বিবিসি বাংলা    |    
প্রকাশ : ১১ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
সৌদিতে বাংলাদেশী শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের চেষ্টা চলছে
রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ
সৌদি আরবে হঠাৎ বেকার হয়ে পড়া ১ হাজার ৮০০ বাংলাদেশী শ্রমিকের বিষয়ে উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। বেকার ওইসব শ্রমিকের কর্মসংস্থান যেন দ্রুত হয়, সে বিষয়ে চেষ্টা চলছে। আর কোনো বেকার শ্রমিক দেশে ফিরে আসতে চাইলে তার সব ব্যবস্থা বাংলাদেশ সরকার করবে। রিয়াদে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ বিবিসিকে এসব তথ্য জানিয়েছেন।
বাংলাদেশের অভিবাসী শ্রমিকদের একটি বড় অংশ কাজ করে সৌদি আরবে। সৌদি অর্থনীতিতে মন্দার জেরে হাজার হাজার শ্রমিককে ছাঁটাই করা হয়েছে। তাদের মধ্যে পাকিস্তান, ভারতীয়, ফিলিপিন্সসহ বাংলাদেশী শ্রমিকও রয়েছেন। অনেকে মাসের পর মাস বেতন পাচ্ছেন না। শ্রমিকদের জন্য নির্মিত শিবিরগুলোয় তাদের দিন কাটছে এক-আধবেলা খেয়ে-না খেয়ে। রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ জানিয়েছেন, কর্মহীন এসব শ্রমিকের বিষয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। তিনি জানান, ইতিমধ্যে শিবিরগুলো ঘুরে শ্রমিকদের খাওয়া-পরার ব্যবস্থাও নেয়া হয়েছে। রাষ্ট্রদূত আরও জানান, মূলত দুটি কনস্ট্রাকশন কোম্পানির অব্যবস্থাপনার কারণে শ্রমিকরা মাসের পর মাস বেতন পাচ্ছেন না এবং বেকার হয়ে পড়েছেন। সৌদিতে কর্মহীন এশীয় শ্রমিকদের অনেকে একবেলা খেয়ে দিন পার করছেন- এ খবর প্রকাশের পর কর্তৃপক্ষ তাদের নিয়ে উদ্যোগী হয়। গতরাতে শ্রমিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তারা বিবিসিকে জানান, বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষ তাদের খাবার-দাবারের ব্যবস্থাসহ আর্থিকভাবেও সহায়তা করছেন এবং তাদের সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। শ্রমিকদের বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ নিয়ে উদ্বেগের বিভিন্ন খবর প্রকাশের পর সৌদি কর্তৃপক্ষ জানায়, এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে আসা শ্রমিক, যারা সে দেশে বেকার রয়েছেন, তারা যাতে অন্য চাকরিতে ঢুকতে পারেন বা দেশ ত্যাগ করতে পারেন সে লক্ষ্যে বিধিনিষেধ শিথিল করা হবে। রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, শ্রমিকদের নিয়ে বর্তমান এ সংকটের যেন দ্রুত সমাধান হয়, সে বিষয়ে সৌদি সরকারও এখন উদ্যোগী হয়েছে এবং বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত