মিরসরাই (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধ
মিরসরাইয়ে মাদক চোরাচালানিবাহী মাইক্রো চালক নিহত
মিরসরাইয়ে একদল মাদক চোরাচালানিকে আটককালে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাইক্রো চালক নিহত হয়েছে। এ সময় একটি মাইক্রোবাস আটক করা হলেও অপর মাইক্রোয় অন্তত ৮ চোরাচালানি পালিয়ে গেছে। আটক মাইক্রো থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, চার রাউন্ড গুলি ও ৬০০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। নিহত মাইক্রো চালকের নাম দিদারুল আলম চৌধুরী সোহেল (৩৩)। তার বাড়ি মিরসরাইয়ের উত্তর সোনা পাহাড় গ্রামে। র‌্যাব-৭-এর কোম্পানি কমান্ডার শাফায়াত জামিল ফাহিম জানান, বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাই উপজেলার জোরারগঞ্জ থানার পূর্ব রায়পুরে টহল দিচ্ছিল র‌্যাব। এ সময় তারা ২টি গাড়িতে করে চট্টগ্রামের দিকে মাদক আনার গোপন সংবাদ পায়। র‌্যাব সদস্যরা ঠাকুরদীঘি এলাকায় মাইক্রো দুটিকে থামানোর সংকেত দেন। এ সময় চোরাচালানিরা র‌্যাবকে উদ্দেশ করে গুলি ছুড়লে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। এতে মাইক্রোবাস (চট্ট-মেট্রো-চ-৫১-১১১৮) চালক দিদারুল আলম চৌধুরী সোহেল গুলিবিদ্ধ হন এবং পার্শ্ববর্তী খালে পড়ে যান। এ সময় অন্য মাইক্রোটি পালিয়ে যায় এবং আটক মাইক্রোর দুবৃর্ৃৃত্তরাও পালাতে সক্ষম হয়। গুলিবিদ্ধ চালক সোহেলকে উদ্ধার করে মস্তাননগর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এদিকে তিন মেয়েসন্তানের জনক নিহত সোহেলের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। স্ত্রী তাছলিমা আক্তার সুমি মেয়েদের বুকে জড়িয়ে অঝোরে কাঁদছিলেন। নিহত সন্তানের ছবি হাতে বিলাপ করছিলেন মা আনোয়ারা বেগম। বলছিলেন, সোহেল পেশাদার মাইক্রো চালক। কোনো অন্যায় কাজে সোহেলের জড়িত থাকার কথা নয়। তাদের সংসারে উপার্জন করার মতো আর কেউ রইল না।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত