যুগান্তর রিপোর্ট    |    
প্রকাশ : ১৬ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
তিন তলার ইট মাথায় পড়ে সংকটাপন্ন ভার্সিটি ছাত্র
ভবনের মালিক ও ছেলে আটক
রাজধানীর মোহাম্মদপুরের মোহাম্মাদিয়া হাউজিং এলাকার নির্মাণাধীন একটি ভবনের তিন তলা থেকে মাথায় ইট পড়ে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র গুরুতর আহত হয়েছেন। তার নাম আখিদুল ইসলাম। শুক্রবার দুপুরে ওই এলাকার ৭ নম্বর রোডের ১/বি নম্বরের বাড়িসংলগ্ন রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলেন আখিদুল। এ সময় ওই ভবনের ৩ তলা থেকে ইট তার মাথায় পড়ে। পথচারীরা তাকে প্রথমে জাতীয় অর্থোপেডিক (পঙ্গু) হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থার অবনতি হলে নেয়া হয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পরে তাকে ভর্তি করা হয় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে। সেখানে অস্ত্রোপচার শেষে আখিদুলকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। তার জীবন এখন সংকটাপন্ন। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত (শনিবার সন্ধায়) তার জ্ঞান ফেরেনি। এ ঘটনায় ভবনের মালিক ও তার ছেলেকে আটক করেছে পুলিশ। আখিদুলের চিকিৎসকরা শনিবার জানিয়েছেন, তার মস্তিষ্ক মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৪৮ ঘণ্টা না যাওয়া পর্যন্ত তাকে ঝুঁকিমুক্ত বলা যাচ্ছে না। আখিদুল ইউনিভার্সিটি অব ডেভেলপমেন্ট অলটারনেটিভের (ইউডা) চারুকলা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র। তার বোন নাসরিন হোসেন সরকারি কলেজের শিক্ষক ও ভগ্নিপতি মোস্তাফিজ কারিগর একজন চিত্রশিল্পী। বিষয়টি নিয়ে মোস্তাফিজ কারিগর মোহাম্মদপুর থানায় অভিযোগ করেছেন। আখিদুলের স্বজনেরা অবিলম্বে দোষীদের শাস্তি ও উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন। বিষয়টি নিয়ে এলাকাবাসী ও ইউডা শিক্ষার্থীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে।
মোহাম্মদপুর থানার ওসি জামাল উদ্দিন মীর বলেন, এ ঘটনায় ভবনটির মালিক মোশাররফ হোসেন ও তার ছেলে ফয়সালকে শুক্রবার রাতে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মোহাম্মদপুর থানার এসআই মো. ইয়াহিয়া বলেন, বিষয়টি নিয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। মামলা হলে আটকদের গ্রেফতার দেখানো হবে। এসআই ইয়াহিয়া জানান, ভবনটি নির্মাণাধীন। তবে দুর্ঘটনার সময় ভবনটিতে নির্মাণকাজ চলছিল না। তৃতীয় তলায় বিয়েসংক্রান্ত একটি অনুষ্ঠান চলছিল। এ সময় সেখান থেকে একাধিক ইট নিচে পড়ে। তবে পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই ইট সরিয়ে নেয়া হয়েছে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত