ফাহাদ আল মুক্তাদির    |    
প্রকাশ : ০৯ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
নাটক না দেখেই লিখে ফেলুন নাটকের রিভিউ

ঈদ শেষ। ঈদের একাদশ-দ্বাদশ-ত্রয়োদশ এসব দিনের অনুষ্ঠানসূচিও শেষ! এখন সময় নাটকের রিভিউ লেখার। কিন্তু লাখ লাখ চ্যানেলে প্রচারিত হয়েছে কোটি কোটি নাটক... কোনটা ছেড়ে কোনটা দেখবেন? না দেখে রিভিউই বা লিখবেন কীভাবে? বিচ্ছু আপনার জন্য তাই নাটকসমূহকে ভাগ করেছে কিছু নির্দিষ্ট ক্যাটাগরিতে, এগুলো পড়ে নাটক না দেখেই লিখে ফেলুন নাটকের রিভিউ।

লুতুপুতু টাইপ

সাধারণত এ রকম নাটকে থাকবে বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া প্রেমিক যুগল। প্রেমিকের বাবা-মা ইউএস, ইউকে কিংবা অস্ট্রেলিয়া কানাডার বাসিন্দা থাকবে। প্রেমিক একা একটি ফ্ল্যাটে কিংবা একজন ছেলে বন্ধু নিয়ে থাকতে পারে। প্রাইভেট কার থাকবে মাস্ট। অন্যদিকে প্রেমিকা হোস্টেল কিংবা ফ্যামিলির সাথে থাকবে। প্রেমিকা কে অবশ্যই প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হবে। এসব গন্ধ পেলে বুঝে নেবেন এটি শতভাগ প্রেমের ও লুতুপুতু নাটক। একটি লুতুপুতু রিভিউ লিখে ফেলুন।

হুদাই কমেডি টাইপ

কমেডি নাটকের কাহিনী ধরা পৃথিবীর সব থেকে সহজ। কারণ বছরের পর বছর নির্দিষ্ট কিছু অভিনেতা এবং একই গল্প ব্যবহার করে এ নাটকগুলো বানানো হচ্ছে। অতিমাত্রায় আঞ্চলিক কিংবা ঢাকাইয়া ভাষার ব্যবহার দেখে আপনি বুঝে নিতে পারেন নাটকটি একটি খাঁটি বাংলা কমেডি নাটক। কমেডি দেখে মনে হবে জোর করে হাসানোর চেষ্টা অর্থাৎ হাসবি না কেন এ টাইপ অবস্থা! কী-বোর্ডে হাত রেখেই হাস্যরসের সমালোচনা করে ‘লেম স্ক্রিপ্ট’, ‘কাতুকুতু’ এই টাইপ শব্দ্য ব্যবহার করে একটি রিভিউ লিখে ফেলুন।

সিক্যুয়েল টাইপ

কোনো এক ঈদে হিট হওয়া নাটকের সিক্যুয়েল যা প্রতি ঈদে একটি করে বানানো হয়। এসব সিক্যুয়েলগুলোর কাহিনী চিত্রায়ন মূল নাটকের মতো হুবহু একরকম থাকলেও শুধু বিজ্ঞাপন বিরতিতে আগের বছরের চেয়ে ভিন্ন ভিন্ন বিজ্ঞাপন থাকতে পারে। এই ধরনের নাটকগুলো মূলত নামে শনাক্ত করতে হ্যয়, যেমন : লাইকার আক্কাস, আক্কাস এখন গুহায়, এ কেমন আক্কাস? প্রতি ঈদে এসব সিরিয়াল টাইপ নাটক আপনার চোখের সামনে ঘুর ঘুর করে। আগের নাটকটির যদি একটি রিভিউ লিখে থাকেন সেটিই কপি পেস্ট করে দিন।

ছ্যাঁকাখাওয়া টাইপ

এসব নাটকে দেখা যায় প্রেমিক রাত বিরাতে প্রেমিকার বাসার সামনে, ল্যাম্পপোস্টের নিচে, চিপাচাপায় দাঁড়িয়ে আছে। প্রেমিকা তাকে পাত্তা দিচ্ছে না। ত্রিভুজ প্রেম কিংবা পরকীয়া টাইপ ব্যাপার থাকতে পারে। কয়েকটিতে আবার প্রেমিক ভালোবাসার কথা বলতে পারছে না, এরপর সাহস করে বলে ফেললে প্রেমিকা রাজি হয়ে যায় এবং কিছুদিন চলে প্রেম। কিন্তু কিছুদিন পরে ঠিক তার কী সমস্যা হয় বোঝা যায় না! (নারীর মন বিচিত্র টাইপ সমস্যা!) প্রেমিক ছ্যাঁকা-ট্যাকা খেয়ে একাকার অবস্থা। নাটকের শেষে চলে বিরহের গান। তবে কিছু কিছু নাটকে প্রেমিক-প্রেমিকাকে এয়ারপোর্ট থেকে ফিরিয়ে নিয়ে আসতে সমর্থ হয়।

বন্ধুত্বের নাটক

এসব নাটকের নামের আগে থাকবে অমুক তমুক সিম কোম্পানি প্রেজেন্টস। নাটকে একদল বড়লোকের প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় পড়–য়া তরুণ-তরুণী। এদের রিলেশন হবে ফেসবুকনির্ভর। উদ্ভট বাংলা ইংরেজির সংমিশ্রণে আপনার মাথা হ্যাং হয়ে যাবে। আপনি নাটক দেখার সময় মাঝে মাঝে হারিয়ে যাবেন অর্থাৎ কী দেখছেন তা বোঝায় এ শতকের চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে।

(নাটক না দেখেও যে নাটকের রিভিউ লেখা সম্ভব, তা যদি এখনও বিশ্বাস না করে থাকেন তবে জেনে রাখুন, এই রিভিউ কিংবা ‘রিভিউগুচ্ছ’টিও কোনো নাটক না দেখেই লেখা!)


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত