যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
যেসব এলাকা মুক্ত হয় আজ
আজ ঐতিহাসিক ৯ ডিসেম্বর। ১৯৭১ সালের এইদিনে মুক্তিযোদ্ধারা পাকহানাদার বাহিনী ও তাদের দোসরদের কাছ থেকে দেশের বিভিন্ন এলাকা মুক্ত করে। যুগান্তর প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-
ঈশ্বরগঞ্জ : আজ ঈশ্বরগঞ্জ মুক্ত দিবস । ১৯৭১ সালে এই দিনে ঈশ্বরগঞ্জ থানা পাকহানাদার মুক্ত হয়। বহু রক্ত ঝরা সেই উত্তাল দিনে ঈশ্বরগঞ্জের দামাল ছেলেরা দেশকে শক্রমুক্ত করার দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল মুক্তিযুদ্ধে।
পূর্বধলা : আজ ডিসেম্বর পূর্বধলা মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলা শত্র“মুক্ত হয়। মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিকামী জনতার যৌথ আক্রমণে পাকহানাদার বাহিনী ৮ ডিসেম্বর রাতে পূর্বধলা থেকে পালিয়ে যায়।
অভয়নগর : আজ অভয়নগর মুক্ত দিবস। এই দিনে পাকহানাদার বাহিনীর কবল থেকে অভয়নগর উপজেলা মুক্ত হয়।
সাঁথিয়া : আজ পাবনার সাঁথিয়া পাকহানাদার মুক্ত দিবস। ওইদিন পাকসেনারা পাবনা থেকে এসে সাঁথিয়ায় ঢোকার চেষ্টা করে। পুনরায় আক্রমণের আশংকায় মুক্তিযোদ্ধারা আগে থেকে সাঁথিয়া-মাধপুর সড়কের নন্দনপুর জোড়গাছার মাঝখানের ব্রিজটি উড়িয়ে দিয়ে বাংকার করে সেখানেই অবস্থান করতে থাকে।
কাউনিয়া : আজ কাউনিয়া মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে এক রক্তক্ষয়ী সশস্ত্র যুদ্ধের মধ্য দিয়ে পাকহানাদার বাহিনীকে পরাস্ত করে মুক্তিকামী মুক্তিযোদ্ধারা।
নেত্রকোনা : আজ নেত্রকোনা পাক হানাদার মুক্ত দিবস। এ দিন মুক্তিযোদ্ধাদের চতুর্মুখী আক্রমণের মুখে হানাদার বাহিনী শহর ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার পথে মোক্তারপাড়া ব্রিজ সংলগ্ন কৃষি ফার্মের কোনায় মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে পাক হানাদারদের মরণপণ লড়াই হয়।
পাইকগাছা (খুলনা) : আজ কপিলমুনি মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এদিনে ১৫৫ জন রাজাকার আত্মসমর্পণ করলে কপিলমুনি মুক্ত হয়।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত