সৈয়দ আমানত আলী    |    
প্রকাশ : ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
সুশিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে চান সম্ভাব্য প্রার্থীরা
সুশিক্ষার আলো সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে চান ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) নবসৃষ্ট ৪০ নম্বর ওয়ার্ডের সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থীরা। শিক্ষাই জাতির মেরুদণ্ড, শিক্ষাই জাতিকে উন্নতির শিখরে পৌঁছে দিতে পারে। যে জাতি যত বেশি শিক্ষিত সে জাতি তত বেশি উন্নত।
নবগঠিত ৪০ নম্বর ওয়ার্ডে রয়েছে নানা রকম সমস্যা। এ ওয়ার্ডের রাস্তাঘাট কিছুটা ভালো তবে সড়কগুলো চওড়া কম হওয়ায় মানুষের চলাচলে নানা রকম সমস্যা হচ্ছে। যানজট লেগেই থাকে। এ ওয়ার্ডে রয়েছে বেশ কিছু বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। রয়েছে স্যুয়ারেজের সমস্যা। এ এলাকাটি এতদিন ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে ছিল। তাই স্যুয়ারেজ লাইন তেমনভাবে তৈরি হয়নি। নেই কোনো খেলার মাঠ, সরকারি কলেজ, হাসপাতাল, এতিমখানা, বিনোদনের জন্য কোনো পার্ক ও কমিউনিটি সেন্টার। মাদক এ এলাকার আরেক বড় সমস্যা। মাদকের প্রতি দিনদিন আসক্ত হয়ে পড়ছে এখানকার যুবসমাজ। তাই তাদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে যাতে বিপদগামী না হতে পারে। এ সব সমস্যা সমাধানে ৪০ নম্বর ওয়ার্ডের সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থীরা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।
এ ওয়ার্ডটি ভাটারা (অংশ-১), ভাটারা (অংশ-২), ছোলমাইদ (অংশ-১), নয়ানগর দক্ষিণ, নয়ানগর উত্তর এবং জোয়ার সাহারা (আংশিক) জেএল-৩ এর ছোলমাইদ অংশ নিয়ে গঠিত। এ ওয়ার্ডে ২ লাখ মানুষ বসবাস করে। এখানকার ভোটার সংখ্যা প্রায় ৪০ হাজার।
আসন্ন নির্বাচনে ওয়ার্ডের সম্ভাব্য কাউন্সিল প্রার্থীরা হলেন, ভাটারা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আতাউর রহমান, ভাটারা থানা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ মো. ইকবাল হোসেন খন্দকার, ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের ২ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য ও সাবেক বৃহত্তর সাঁতারকুল আওয়ামী যুবলীগের মো. রাশেদ খন্দকার, ভাটারা থানা জাতীয়তাবাদী যুবদলের সভাপতি মো. আজহারুল ইসলাম, ভাটারা থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক টুটুল ব্যাপারী, সাবেক বৃহত্তর গুলশান থানা যুবসংহতির দেলোয়ার হোসেন দিলু, বাড্ডা থানা আওয়ামী লীগের সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য ও বারিধারা সোসাইটির জে ব্লকের চেয়ারম্যান মো. নাজিম উদ্দিন, বিএনপির ওয়াহেদুজ্জামান মোল্লা, আওয়ামী লীগের মারফত আলী, ভাটারা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. নজরুল ঢালী।
এই ওয়ার্ডের উন্নয়নে মানুষের পাশে থাকতে চান সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রার্থী থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও ভাটারা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আতাউর রহমান। তিনি যুগান্তরকে বলেন, আমি এ এলাকায় দীর্ঘদিন চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছি। নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকার অনেক উন্নয়ন করেছি। আমি জিয়াউর রহমানের আদর্শ বুকে ধারণ করে বাকি যে অসমাপ্ত কাজ রয়েছে তা সমাপ্ত করতে চাই। আমি সবার মাঝে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে চাই।
ভাটারা থানা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আলহাজ মো. ইকবাল হোসেন খন্দকার যুগান্তরকে বলেন, আমি এ এলাকার একজন যুবনেতা। যদি দল থেকে নির্বাচনের সুযোগ পাই তাহলে জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার জন্য কাজ করব। যুবসমাজকে কাজে লাগিয়ে দেশ ও জাতিকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাব।
জাতীয়তাবাদী যুবদলের ভাটারা থানার সাধারণ সম্পাদক মো. আজহারুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার আলো সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। যাতে কোনো তরুণ মাদকের দিকে ঝুঁকে না পড়ে। তাদের জন্য খেলাধুলা বিনোদনের ব্যবস্থা করব।
আওয়ামী লীগের রাশেদ খন্দকার বলেন, আমি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হলে এ এলাকাকে মাদকমুক্ত করব। জাতীয় পার্টির দেলোয়ার হোসেন বলেন, আমি নির্বাচিত হলে ওয়ার্ডকে মাদক-সন্ত্রাসমুক্ত এলাকা হিসেবে গড়ে তুলব।
স্বেচ্ছাসেবক লীগের টুটুল ব্যাপারী বলেন, আমি এ ওয়ার্ডবাসীকে একটি মডেল ওয়ার্ড হিসাবে গড়ে তুলতে সর্বাত্মক চেষ্টা করব। ওয়ার্ড ঘুরে দেখা যায়, এলাকায় নির্বাচনের বাতাস বইতে শুরু করেছে। পাড়া, মহল্লায়, চায়ের দোকান, অলিত-গলিতে শুধু নির্বাচনের আলোচনা-সমালোচনা চলছে। কে কাকে সমর্থন করবে, কার সঙ্গে গেলে ভালো সুবিধা পাবে, কে এলাকার উন্নয়ন করবে তা ভাবতে শুরু করেছে ভোটাররা। চায়ের দোকানের বেচা-বিক্রয়ও ভালোই চলছে। এরই মধ্যে পোস্টার, ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে এলাকা। এলাকাবাসী বলেন, আমরা ভোট তাকেই দেব যে ব্যক্তি শিক্ষিত ও আদর্শবান। যে সুখে-দুঃখে সব সময় আমাদের পাশে থাকবে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত