নিয়াজ আহমেদ    |    
প্রকাশ : ২১ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
লিঙ্কডইনে ফেক রিক্রুইটার চেনার ৯ উপায়
১. প্রথমত আপনি রিক্রুইটারের প্রোফাইল চেক করুন। তার প্রোফাইলটি পরিপূর্ণ কিনা। তার কতগুলো কানেকশন, এন্ডোর্সমেন্ট, রিকমেন্ডেশন আছে সেটি দেখুন। ইনকমপ্লিট প্রোফাইল থেকে আসা সার্কুলার ফেক হয়।
২. একইসঙ্গে অনেক সময় একাধিক সার্কুলার আসে, যেমন- হেড অফ অপারেশন, হেড অফ সেলস, হেড অফ সাপ্লাই চেইন ইত্যাদি। তার মানে কি সেই কোম্পানিতে এদের কেউই নেই? যে কোম্পানিতে এরকম সব ডিপার্টমেন্টাল হেড থাকে সে না সেই কোম্পানির অস্তিত্ব থাকে কীভাবে? কাজেই সেটিও ফেক।
৩. কোন কোম্পানির সার্কুলার পার্সোনাল মেইল আইডি দিয়ে করা অন্তত বাইরের দেশের লোকেরা করবে না, কাজেই পার্সোনাল আইডি দেয়া বিদেশি সার্কুলারগুলা ফেক।
৪. অনেকে ইন্টারভিউ ছাড়াই প্রথমে মেসেজ করে আপনার জব হয়ে গেছে, এরা ফেক।
৫. ফেক সার্কুলারে জেডি, স্কিল, জব লোকেশন, বেতন ইত্যাদি তথ্য কমপ্লিট থাকে না।
৬. অবিশ্বাস্য বেতন অফার করা ফেক রিক্রুইটার বোঝার একটি ওয়ে। আপনার বেতন ২০ হাজার টাকা থেকে ২০ হাজার ডলার হওয়ার নয়।
৭. অনেকে আমেরিকা, কানাডা থেকে অতিরিক্ত আগ্রহ দেখাবে আপনাকে নিয়ে। সেক্ষেত্রে আপনি বুঝতে পারবেন যে উনি ফেক রিক্রুুইটার।
৮. আপনার কাছে যদি টাকা চায়, তাহলে নির্ঘাত সে ফেক রিক্রুইটার। আপনার কোনো কার্ডের নম্বর বা কিছু ভুলেও এদের সঙ্গে শেয়ার করবেন না।
৯. আপনি নিজেকে যোগ্য মনে করলে কমেন্ট করুন। দেখুন, কমেন্ট করলে কি কোনো দিন জব হবে? কাজেই এরা ফেক।
লেখক : প্রফেশনাল সিভি রাইটার ও কর্পোরেট ট্রেইনার
সিইও, কর্পোরেট আস্ক। ইমেইল : [email protected]



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত