মাহবুব হাসান    |    
প্রকাশ : ১১ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
সেপ্টেম্বরেই ঢাকা মহানগর আ’লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি
আগামী মাসেই ঘোষণা হতে যাচ্ছে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তর ও দক্ষিণ অংশের পূর্ণাঙ্গ কমিটি। ইতিমধ্যে দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দুই অংশের খসড়া কমিটি জমা দেয়া হয়েছে। যাচাই-বাছাই শেষে তিনি কমিটি চূড়ান্ত করবেন। সেপ্টেম্বর মাসেই একইসঙ্গে দুই কমিটি ঘোষণা হতে পারে। এ কমিটিতে অখণ্ড নগরের নেতাদের পাশাপাশি সাবেক ছাত্রনেতাদের রাখা হতে পারে।
এ প্রসঙ্গে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের দক্ষিণ অংশের সমন্বয়ক এবং আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় সম্পাদক ড. আবদুর রাজ্জাক যুগান্তরকে বলেন, কমিটি দলীয় প্রধান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে জমা দেয়া হয়েছে। ঈদুল ফিতরের আগেই তা ঘোষণা করার কথা ছিল। কিন্তু তখন হঠাৎ কিছু রাজনৈতিক ইস্যু সামনে আসায় প্রধানমন্ত্রী তা নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। ঈদের পরে এখন চলছে আগস্ট মাস। এ মাস আওয়ামী লীগ শোকের কর্মসূচি ছাড়া কিছু করে না। তাই পরবর্তী মাসেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হতে পারে।
প্রসঙ্গত, দীর্ঘ এক যুগ পর ১০ এপ্রিল ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি দেয়া হয়। আগে মহানগর একটি থাকলেও এই প্রথম উত্তর ও দক্ষিণ দুই ভাগে ভাগ করে কমিটি ঘোষণা করা হয়। উত্তরে একেএম রহমত উল্লাহকে সভাপতি ও সাদেক খানকে সাধারণ সম্পাদক এবং দক্ষিণে আবুল হাসনাতকে সভাপতি এবং শাহে আলম মুরাদকে সাধারণ সম্পাদক করে দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে কমিটি প্রকাশ করা হয়। এদিন নগরের দুই অংশের পাশাপাশি থানা ও ওয়ার্ড পর্যায়ের দুই শীর্ষ নেতার নামও ঘোষণা করা হয়। কিন্তু এরপর প্রায় ৫ মাস হতে চললেও পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেয়া হয়নি।
সূত্র জানায়, শীর্ষ দুই পদের মতোই পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের সমন্বয় করছেন মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সমন্বয়ক কর্নেল (অব.) ফারুক খান এবং দক্ষিণে ড. আবদুর রাজ্জাক। সূত্র জানায়, নগরের শীর্ষ চার নেতা এবং দুই সমন্বয়ক মিলে পূর্ণাঙ্গ কমিটির খসড়া তৈরি করে দলের সভাপতি শেখ হাসিনার কাছে জমা দিয়েছেন। দক্ষিণের কমিটি প্রধানমন্ত্রী চূড়ান্তও করেছেন। তবে উত্তরে দু-একটি জায়গায় এখনও নাম নির্দিষ্ট করা হয়নি। অচিরেই তা সম্পন্ন করা হবে বলে সূত্রের দাবি।
পূর্ণাঙ্গ কমিটি কবে নাগাদ হচ্ছে জানতে চাইলে উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান যুগান্তরকে বলেন, এই অংশের সমন্বয়ক তাদের মতামত নিয়ে কমিটি তৈরি করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে উপস্থাপন করেছেন। এখন প্রধানমন্ত্রী তা চূড়ান্ত করবেন।
একই তথ্য দেন দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদও। তিনিও দাবি করেন, কমিটির খসড়া প্রস্তুত। দলীয় সভাপতির কাছে তা জমা আছে। শোকের মাস আগস্ট শেষ হলেই তা ঘোষণা হতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
নগর আওয়ামী লীগের সূত্রগুলো জানায়, একযোগে দুই অংশের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে। সূত্রমতে, অখণ্ড মহানগরের নেতাদের পাশাপাশি ঢাকার স্থানীয় সাবেক ছাত্রনেতাদের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা হবে।
উল্লেখ্য, প্রায় সাড়ে নয় বছর পর ২০১২ সালের ২৭ ডিসেম্বর সংগঠনটির সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এর পরে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ছাড়াই পার হয়েছে এক মেয়াদেরও বেশি সময়। ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের পরে উত্তরে কর্নেল (অব.) ফারুক খান এবং দক্ষিণে ড. আবদুর রাজ্জাককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল নগরের কমিটি সমন্বয় করতে। দলের কেন্দ্রীয় কমিটির এই দুই সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দল সমর্থিত দুই প্রার্থীর নির্বাচনী সমন্বয়ক হিসেবে কাজ করেছিলেন। এরপর দুই অংশের কমিটি গঠনের সমন্বয়ও করেন তারা। তাদের সুপারিশকৃত কমিটিতে স্থান পাননি মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক পরাক্রমশালী নেতা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, ১/১১ তে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করা খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, ঢাকা দক্ষিণের মেয়র ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সাঈদ খোকন, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক হাজী সেলিম ও আওলাদ হোসেনসহ অনেক প্রভাবশালী নেতা।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত