাস্তা ইটের সোলিং প্রকল্পে ৩ লাখ ও বাজারের ড্রেন নির্মাণ প্রকল্প দেখিয়ে ২ লাখ টাকার দুটি চেক ইউপি চেয়ারম্যান কফিল উদ্দিন, ইউপি সচিব রফিকুল ইসলাম ও সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ইফফাত আরার যৌথ স্বাক্ষরে ২৯ মার্চ সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান স্বর্ণা এন্টারপ্রাইজের নামে প্রদান করা হয়। পরে স্বর্ণা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী মেহেদী হাসান রতন কোনো কাজ না করেই চেকের মাধ্যমে সম্পূর্ণ টাকা উত্তোলন করে নেন। বিষয়টি জানতে পেয়ে এলাকাবাসী কালীর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবুল হোসেনকে জানালে সভাপতি এলাকাবাসীর পক্ষে ঘটনাটির তদন্তপূর্বক জড়িতদের শাস্তি দাবি করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন। তবে স্বর্ণা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী মেহেদী হাসান রতন অভিযোগের বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, আমি আগে বুঝতে পারিনি। কাঠাল ইউপি সচিব প্রতারণা করে আমার কাছ থেকে লাইসেন্স ও সই করা চেক নিয়ে দরপত্রবিহীন এ কাজের টাকা উত্তোলন করে নিয়েছেন। এ ব্যাপারে কালীর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আবুল হোসেন জানান, কোনো প্রকার টেন্ডার নোটিশ না দিয়েই কাঁঠাল ইউনিয়ন পরিষদের প্রয়াত সাবেক চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার ও সচিবের যোগসাজশে ঠিকাদার সমুদয় টাকা উঠিয়ে কোনো কাজ না করেই আত্মসাৎ করেছেন। এই চক্রটির সঙ্গে কালীর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ঠিকাদার রতনের সহোদর ভাইসহ চক্রটি গত ৫ বছর কাঁঠাল ইউনিয়নে বিভিন্ন ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন, যা তদন্ত করলেই বেরিয়ে আসবে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত