তালতলী ও আমতলী প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ২০ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
তালতলীতে মুখে এসিড ঢেলে স্ত্রীকে হত্যা : স্বামী গ্রেফতার
বরগুনার তালতলী উপজেলার মোয়াপাড়া গ্রামের গৃহবধূ মরিয়ম বেগমকে (২২) স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ি মিলে অমানুষিক নির্যাতনের পর মুখে এসিড ঢেলে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় স্বামী ফরিদ উদ্দিনকে (৩০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনা ঘটেছে বৃহস্পতিবার বিকালে।
পুলিশ জানায়, ২০০৮ সালের ১৯ নভেম্বর তালতলী উপজেলার হরিন খোলা গ্রামের কুদ্দুস মোল্লার মেয়ে মরিয়মের সঙ্গে মোয়াপাড়া গ্রামের দেলওয়ার হোসেনের ছেলে ফরিদ উদ্দিনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে যৌতুক নিয়ে ঝগড়া-বিবাদ লেগেই থাকত। গত এপ্রিল মাসে স্বামী ফরিদ উদ্দিন নলবুলিয়া গ্রামের এক প্রবাসীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে এবং তাকে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ নিয়ে স্থানীয়ভাবে সালিশ বিচার হয়। স্বামীর পরকীয়ার প্রতিবাদ করায় মরিয়মের ওপর শুরু হয় অমানুষিক নির্যাতন। প্রায়ই এ নিয়ে স্বামী ফরিদ উদ্দিন তাকে মারধর করত। নিরূপায় মরিয়ম ২৯ জুন স্বামীর বিরুদ্ধে আমতলী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে যৌতুক মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় আদালত ২৪ জুলাই স্বামীকে জেলহাজতে পাঠান। হাজতবাসের ১৮ দিনের মাথায় আদালতে শর্ত দিয়ে ১১ আগস্ট ফরিদ উদ্দিনের সমঝোতায় জামিন হয়। আদালতে স্বামী ফরিদ উদ্দিন মুচলেকা দিয়ে স্ত্রী মরিয়মকে বাড়ি নিয়ে যান। অভিযোগ রয়েছে বাড়িতে নিয়েই শুরু করে অমানুষিক নির্যাতন। পর পর দু’দিন গাছের বেঁধে নির্যাতন চালানো হয়। বৃহস্পতিবার সকালে স্ত্রী মরিয়ম বেগমকে স্বামী ও তার বাড়ির লোকজন জোড়পূর্বক এসিড পান করিয়ে দেন। এ খবর পেয়ে বাবা কুদ্দুস মোল্লা মেয়েকে উদ্ধার করে পটুয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন। রাতে সেখানে মারা যান মরিয়ম। স্বামী ফরিদ উদ্দিন জানান, তার স্ত্রী মরিয়ম বেগম এসিড পানে আত্মহত্যা করেছেন। এ ঘটনায় তালতলী থানায় মরিয়মের বাবা কুদ্দুস মোল্লা ফরিদ উদ্দিনকে প্রধান আসামি করে সাতজনের নামে মামলা দায়ের করেছে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত