যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ৩০ জানুয়ারি, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
বঙ্গোপসাগরে ৫২ দেশের নৌমহড়া ফেব্রুয়ারিতে
বঙ্গোপসাগরে এক বিশেষ নৌমহড়া অনুষ্ঠিত হচ্ছে আগামী ফেব্রুয়ারিতে। ৫২টি দেশের নৌবাহিনী এ মহড়ায় অংশ নেবে। মহড়ার আয়োজক ভারত। যুক্তরাষ্ট্র আর রাশিয়ার মতো ঘোর প্রতিপক্ষও মহড়ায় অংশ নেবে। বঙ্গোপসাগরে নিজেদের নৌসেনার সক্ষমতা দেখাতে প্রস্তুত পরস্পরের প্রবল বৈরী চীন-জাপানও। আনন্দবাজার।
৪ থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি বিশাখাপত্তম উপকূলে এই মহড়া চলবে। যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, চীন, ব্রিটেন, ফ্রান্স তো থাকছেই। থাকছে জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ব্রাজিল, চিলি, কলম্বিয়া, পেরুসহ মোট ৫২টি দেশের নৌবাহিনী। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ স্থায়ী সদস্য দেশ এশিয়ার আঞ্চলিক পরাশক্তি ভারত আয়োজিত এ মহড়ায় অংশ নিতে রাজি হওয়ায় এ নিয়ে এ অঞ্চলে বেশ কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে।
ভারতের নৌসেনা মহড়া এই প্রথম নয়। ১৯৫৩ সালে প্রথমবার নৌযুদ্ধের মহড়া দেয় ভারত। কিন্তু শুরুতে এই মহড়া ভারতের নিজস্ব ছিল। ওই মহড়ায় অন্যান্য দেশের নৌসেনাদের সেভাবে আমন্ত্রণ জানানো হতো না। ২০০১ সালে প্রথমবার এই মহড়াকে আন্তর্জাতিক রূপ দেয়ার চেষ্টা হয়। তখন রাষ্ট্রপতি ছিলেন এপিজে আবদুল কালাম। সেই বছর মহড়ায় অংশ নিয়েছিল ২৯টি দেশ। ১৫ বছর পর ভারতের রাষ্ট্রপতি ও তিন বাহিনীর প্রধান প্রণব মুখোপাধ্যায়ের আনুষ্ঠানিক নেতৃত্বে ফের নৌমহড়ার আয়োজন করেছে ভারত। ৪ থেকে ৮ ফেব্রুয়ারি বিশাখাপত্তম উপকূলে এই মহড়া চলবে। এর নাম দেয়া হয়েছে ইন্টারন্যাশনাল ফ্ল্যাট রিভিউ-২০১৬। এটিকে ভারতের মেরিটাইম ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্ত বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডমিরাল ধাওয়ান। এর মাধ্যমে মহড়ায় অংশ নেয়া দেশগুলোর সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক আরও জোরদার হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।
শুভেচ্ছা সফরে বাংলাদেশে চীনা যুদ্ধজাহাজ : চীনের নৌবাহিনীর তিনটি জাহাজ শুভেচ্ছা সফরে বাংলাদেশে পৌঁছেছে। গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র ফ্রিগেট-সংযুক্ত লিউঝোউ, সান্যা এবং সাপ্লাই জাহাজ কিংঘাইহু পাঁচ দিনের শুভেচ্ছা সফরে বুধবার চট্টগ্রাম বন্দরে এসে পৌঁছায়। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির আনুষ্ঠানিক পত্রিকা পিপলস ডেইলি এ খবর দিয়েছে। বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ ঈসা খাঁর ক্যাপ্টেন কমোডর এম রাশেদ আলিসহ ঊর্ধ্বতন নৌ কর্মকর্তারা চীনা জাহাজকে অভ্যর্থনা জানান। এ সময় বাংলাদেশে বসবাসরত বহু চীনা নাগরিক সেখানে উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাহাজ বিজয় চীনা টাস্কফোর্সকে অভ্যর্থনা জানায়। এ সময় এক বিবৃতিতে বলা হয়, এ সফরের ফলে উভয় দেশের নৌবাহিনীর মধ্যকার বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও জোরদার হবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত চীনা রাষ্ট্রদূত মা মিং কিয়াং বলেন, এ সফরের মাধ্যমে চীন ও বাংলাদেশের বন্ধুত্ব আরও নিবিড় হবে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত