যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ২০ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
পশ্চিমবঙ্গে ৯ বাংলাদেশী গ্রেফতার
ভারতে অনুপ্রবেশের অভিযোগে এক নারীসহ ৯ বাংলাদেশীকে গ্রেফতার করেছে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ। তাদের ১৪ দিনের নিরাপত্তা হেফাজতে পাঠিয়েছেন আদালত। আটকরা হলেন- মুকুল হোসেন, শফিকুল সর্দার, রায়হান ইসলাম, মিজানুর ইসলাম, আবদুল গনি, জামশেদ গাজী, জিয়ারউল ইসলাম, হাসান আলী এবং ফাতেমা বিবি। তাদের বেশিরভাগ সাতক্ষীরার বাসিন্দা। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।
খবরে বলা হয়, ১৭ আগস্ট উত্তর চব্বিশ পরগনার বাসিরহাটের গোজাডাঙ্গা সীমান্ত এলাকার কাছ থেকে ওই ৯ বাংলাদেশীকে গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার তাদের বাসিরহাট আদালতে হাজির করা হলে ১৪ দিনের নিরাপত্তা হেফাজতে পাঠানো হয়।
চব্বিশ পরগনার পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখার্জি জানান, ‘তারা অবৈধভাবে প্রবেশ করছিলেন। ১৯৪৬ সালের ফরেনার্স অ্যাক্টের আওতায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা কাজের জন্য ভারতের দক্ষিণাঞ্চলে যাওয়ার পরিকল্পনা করে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে।
পুলিশ জানায়, তারা কোনো আইনি কাগজপত্র ও বৈধ পরিচয়পত্র দেখাতে পারেননি। তাদের কারও কাছে পাসপোর্টও নেই। কিভাবে তারা সীমান্ত পাড়ি দিয়েছেন তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
খবরে বলা হয়, জুলাইয়ের এক হিসাব অনুযায়ী এ বছর শুধু বাসিরহাট পুলিশই ৪৫ জন বাংলাদেশীকে গ্রেফতার করেছে।
৩১ বাংলাদেশী জেলে উদ্ধার : এদিকে ইঞ্জিন বিকল হয়ে মাঝ সাগরে আটকাপড়া দুটি মাছ ধরার নৌকা থেকে ৩১ বাংলাদেশী জেলেকে উদ্ধার করেছে ভারতীয় কোস্টগার্ড। ১৬-১৭ আগস্ট লঘু চাপের কারণে পশ্চিমবঙ্গ উপকূলে বিরাজ থাকা বৈরী আবহাওয়ার মধ্যেই এ উদ্ধার অভিযান চালানো হয়। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জানায়, উদ্ধার হওয়া বাংলাদেশী নৌকাগুলোর একটির নাম ‘আল্লাহর দান’ ও আরেকটির নাম ‘ফরহাদ’। ভারতীয় কোস্টগার্ড উদ্ধার জেলেদের খাবার ও চিকিৎসা সহায়তা দিয়েছে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত